কেন ক্যামেরা থেকে তোলা ফটো গুলো সর্বদা DCIM ফোল্ডারে স্টোরড হয়?

আপনার ডিজিটাল ক্যামেরা ব্যবহার করার সময় আপনি যদি একটু লক্ষ্য করে দেখেন যে; আপনার ডিভাইসটি দিয়ে তোলা ছবিটি আসলে কোন লোকেশনে সেভ হচ্ছে ; তাহলে দেখতে পাবেন যে এটি DCIM নামক একটি ফোল্ডারে সেভ হচ্ছে। ডিজিটাল ক্যামেরার পাশাপাশি আপনি আপনার হাতের স্মার্টফোনটির ব্যাপারেও একটি জিনিস লক্ষ্য করে থাকবেন; এখানেও স্মার্টফোন দিয়ে তোলা সবগুলো ছবি ফাইল ম্যানেজারের DCIM নামক একটি ফোল্ডারে সেভ হয়ে থাকে।

প্রশ্নটা হলঃ কেন DCIM ফোল্ডার Photos বা Images কেন নয়!

কেবল ডিজিটাল ক্যামেরা এবং স্মার্টফোনই নয় ; বাজেট, সেমি-প্রোফেশনাল এবং প্রোফেশনাল ডিএসএলআর ক্যামেরাতেও আপনি ছবি সেভ করার ক্ষেত্রে DCIM ফোল্ডারকেই খুঁজে পাবেন। ব্যাপারটি আরেকটু আশ্চর্যময় লাগবে যখন আপনি আরও খেয়াল করবেন যে, আপনার ফোনের বিভিন্ন ফটো এডিটিং অ্যাপলিকেশন যেকোন রকম ফটো এডিট করার পর, সেটিকেও DCIM ফোল্ডারে সেভ করে রাখছে।

DCIM ফোল্ডারই কেন ?

DCIM এর পূর্নরূপ দাড়ায় Digital Camera Images ; হমম এবার ফোল্ডারটির আসল মানে বুঝতে পারলাম তাই না? কিন্তু না! ফোল্ডারের নাম DCIM না হয়ে এটি Photos ও হতে পারত ; Images নামের ফোল্ডারও হতে পারত কেনইবা DCIM নাম হল। এখানে যদি Images বা Photos ফোল্ডার হত তবে বুঝতে অনেকটা সুবিধা হত। তবে এখানে DCIM নাম হওয়ার পেছনে একটি কারন আছে। আমরা এখন সেটি সম্পর্কে জানব।

ডিজিটাল ক্যামেরায় এই স্টোরেজ লোকেশনটির নাম ‘Design Rule for Camera System’ নামক ক্যামেরা সিস্টেম স্ট্রাকচার বা স্পেসিফিকেশন এর কারনে হয়ে থাকে। DCF এর পূর্নরূপ হলো Design Rule for Camera File System। এই DCF হলো ডিজিটাল ক্যামেরা গুলোর জন্য একটি ফাইল ফরম্যাট সিস্টেম। একটি ফিজিক্যাল ডিজিটাল ক্যামেরা সেন্সর একটি ফাইল সিস্টেমকে ব্যবহার করে ডাইরেক্টরি স্ট্রাকচার,ফাইল নেমিং মেথড,ক্যারেক্টার সেট,ফাইল ফর্ম্যাট এবং মেটাডাটা ফর্ম্যাট ইত্যাদি সেট করে থাকে।

DCF হলো একটি স্ট্যান্ডার্ড ক্যামেরা ফাইল সিস্টেম। আর এটি ব্যবহার করেই, ক্যামেরা স্হির চিত্র, গতি চিত্রের সাথে সাউন্ড সোর্স থেকে সাউন্ড সংগ্রহ করে ইমেজ ফাইল এবং ভিডিও ফাইল তৈরি করতে পারে। বর্তমান সময়ে DCF হলো সবচেয়ে ভালো ইন্ডাস্ট্রি স্ট্যান্ডার্ড; যার ফলে বড় বড় ক্যামেরা তৈরিকারকরা ক্যামেরার জন্য এই DCF স্ট্রাকচার/স্পেসিফিকেশন ব্যবহার করেন। DCIM ফোল্ডারটি DCF সিস্টেমেরই একটা অংশ। আপনার ডিভাইসে DCIM ফোল্ডার রয়েছে যার মানে আপনার ডিভাইসের ক্যামেরাও DCF ফাইল সিস্টেমে পরিচালিত হচ্ছে।

যেহেতু DCIM একটি জনপ্রিয় ক্যামেরা স্ট্যান্ডার্ড, আর সবাই এটি ব্যবহার করে। সেকারনে বিভিন্ন সফটওয়্যার ডেভেলপার যারা ক্যামেরা এবং ছবি এডিট সম্পর্কিত প্রোগ্রাম বা অ্যাপলিকেশন তৈরি করে ; তারাও এই DCF স্পেসিফিকেশন এর সাথে মিল রেখে সফটওয়্যার প্রস্তুত করে। আর যার ফলে আমরা অনেক মোবাইল ফটো এডিটর অ্যাপলিকশন এর ক্ষেত্রে দেখি যে, ছবি সবশেষে DCIM ফোল্ডারে জমা হচ্ছে।
মূলত ডিভাইসের ক্যামেরা, স্টোরেজ, ক্যামেরা সম্পর্কিত নানা অ্যাপলিকেশনেরর মাঝে ট্রাফিক হিসেবে কাজ করছে এই DCF। আর মূলত এই DCF এর কারনেই DCIM ফোল্ডার।

আমাদের হাতের মোবাইল ফোনের ক্যামেরা হোক বা অন্য কোন ডিজিটাল ক্যামেরা ; আমাদের তোলা প্রতিটি ছবি আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা কোনো না কোনো কারনে নানা গুরুত্বপূর্ণ চিত্র ক্যামেরায় ধারন করে রাখি। আর সেগুলো সংরক্ষন করে রাখতে চাই। তবে কোনো টেকনিক্যাল কারনে যদি সেই ছবিগুলো আমাদের জন্য আন-এক্সেসেবল হয়ে যায় তবে সেটি আমাদের কাছে খুবই খারাপ লাগে। অনেক ক্ষেত্রে এটি আমাদের জন্য অনেক বেদনানায়কও বটে।

DCIM ফোল্ডার যদি DCIM ফাইলে পরিণত হয়ে যায়?

অনেক ক্ষেত্রে ছবি দেখা অবস্থায় আপনার তোলা ছবি নানানভাবে করাপ্টেড হয়ে যেতে পারে। আপনি হয়ত আপনার ক্যামেরা থেকে এসডি কার্ডটিকে খুলে নিয়ে অন্য কোথাও লাগালেন ; তারপর হয়ত দেখলেন যে,আপনার ছবিগুলো কোনোকারনে করাপ্টেড। এক্ষেত্রে নিচের এই সমস্যাগুলো দেখা যেতে পারেঃ

  • কেবল একটি বা দুটি ছবি দেখা যাচ্ছে,বাকিগুলো দেখা যাচ্ছে না।
  • এসডিকার্ডে কোনো ছবিই নেই।
  • DCIM ফোল্ডার একটি DCIM ফাইলে পরিমত হয়ে গিয়েছে।

প্রথম সমস্যার ক্ষেত্রে, অনেকক্ষেত্রে এটি কার্ডের সমস্যা। এক্ষেত্রে যে ছবিগুলো উদ্ধার করা সম্ভব, তা উদ্ধার করে ; বাকি করাপ্টেড ইমেজগুলির আশা না করাই ভালো। তবে এসডি কার্ড বদলানোর পরেও যদি একই রকম সমস্যা দেখা দেয়, তবে হয়ত আপনার ক্যামেরার সমস্যা। এরকম ক্ষেত্রে আপনার করার কিছুই থাকে না।

দ্বিতীয় সমস্যার ক্ষেত্রে, আপনার ক্যামেরাতে ছবি দেখা গেলেও পরে এসডি কার্ডে তার অস্তিত্ব পাওয়া যায় না। সেক্ষেত্রে হয়ত আপনার ক্যামেরা কখনও সেই ইমেজটি রেকর্ডই করেনি; অথবা ফাইল ফর্ম্যাটের ভেতর কোনোরকম সমস্যা হয়ে গিয়েছে।

তৃতীয় সমস্যার ক্ষেত্রে, এই সমস্যাটি মূলত আজ আমাদের টপিকের সাথে সম্পর্কযুক্ত এবং এটির জন্যই উপরের সমস্যাগুলো উল্লেখ করা। এখানে হয়কি, যে পুরো DCIM ফোল্ডারটিই একটি একক ফাইলে পরিনত হয়ে যায়। তবে এখানে আমাদের ইমেজ বা ছবিসহ অন্যকিছুতে এক্সেস করতে পারা যায় না ঠিকই ; তবে মনে একটা সাহস পাওয়া যায় ; হয়ত উদ্ধার করা যাবে। কেননা সবকিছু একটি ফাইলে পরিনত হয়ে গিয়েচে। আর হ্যাঁ বেশির ভাগ ক্ষেত্রে কোনো কারনে DCIM ফোল্ডারটি ফাইলে পরিনত হয়ে গেলে, তাকে উদ্ধার করা যায়।

এই সমস্যা সমাধান এর ক্ষেত্রে সাধারনত ফাইল সিস্টেম রিকোভারি টুলস ব্যবহার করতে হয়। ২ নং সমস্যা যদি ফাইল সিস্টেম করাপ্টেড এর কারনে হয়ে থাকে ; তাহলেও ফাইল সিস্টেম রিকোভারি টুলস ব্যবহার করে সমাধান করা যায়। তবে DCIM ফোল্ডার থেকে ফাইলে পরিনত হয়ে যাওয়ার সমস্যাটি এ উপায়ে সমাধান করতে হয়।


আশা করি এই আর্টিকেলটি আপনাদের ভালো লেগেছে । আজকের টপিকটি অনেকের মনের একটি প্রশ্ন ছিল; আর আপনি যদি টেক গীক হয়ে থাকেন তাহলে ব্যাপারটা জানাও আপনার জন্য জরুরী ছিল। এখানে এটি কোনো কমপ্লেস বিষয় না, খুবই সাধারন। আবারও, DCIM ফোল্ডারটি DCF এর একটি পার্ট। আর একারনেই এটি ক্যামেরাকে নির্দেশ করে যেকোন কিছু তার রিকোমান্ডেড ফোল্ডারে সেভ করার জন্য, আর সেটি হল DCIM ফোল্ডার।


WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

Featured Image By lzf On Shutterstock