টেক নিউজ

শাওমি অ্যানাউন্স করলো নতুন গেমিং স্মার্টফোন ব্ল্যাক শার্ক হিলো

0

রেজরের গেমিং স্মার্টফোন থেকেই প্রায় সব মেজর স্মার্টফোন ম্যানুফ্যাকচারাররাই তাদের রেগুলার ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন এবং বাজেট স্মার্টফোনের পাশাপাশি গেমারদের জন্য ডেডিকেটেড গেমিং স্মার্টফোন তৈরি করছে। রেজর এবং অ্যাসুসের পাশাপাশি শাওমিও গত বছর রিলিজ করেছিলো তাদের গেমিং স্মার্টফোন, “শাওমি ব্ল্যাক শার্ক”। স্মার্টফোনের বাজারে গেমারদের মধ্যে বেশ ভালোই সাড়া ফেলেছিলো শাওমির এই গেমিং স্মার্টফোন। এছাড়া গেম খেলার জন্য ফোনের সাথে মোবাইল গেমপ্যাড কানেক্ট করার সুবিধা থাকায় গেমিং স্মার্টফোনগুলোর মধ্যে অনেকের পছন্দের খাতার প্রথমেই ছিলো শাওমি ব্ল্যাক ব্ল্যাক শার্ক।

ব্ল্যাক শার্কের সফলতার সুত্র ধরে এবার শাওমি অ্যানাউন্স করেছে তাদের ব্ল্যাক শার্ক সিরিজের পরবর্তী নতুন গেমিং স্মার্টফোন, যার নাম দেওয়া হয়েছে ব্ল্যাক শার্ক হিলো। এই নতুন মডেলটি বাইরের দিক থেকে এবং বিল্ড কোয়ালিটি এবং ডিজাইনের দিক থেকে একেবারেই আগের মডেলটির মতো, যদিও আগের তুলনায় কিছু চেঞ্জ ঠিকই থাকছে। শাওমি ব্ল্যাক শার্ক স্মার্টফোনে ছিলো এলসিডি ডিসপ্লে। তবে এবার ব্ল্যাক শার্ক হিলো মডেলটিতে শাওমি ব্যবহার করছে অ্যামোলেড ডিসপ্লে। আর ভালো ব্যাপারটি হচ্ছে যে, আগের মতো এই হিলো মডেলটিতেও থাকছে না কোন বিরক্তিকর নচ। অ্যামোলেড ডিসপ্লে ব্যবহার করার কারনে এলসিডি ডিসপ্লের তুলনায় ডিপ ব্ল্যাক দেখা যাবে এবং এর ফলে গেমিং এবং ভিউইং এক্সপেরিয়েন্স আরও বেটার হবে বলে আশা করা যায়। যাইহোক, ডিসপ্লেটির সাইজ ৬ ইঞ্চি এবং ডিসপ্লে রেজুলেশন ২১৬০*১০৮০ পিক্সেল যা গেমিং এর জন্য বেশ ভালো একটি প্যানেল।

গেমিং ফোকাসড ফোনের সবথেকে ইম্পরট্যান্ট জিনিসটি হচ্ছে এর হার্ডওয়্যার স্পেসিফিকেশন। এখানেও অন্যান্য ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন এবং হাই এন্ড গেমিং স্মার্টফোনগুলোর মতোই একই হার্ডওয়্যার ব্যবহার করেছে শাওমি। থাকছে কোয়ালকমের সবথেকে পাওয়ারফুল চিপসেট স্ন্যাপড্রাগন ৮৪৫ এবং সাথে থাকছে ৬ জিবি থেকে শুরু করে ১০ জিবি পর্যন্ত র‍্যাম অপশন। থাকছে ১২৮ জিবি অথবা ২৫৬ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। সম্পূর্ণ সিস্টেমটিকে ব্যাকআপ করার জন্য থাকছে ৪০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি যা ফোনটিকে বেশ ভালো ব্যাটারি ব্যাকআপ দিতে পারবে বলে আশা করা যায়। এছাড়াও থাকছে ডুয়াল ফ্রন্ট ফেসিং স্পিকার, তবে খারাপ ব্যাপারটি হচ্ছে, কোন হেডফোন জ্যাক থাকছে না ব্ল্যাক শার্ক হিলো স্মার্টফোনটিতে।

সাধারনত গেমিং স্মার্টফোনগুলোর ক্যামেরা খুব বেশি ইম্প্রেসিভ হয় না। তবে এই ফোনগুলোও ক্যামেরা ফ্রিক ইউজারদের ফোকাস করে তৈরি করা হয় না। যাইহোক, ব্ল্যাক শার্ক হিলো স্মার্টফোনটির রিয়ারে থাকছে ডুয়াল ক্যামেরা সেটাপ, যার একটি ১২ মেগাপিক্সেল সেন্সর এবং আরেকটি ২০ মেগাপিক্সেল সেন্সর এবং এই দুটি সেন্সরের অ্যাপারচার এফ ১.৭৫। এছাড়াও থাকছে ২০ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। এছাড়া শাওমি এবার স্মার্টফোনটির চারদিকে একটি এলইডি স্ট্রিপ অ্যাড করেছে যেটি সফটওয়্যারের সাহায্যে কাস্টোমাইজেবল। এছাড়া এবার ব্ল্যাক শার্ক হিলো স্মার্টফোনের জন্য দুটি ফার্স্ট পার্টি মোবাইল গেমপ্যাডও তৈরি করছে শাওমি।

এই ফোনটি প্রথমত চাইনিজ মার্কেটে রিলিজ করবে শাওমি। তবে আশা করা যায় খুব শীঘ্রই গ্লোবাল মার্কেটে এই স্মার্টফোনটি রিলিজ করবে শাওমি। এই ফোনটির চাইনিজ প্রাইসিং ৩১৯৯ ইউয়ান, যা প্রায় ৪৬১ ইউএস ডলারের সমান।

ওয়্যারবিডি নিউজ

নভেম্বরেই আসতে পারে স্যামসাং এর ফোল্ডেবল স্মার্টফোন!

Previous article

শাওমি রিলিজ করলো মি মিক্স ৩

Next article

You may also like

Comments