বিজ্ঞানবিজ্ঞান নিউজ

নাসার পার্কার সোলার প্রোব : একদিনে ভাঙল ডাবল রেকর্ড!

0
নাসার পার্কার সোলার প্রোব

নাসার ঐতিহাসিক মিশন “ট্যাচ টু দ্যা সান” এর জন্য পাঠানো নাসার পার্কার সোলার প্রোব একদিনে তৈরি করেছে দুইটি মাইলফলক! — প্রথমত, এটি বর্তমানে মানুষের ইতিহাসে মানুষের পাঠানো সূর্যের সবচাইতে নিকটতম অবজেক্ট এবং দ্বিতীয়ত, এটি মহাকাশে মানুষের পাঠানো সবচাইতে দ্রুতগতিতে পথ অতিক্রম করা একটি স্পেস যান। আগস্ট মাসের ১২ তারিখ ২০১৮ সালে পাঠানো যানটি ইতিমদ্ধেই তার মিশনের প্রথম স্টেজে পৌঁছে গিয়েছে।

সূর্যের সার্ফেস থেকে নাসার পার্কার সোলার প্রোবটি অলরেডি ৪২.৭৩ মিলিয়ন কিলোমিটার দূরত্বের রেকর্ড ব্রেক করেছে এবং সর্বচ্চ স্পীড ৭০ কিলোমিটার/সেকেন্ড ও ব্রেক করতে সক্ষম হয়েছে এই নতুন স্পেস প্রোবটি। আশা করা যাচ্ছে, পার্কার সোলার প্রোবটি ১৯০ কিলোমিটার/সেকেন্ড স্পীড পর্যন্ত গমন করতে সক্ষম হবে মানে প্রতি ঘন্টায় এর স্পীড হবে ৬৯০,০০০ কিলোমিটার!

নাসার এই নতুন মিশনটি সূর্য কিভাবে কাজ করে তার উপরে আমাদের ধারণাকে আরো বৃদ্ধি করতে সাহায্য করবে। সূর্য প্রত্যেক মুহূর্তে আমাদের পৃথিবীর উপরে হাইলি চার্জড পার্টিকেল ছুড়ে মারছে, আমাদের সক্রিয় ম্যাগনেটিক ফিল্ড থাকার কারণে আমরা ভেজে টোস্ট হয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা পাই। পার্কার এই সোলার উইন্ড গুলোর সম্পর্কে বিজ্ঞানীদের নতুন তথ্য প্রদান করবে এবং এই গুরুত্বপূর্ণ তথ্য গুলো অনেক কাজের হবে, হতে পারে অনেক অজানা কিছু উন্মোচিত হতে পারে।

করোনা (Corona) হচ্ছে প্লাজমার একটি দেহজ্যোতি, যেটা সূর্য এবং আলাদা নক্ষত্রের চারপাশ বেষ্টন করে রয়েছে। এই স্থানটি সূর্যের সার্ফেস থেকেও আশ্চর্য জনকভাবে বেশি গরম। করোনার তাপমাত্রা কয়েক মিলিয়ন ডিগ্রী সেলসিয়াস পর্যন্ত হতে পারে কিন্তু কেন এর তাপমাত্রা এতোবেশি বা কোন ম্যাকানিজমের জন্য এমন হচ্ছে এই উত্তর আমাদের জানা নেই। করোনা জোনে সোলার পারটিকেল ৫০০ কিলোমিটার/সেকেন্ড স্পীডে আঘাত করে। পার্কার সোলার প্রোবের প্রধান কাজ হচ্ছে এই জোন থেকে সোলার পারটিকেল গুলোর সম্পর্কে তথ্য জোগাড় করা।


Image: NASA

তাহমিদ বোরহান
প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? কিছুতেই কি আপনার মস্তিষ্কে পাল্লা পড়ছে না? তাহলে বন্ধু, আপনি এবার সঠিক জায়গায় এসেছেন—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি, যাতে সকলে সহজেই সকল টেক টার্ম গুলো বুঝতে পারে।

সেরা ও অবিশ্বাস্য স্পেস ফটো কালেকশন! [২০১৮]

Previous article

You may also like

Comments