বর্তমান তারিখ:22 July, 2019

পুরাতন মোবাইল বিক্রি করার আগে অবশ্যই দেখুন

পুরাতন মোবাইল

পুরাতন মোবাইল বিক্রি করার আগে আপনি যদি মনে করেন যে শুধুমাত্র ফ্যাক্টরি রিসেট করলেই আপনার সব ব্যক্তিগত ডাটা মুছে যায়। এবং আপনি যার কাছে ফোনটি বিক্রি করবেন সে আপনার কোনো ডাটার অপব্যবহার করতে পারবেনা, তবে আপনি নিশ্চয় ভুল ভাবছেন। আপনি যদি আপনার পুরাতন মোবাইল টি বিক্রি করার কথা ভেবে থাকেন কিংবা আপনার পুরাতন ফোনটি কাওকে দিয়ে দেওয়ার কথা ভাবেন, তবে জেনে নিন আপনি কীভাবে আপনার সকল ব্যক্তিগত ডাটা মুছে ফেলবেন। জেনে নিন আপনাকে কি কি পদক্ষেপ গ্রহন করতে হবে যাতে আপনার ব্যক্তিগত ডাটা গুলোর কোনো অপব্যবহার না হয়।

পুরাতন মোবাইল

পুরাতন মোবাইল বিক্রি করার আগে কিছু পদক্ষেপঃ

আমরা যখন আমাদের পুরাতন মোবাইল ফোনটি বিক্রি করতে চাই, সেটা আমাদের বন্ধুর কাছেই হোক আর প্রতিবেশীর কাছেই হোক অথবা ইন্টারনেট এর মাধ্যমেই হোক, বিক্রি করার আগে আমরা শুধু মাত্র ফোনটির সেটিংস্‌ থেকে ফ্যাক্টরি রিসেট করেই ফোনটিকে বিক্রি করে দেই। আর ভেবে নেয় যে আমাদের সকল ব্যক্তিগত ডাটা ফোনটি থেকে মুছে গেছে এবং আমরা এখন সুরক্ষিত। এমনকি পেনড্রাইভ বা মেমোরি কার্ড শুধুমাত্র ফরম্যাট করে যে কাওকে ব্যবহার করার জন্য দিয়ে থাকি। আপনি মনে করতে পারেন যে আমি এই একই কথা বার বার কেনো জিকির করছি। আসলে এই বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। হাঁ, প্রযুক্তি আমাদের অনেক কিছু দিয়েছে। সকালের টুতপেস্ট থেকে শুরু করে রাতের টিভি পর্যন্ত সবকিছুই কিন্তু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির দান। কিন্তু এই প্রযুক্তি সঠিক ভাবে ব্যবহার না করা হলে আপনার জন্য অভিশাপ হয়ে দ্বারাতে পারে। আজকাল দেখা যায় যে, কার ব্যক্তিগত ডাটা কীভাবে অনলাইন এ প্রকাশ হচ্ছে। আপনার ব্যক্তিগত ছবি, ব্যক্তিগত ভিডিও, ব্যক্তিগত মোবাইল নাম্বার কে, কীভাবে, এবং কোথায় অপব্যবহার করবে আপনি তার ধারনাও করতে পারবেন না। তাই অবহেলা করলে একদম চলবে না, আপনাকে অবশ্যই সতর্ক থাকতে হবে। আপনি যখন আপনার পুরাতন মোবাইল ফোনটি বিক্রি করবেন বা কারো সাথে পরিবর্তন করবেন কিংবা যখন আপনি আপনার পেনড্রাইভ বা মেমোরি কার্ড কাওকে দেবেন তখন আমার আজকের শেখানো পদক্ষেপ গুলো ব্যবহার করবেন। তাহলে আপনার সকল ব্যক্তিগত ডাটা গুলো নিরাপদ থাকবে এবং আপনি নিশ্চিন্ত থাকতে পারবেন। তো চলুন এবার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গুলো জেনে নেওয়া যাক।

পুরাতন মোবাইল

আমরা যখন ফোন থেকে কোনো ফাইল ডিলিট করি বা ফ্যাক্টরি রিসেট করি বা মেমোরি কার্ড ফরম্যাট করি, আসলে আমাদের ডিলিটকৃত বা মুছে ফেলা ফাইল গুলো মুছে যায় না। সেগুলো তখনও আপনার ফোন বা মেমোরি কার্ড এ থেকেই গিয়ে শুধু আপনাকে তা দেখায় না। সে ফাইল গুলো তখনই ডিলিট হয় যখন আপনি নতুন করে আপনার ফোন এ বা মেমোরি কার্ড এ ফাইল স্টোর করেন। আর এই ডিলিট না হওয়া ফাইল গুলো যেকোনো সাধারন ফাইল রিকভার সফটওয়্যার দিয়ে ফিরিয়ে নিয়ে আসা সম্ভব। আপনি আপনার ফোনকে যদি ফ্যাক্টরি রিসেট ও করে দেন তবে এরকম অনেক অ্যাপ আছে প্লে স্টোর এ যার মাধ্যমে আপনার সকল পূর্বের ডাটা যেমনঃ ছবি, ভিডিও, কন্টাক্ট নাম্বার, ম্যাসেজ ইত্যাদি ফিরে পাওয়া সম্ভব। বুঝতেই তো পারছেন যে এটা কতটা ঝুঁকিপূর্ণ। এ থেকে রক্ষা পাবার জন্য, ফোন এর কিছু আলাদা পদক্ষেপ আছে এবং পেনড্রাইভ বা মেমোরি কার্ড এর জন্য কিছু আলাদা পদক্ষেপ আছে। আমি এখন এক এক করে সব আলোচনা করছি।

পেনড্রাইভ বা মেমোরি কার্ড থেকে সুরক্ষিত ভাবে ব্যক্তিগত ডাটা মুছে ফেলার উপায়ঃ

পেনড্রাইভ বা মেমোরি কার্ড থেকে সুরক্ষিত ভাবে ব্যক্তিগত ডাটা মুছে ফেলার উপায়

  • প্রথমে আপনার পেনড্রাইভ বা মেমোরি কার্ডটি সাধারন ভাবে ফরম্যাট করুন। সাধারন ফরম্যাট করা বলতে আমরা যেভাবে ফরম্যাট করে থাকি। আপনার পেনড্রাইভ বা মেমোরি কার্ডটি কম্পিউটার এ প্রবেশ করান। বা মেমোরি কার্ডটি সাধারন ভাবে মোবাইল এ প্রবেশ করান। এবার ফরম্যাট অপশন থেকে কম্পিউটার বা মোবাইল দিয়ে আপনার পেনড্রাইভ বা মেমোরি কার্ডটি ফরম্যাট করুন।
  • এবার আপনার ফরম্যাট করা পেনড্রাইভ বা মেমোরি কার্ডটিতে আবার ডাটা দ্বারা পূর্ণ করুন। মনে করুন আপনার পেনড্রাইভ বা মেমোরি কার্ডটি ১৬ জিবি, তাহলে এতে ১৬ জিবি পরিমানে যেকোনো ডাটা প্রবেশ করান। যেকোনো ডাটা বলতে মুভিজ বা অপ্রয়োজনীয় ফাইল প্রবেশ করিয়ে আপনার পেনড্রাইভ বা মেমোরি কার্ডটিকে পরিপূর্ণ করুন।
  • এবং আবার আপনার পেনড্রাইভ বা মেমোরি কার্ডটিকে ফরম্যাট করুন। আপনি যদি মোবাইল দিয়ে ফরম্যাট করে থাকেন তবে বিশেষ কোনো সেটিংস্‌ ঠিক করার দরকার নাই। আর আপনি যদি কম্পিউটার দিয়ে ফরম্যাট করে থাকেন তবে ফরম্যাট করার সময় Quick Format অপশনটি আনমার্ক করে ফরম্যাট করুন।

নোটঃ এইভাবে কাজ করার ফলে আপনার ব্যক্তিগত যে ডাটা গুলো ছিল তা শিকর থেকে মুছে যাবে। এবং কেউ যদি রিকভার করার চেষ্টা করে তবে সে মুভি বা অপ্রয়োজনীয় ডাটাগুলো ফেরত পাবে, যেগুলো আপনার কোনো কাজের না। এই কাজ এর জন্য বিভিন্ন সফটওয়্যার ও পাওয়া যায়, কিন্তু ম্যানুয়ালি করাকে বেশি পছন্দ করি। এবং আপনাকেও করতে বলবো।

পুরাতন মোবাইল থেকে সুরক্ষিত ভাবে ব্যক্তিগত ডাটা মুছে ফেলার উপায়ঃ

পুরাতন মোবাইল থেকে সুরক্ষিত ভাবে ব্যক্তিগত ডাটা মুছে ফেলার উপায়

  • এখন মোবাইল ফোন এর ক্ষেত্রে প্রথমে মোবাইল ফোনটিকে সাধারন ভাবে ফ্যাক্টরি রিসেট করে নিন। ফ্যাক্টরি রিসেট অপশনটি প্রায় সকল ফোন এর সেটিংস্‌ এর ভেতর পাওয়া যায়।
  • আপনার মোবাইল ফোনটি প্রথমবার সাধারন ভাবে ফ্যাক্টরি রিসেট করার পরে এতে অপ্রয়োজনীয় ডাটা দিয়ে পরিপূর্ণ করবেন। অপ্রয়োজনীয় ডাটা বলতে যে ডাটা আপনার কাজের না। সেটা কতিপয় মুভি বা বড় কোনো ফাইল হতে পারে। আপনার ফোন এর মেমোরি যদি ৮ জিবি বা ১৬ জিবি হয় তবে সমপরিমান অপ্রয়োজনীয় ডাটা দিয়ে পরিপূর্ণ করবেন।
  • এখন তৃতীয় পর্যায়ে, আপনি যদি নতুন ভার্সন এর Android ব্যবহার করে থাকেন, যেমনঃ ললিপপ বা মার্সম্যালো হয় তবে সেটিংস্‌ এর ভেতর Encryption নামে একটি অপশন দেখতে পাবেন। সেখান থেকে Encryption টি চালু করবেন। এখন আবার বলি। প্রথমে আপনার ফোনটিকে সাধারন ফ্যাক্টরি রিসেট করে নিন। তারপর ফ্যাক্টরি রিসেট হওয়ার পরে ফোনটি যখন অন হবে তখন আপনি সব অপশন গুলো স্কিপ করে দিন। যেমন আপনার কাছে জিমেইল আইডি ইত্যাদি চাইবে। এবার এতে অপ্রয়োজনীয় ডাটা দিয়ে পরিপূর্ণ করবেন তারপর Encryption চালু করবেন এবং আপনার ফোনটিকে দ্বিতীয় বার ফ্যাক্টরি রিসেট করুন।
  • আপনার ফোন এ যদি Encryption অপশনটি নাও থাকে, তবুও আপনাকে কমপক্ষে ২ টি স্টেপ অনুসরন করতে হবে।প্রথমে সাধারন ফ্যাক্টরি রিসেট তারপর অপ্রয়োজনীয় ডাটা বা জাঙ্ক ফাইলস দিয়ে ফোনটি পরিপূর্ণ করা এবং শেষে ফোনটিকে আবার রিসেট করা।

আরো পোস্ট আছে যা আপনার ভালো লাগতে পারেঃ

নোটঃ এই ধাপ গুলো অনুসরন করাতে প্রথমে আপনার যে ব্যক্তিগত ডাটা গুলো ছিল তা তো ডিলিট হয়েই গেল এবং পরে আপনি জাঙ্ক ফাইলস ভরে Encryption করে আবার ফ্যাক্টরি রিসেট করাতে আপনার ব্যক্তিগত ডাটা গুলো আর কেও কখনও ফিরে পাবে না।

শেষ কথাঃ

স্মার্টফোন এখন নিত্য জিবনের সঙ্গী হয়ে দাঁড়িয়েছে। একটি ফোন এ আমাদের জিবনের প্রায় সব কিছুই বন্দি থাকে। কিন্তু সেটি ভুল হাত এ চলে গেলে অনেক বড় মাশুল গুনতে হতে পারে। আপনারা তো জানেন ই যে কতো না ভাবে আজ কাল মানুসের ব্যক্তিগত ডাটা গুলো ছড়িয়ে পড়ছে অনলাইন বা এমএমএস এর মাধ্যমে। অনেক সময় আমাদের ফোন হারিয়ে যায়, কখনও চুরি হয়ে যায়। কখনও আবার আমরা ভুল করে মোবাইল Repair করতে গিয়ে মেমোরি কার্ড দিয়ে চলে আসি। এভাবে প্রতিনিয়ত অনেক ঝামেলায় পড়ছে অনেকে। আমার আজকের এই পোস্টটি করার এক মাত্র কারন যাতে আপনারা অজান্তে এমন ভুল করে না বসেন। আপনি পুরাতন মোবাইল টিকে শুধু ফ্যাক্টরি রিসেট করে বিক্রি করে দিলেন, আর ভাবলেন যে আপনার সব ডাটা মুছে গেছে। আশা করি আজকের পর থেকে এই ভুলটি আর হবে না।

আপনি তো বিষয়টি জানলেন, কিন্তু আপনার বন্ধুর কি হবে? তাই এই পোস্টটি নিচের শেয়ার বাটন থেকে শেয়ার করে সকল বন্ধুদের জানিয়ে দিন। আপনারা ভালো থাকুন এবং নিরাপদ থাকুন। এরকম আরো টিপস পেতে আমাদের সাইট নিয়মিত ভিসিট করুন। আমি প্রতিদিন আপনাদের জন্য নতুন নতুন টেক টিপস, নিরাপত্তা টিপস নিয়ে হাজির হই। তাই নিয়মিত ভিসিট করার অবশ্যই মূল্য রাখে। তাছাড়া এই সাইটে ইতিমধ্যে অনেক পোস্ট আছে, আপনি চাইলে পড়তে পারেন।


WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

ইংরেজি টেক ব্লগ

প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? কিছুতেই কি আপনার মস্তিষ্কে পাল্লা পড়ছে না? তাহলে বন্ধু, আপনি এবার সঠিক জায়গায় এসেছেন—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি, যাতে সকলে সহজেই সকল টেক টার্ম গুলো বুঝতে পারে।

9 Comments

  1. হামিদ মাসুদ Reply

    অসাধারণ লিখেছেন ভাই। আমি আজ ই আপনার ব্লগ খুজে পেলাম। এক কথায় মুগ্ধ হয়ে গেছি। এই রকম মান সম্পূর্ণ পোস্ট বাংলা ব্লগ এ থাকতে পারে আমার যানা ছিল না। চালিয়ে জান। আচি আপনার সাথে।

    1. তাহমিদ বোরহান Post author Reply

      রিপ্লাই করতে দেরি করার জন্য মাফ চাচ্ছি। আপনার অসাধারন মন্তব্বের জন্য আপনার কাছে কৃতজ্ঞ। আশা করি নিয়মিত ভিসিট করবেন।

  2. HR Reply

    বরাবর এর মতই অসাধারণ।

    মোবাইল এ মেইল দেয়ার ক্ষেত্রে এমন একটা মেইল ব্যাবহার করার প্রয়োজন যাতে করে সেটা শুধু মোবাইল এ ব্যাবহার করার জন্য ব্যাবহার করার জন্য হয়। মোবাইল বিক্রি করার পর সেই মেইল নতুন মোবাইল এ সেট করে ফেললে যে মোবাইল টি বিক্রি করা হয়েছে তাতে অনাকাঙ্ক্ষিত কিছু করতে চাইলে তা ততনগদ জেনে নেয়া যায়। এপস ইনফরমেশন এর নিরাপত্তার ক্ষেত্রে এটা প্রযোজ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *