টেক নিউজ

স্যামসাং শো অফ করেছে তাদের তৈরি প্রথম ফোল্ডেবল স্মার্টফোন!

0

প্রযুক্তির দুনিয়ায় আরও কয়েক মাস আগে থেকেই স্যামসাং এর ফোল্ডেবল স্মার্টফোনের রিউমর এবং লিকস নিয়ে বেশ হইচই চলছিলো। ফোল্ডেবল স্মার্টফোন রিলিজ করার রিউমরটি স্যামসাং নিজেই শুরু করেছিলো তাদের আপকামিং ডেভেলপার কনফারেন্সের বিষয়ে করা একটি টুইটের মাধ্যমে। স্যামসাং তাদের এই আপকামিং ডেভেলপার কনফারেন্সের টুইটটির মাধ্যমে তারা যে একটি ফোল্ডেবল স্মার্টফোন নিয়ে কাজ করছে, তারই একটি ছোট টিজার দিয়ে দিয়েছিলো। এছাড়া অনেক ট্রাস্টেড রিউমর অনুযায়ী এটাও শোনা গিয়েছিলো যে, স্যামসাং এর এই যুগান্তকারী ফোল্ডেবল স্মার্টফোনটির দেখা মিলতে পারে চলতি বছরের নভেম্বর মাসেই। স্যামসাং নিজেও কিছুটা আশ্বাস দিয়েছিলো যে তারা তাদের এই ডেভেলপার কনফারেন্সে ফিউচারিস্টিক কোন একটি ডিভাইস বা কোন ফিচার বা এই ধরনের ফিউচারিস্টিক প্রোজেক্ট শো অফ করবে।

অবশেষে সব রিউমর এবং সবার অপেক্ষা ও ধারনার অবসান ঘটিয়ে স্যামসাং সত্যিকারেই শো অফ করেছে তাদের তৈরি ফোল্ডেবল স্মার্টফোন। স্যামসাং তাদের ডেভেলপার কনফারেন্সে একটি ডিভাইস শো অফ করেছে যেটিতে তারা ব্যাবহার করেছে তাদের নতুন ডিসপ্লে টেকনোলজি যার নাম “ইনফিনিটি ফ্লেক্স ডিসপ্লে”। এই ডিসপ্লেটি  ফ্লেক্স করা যায় বা ফোল্ড করা যায় বলেই খুব সম্ভবত এমন নাম রেখেছে তারা এই নতুন ডিসপ্লেটির। যে ফোনটি তারা দেখিয়েছে সেটিতে আছে একটি ট্যাবলেট সাইজের ইনফিনিটি ফ্লেক্স ডিসপ্লে, যেটিকে ফোল্ড করে একটি মিডিয়াম সাইজের স্মার্টফোনের মতো করে পকেটে ঢুকিয়ে রাখা সম্ভব।

এছাড়া এই স্ক্রিনটি ফোল্ড করার পরেও ওপরে আরেকটি কভার ডিসপ্লে রাখা হয়েছে যেটি একটি স্মার্টফোনের স্ক্রিনের সাইজের। এছাড়া ট্যাবলেটের মেইন ফোল্ডেবল ডিসপ্লেটি ৭.৩ ইঞ্চির। এই নতুন ডিসপ্লেতে ” “মাল্টি অ্যাক্টিভ উইন্ডো” ফিচারের সাহায্যে একইসাথে তিনটি অ্যাপ ব্যাবহার করা যাবে বলে জানিয়েছে স্যামসাং। এই নতুন ধরনের ইনফিনিটি ডিসপ্লের প্রোডাকশন আর কয়েক মাসের মধ্যেই তারা আরো অনেক বাড়াবে এমন আশ্বাসও দিয়েছে স্যামসাং। তবে এই কনসেপ্ট ডিভাইসটি ছাড়া আর কোন কোন ডিভাইসে ফোল্ডেবল ডিসপ্লে ব্যাবহার করা হবে এবং সেই ডিভাইসগুলো কনজিউমারদের জন্য মার্কেটে আদৌ এভেইলেবল করা হবে কি না সে বিষয়ে স্যামসাং কিছুই জানায়নি।

এছাড়া গুগল নিজেও স্যামসাং এর সাথে কাজ করছে এই ধরনের ফোল্ডেবল ডিসপ্লে অ্যান্ড্রয়েড ওএসে অফিশিয়ালি সাপোর্ট করার জন্য, যাতে আগামী বছরের মধ্যেই স্যামসাং তাদের এই নতুন ইনফিনিটি ফ্লেক্স ডিসপ্লে সম্বলিত স্মার্টফোনগুলো মার্কেটে আনতে পারে এবং ইউজাররা যেন ফ্র্যাগমেন্টেশনের শিকার না হয়। তবে শুধুমাত্র স্যামসাংই যে ফোল্ডেবল স্মার্টফোন নিয়ে কাজ করছে, এমনটা নয়। রিউমর অনুযায়ী জানা যায়, আগামী বছর হুয়াওয়ে (Huawei) তৈরি করতে পারে তাদের ফোল্ডেবল স্মার্টফোন। এছাড়া লেনোভো (Lenovo) এবং শাওমিও (Xiaomi) কাজ করতে পারে এই নতুন ধরনের ডিসপ্লে নিয়ে। তাছাড়া এলজি আরো আগে থেকেই ফোল্ডেবল OLED ডিসপ্লে এবং টিভি নিয়ে কাজ করছে, যেগুলো রোল করে একটি ছোট বক্সের ভেতরেও রাখা যাবে। এছাড়া সফটওয়্যার জায়ান্ট, মাইক্রোসফটেরও পরিকল্পনা আছে ফোল্ডেবল এবং ডুয়াল স্ক্রিন স্মার্টফোন নিয়ে।

ওয়্যারবিডি নিউজ

শাওমি অ্যানাউন্স করেছে তাদের নতুন হেডফোন এয়ারডটস

Previous article

You may also like

Comments