বর্তমান তারিখ:24 August, 2019

অ্যাপাচি ওয়েব সার্ভার কি? পৃথিবীতে অর্ধেকের বেশি ওয়েব সার্ভার যার উপর নির্ভরশীল!

অ্যাপাচি ওয়েব সার্ভার

ইন্টারনেটের এক বিশাল অংশজুড়ে রয়েছে এই ওয়েব, আর এখানে রয়েছে লাখো কোটি ওয়েবসাইট। অনেকের মতে তো ওয়েব মানেই ইন্টারনেট, যদিও ওয়েব আর ইন্টারনেট এক জিনিষ নয়। যাই হোক, যখন আপনি ওয়্যারবিডি বা যেকোনো ওয়েবসাইট অ্যাড্রেস আপনার ব্রাউজারে প্রবেশ করিয়ে ওয়েব সাইটটি ভিজিট করার জন্য রিকোয়েস্ট করেন, রিকোয়েস্টটি ওয়েব সার্ভারের কাছে গিয়ে পৌছায়, আর ওয়েব সার্ভার আপনার জন্য পেজটি জেনারেট করে তারপরে আপনার পর্যন্ত পৌছিয়ে দেয়। ওয়েব সার্ভার কি — এই আর্টিকেলে আমি স্পষ্ট আলোচনা করে বলেছি যে, ওয়েব সার্ভার আসলে একটি সফটওয়্যার, কোন কম্পিউটারে যখন বিশেষ ওয়েব সার্ভার সফটওয়্যার ইন্সটল থাকবে, তখন সেটি ওয়েবপেজ সার্ভ করার ক্ষমতা অর্জন করবে। অ্যাপাচি ওয়েব সার্ভার (Apache Web Server) বা অ্যাপাচি এইচটিটিপি সার্ভার (Apache HTTP Server) হলো একটি সার্ভার প্রোগ্রাম যেটি এইচটিটিপি প্রোটোকল ব্যাবহার করে ওয়েব পেজ সার্ভ করার কাজে ব্যবহৃত হয়।

আরো অনেক ওয়েব সার্ভার সফটওয়্যার রয়েছে, কিন্তু অ্যাপাচি সবচাইতে বেশি জনপ্রিয়, আর আপনাদের প্রিয় ওয়্যারবিডি ও অ্যাপাচি সার্ভারই ব্যবহার করে। যাই হোক, এই আর্টিকেলে আমি অ্যাপাচি সার্ভার নিয়ে কিছু আলোচনা করেছি, এখান থেকে আপনি জানতে পাড়বেন, অ্যাপাচি সার্ভার কি, কেন এটি এতো জনপ্রিয়।

ওয়েব সার্ভার

অ্যাপাচি ওয়েব সার্ভার বা যেকোনো ওয়েব সার্ভার সফটওয়্যার সম্পর্কে জানার আগে অবশ্যই জানা প্রয়োজনীয় যে, ওয়েব সার্ভার কি, এ নিয়ে ডেডিকেটেড আর্টিকেলটি এখান থেকে পড়ে নিতে পারেন। যে রিমোট কম্পিউটার গুলো মূলত ক্ল্যায়েন্ট কম্পিউটার গুলোকে রিকয়েস্টেড ফাইল সার্ভ করতে পারে, তাকেই সার্ভার কম্পিউটার বলে। সহজভাবে বলতে, আপনার বা আমার কম্পিউটার গুলো হচ্ছে ক্লায়েন্ট কম্পিউটার, মানে এই কম্পিউটার গুলো থেকে রিকোয়েস্ট পাঠানো হয়। যে কম্পিউটার গুলো আমাদের কম্পিউটারের রিকোয়েস্ট গ্রহন করে এবং রিকয়েস্টেড ফাইল সেন্ড করে, সেই কম্পিউটার গুলোকে সার্ভার কম্পিউটার বলে। ইন্টারনেট কি, এই আর্টিকেল থেকে আপনি সার্ভার এবং ক্লায়েন্ট কম্পিউটার সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে পাড়বেন।

তাহলে ওয়েব সার্ভার কি? এক কথায়, ওয়েব সার্ভার হচ্ছে কোন কম্পিউটারের মধ্যে এমন একটি পরিবেশ যেটি যেকোনো ওয়েব সাইট রান করানোর জন্য বিশেষভাবে প্রস্তুত। এইচটিটিপি সার্ভার হচ্ছে সেই টাইপের ওয়েব সার্ভার যেটি এইচটিটিপি প্রোটোকলের উপর ওয়েবপেজ সার্ভ করে। উদাহরণ সরূপ, আপনি যখন ব্রাউজারে ওয়্যারবিডি ভিজিট করার জন্য অ্যাড্রেস এন্টার করেছেন, আপনার কম্পিউটার ওয়্যারবিডি সার্ভারের সাথে যোগাযোগ করার জন্য এইচটিটিপি প্রোটোকলে রিকোয়েস্ট সেন্ড করেছে, আর এইচটিটিপি সার্ভার আপনার জন্য পেজ জেনারেট করে আপনাকে সেন্ড করে দিয়েছে, যার জন্য আপনি এই পেজটি দেখতে পাচ্ছেন।

অ্যাপাচি ওয়েব সার্ভার কি?

তো এতক্ষণের আলোচনায় নিশ্চয় বুঝে গেছেন, অ্যাপাচি হচ্ছে মূলত একটি ওয়েব সার্ভার সফটওয়্যার — যেটি অ্যাপাচি সফটওয়্যার ফাউন্ডেসন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত এবং এটি একটি ফ্রী সফটওয়্যার সাথে ওপেন সোর্স সফটওয়্যার। অ্যাপাচি ছাড়াও অনেক সার্ভার সফটওয়্যার রয়েছে, যেমন- এইচএফএস, ফাইলজিলা, এঞ্জিনএক্স, বা লাইট এইচটিটিপি, কিন্তু অ্যাপাচি সকলের মধ্যে সর্বাধিক জনপ্রিয়। পৃথিবীর প্রায় ৬৭% ওয়েব সার্ভার অ্যাপাচির উপর রান করে।

এখন প্রশ্ন হচ্ছে, অ্যাপাচি ওয়েব সার্ভার কেন এতো জনপ্রিয়? আসলে অ্যাপাচি ব্যবহার করার অনেক সুবিধা রয়েছে। প্রথম কারণটি হচ্ছে, এটি সম্পূর্ণ ফ্রী সফটওয়্যার, সাথে ওপেন সোর্স, মানে আপনি পার্সোনাল বা কমার্শিয়াল, যেভাবেই ব্যবহার করুণ না কেন আপনাকেও একটি টাকাও দিতে হবে না। সাথে এর সোর্স কোড উন্মুক্ত থাকায়, আপনি ইচ্ছা মতো কাস্টমাইজেশন বা ডেভেলপমেন্ট করতে পাড়বেন। অনেক ফ্রী সফটওয়্যার গুলোতে কিন্তু রিচ ফিচার থাকে না, কিন্তু অ্যাপাচি সফটওয়্যারটি সম্পূর্ণই আলাদা, এটি একেবারে সম্পূর্ণ একটি সফটওয়্যার, যেটাকে সকল পুরনাজ্ঞ ফিচার রয়েছে। তার উপর বড় কথা হচ্ছে, এটি সফটওয়্যারটি তৈরির পর থেকেই ডেভেলপাররা নিয়মিত আপডেট প্রকাশ করে আসছেন, সাথে সিকিউরিটি প্যাচ আর নতুন ফিচারও যুক্ত করা হয় প্রতিনিয়ত।

সাথে অ্যাপাচি সার্ভার মডিউল সমর্থন করে, মানে আপনি আলাদা মডিউল ইন্সটল করে এই ফাংশন বৃদ্ধি করতে পাড়বেন, এতে সম্পূর্ণ সার্ভার সফটওয়্যারটি রি-প্রোগ্রাম করার প্রয়োজন পড়বে না। যেমন ধরুন আপনি আলাদা সিকিউরিটি ফিচার অ্যাড করতে চান কিংবা এরর ম্যাসেজ এডিট করতে চান, সহজেই করতে পাড়বেন। এর আরেকটি বড় সুবিধা হচ্ছে, একটি অ্যাপাচি সার্ভার ভার্চুয়াল এনভার্নমেন্টে একসাথে অনেক গুলো ওয়েবসাইট হ্যান্ডেল করতে পারে, মানে আপনি একটি সার্ভারে বহু ওয়েবসাইট হোস্ট করতে পাড়বেন। এটি এসএসএল, সিজিআই, ভার্চুয়াল ডোমেইন, টিএলএস, এবং ওয়েব পেজ পারফর্মেন্স বাড়ানোর জন্য GZIP কমপ্রেশন ম্যাথড ব্যবহার করে।

এর আরো কিছু উল্লেখ্যযোগ্য ফিচার গুলো হচ্ছে;

  • আইপিভি৬ (IPV6)
  • এক্সএলএল (XML)
  • এফটিপি (FTP)
  • পার্ল, লুয়া, এবং পিএইচপি (Perl, Lua, and PHP)
  • ব্যান্ডউইথ থ্রোটলিং (Bandwidth throttling)
  • ওয়েব ডিএভি (WebDAV)
  • লোড ব্যালেন্সিং (Load balancing)
  • এইচটিটিপি/২ (HTTP/2)
  • ডট এইচটি অ্যাক্সেস (.htaccess)
  • মাল্টিপল রিকোয়েস্ট প্রসেসিং মোড (Multiple Request Processing modes (MPMs)
  • ইউআরএল রি-রাইটিং (URL rewriting)
  • সেশন ট্র্যাকিং (Session tracking)
  • আইপি অ্যাড্রেস থেকে জিওলোকেশন সিস্টেম (Geolocation based on IP address)

তো বুঝতেই পাড়ছেন, কেন এটি এতো জনপ্রিয় একটি ওয়েব সার্ভার সফটওয়্যার। হ্যাঁ, আরেকটি বিশাল সুবিধার কথা তো বলতে ভুলেই গেছিলাম, যেহেতু দুনিয়ার অর্ধেকেরও বেশি ওয়েব সার্ভারে অ্যাপাচি ওয়েব সাভার সফটওয়্যার ব্যবহৃত হয়, তাই এর সাপোর্ট কমিউনিটিও বিশাল বড়। আপনি যেকোনো সমস্যা নিয়ে গুগল সার্চ করেই সমাধান পেয়ে যাবেন। আমি শুধু গুগল সার্চ করে ৯০% সময় অ্যাপাচি নিয়ে সমস্যার সমাধান পেয়েছি।


অ্যাপাচি সার্ভারের ওভারভিউ নিয়ে আর তেমন বেশি কিছু বলার নেই। এক কথায় বলতে, এই সফটওয়্যারে আপনি সমস্ত ফিচার পেয়ে যাবেন, যেগুলো আপনার জন্য দরকার। অ্যাপাচি সার্ভার সম্পর্কে আরো জানতে বা যেকোনো রিলিজ নিউজ পেতে অ্যাপাচি অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন। সাথে আপনার যেকোনো প্রশ্নে আমাকে নিচে কমেন্ট করতে পারেন।


WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

ইমেজ ক্রেডিটঃ By hywards Via Shutterstock

প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? কিছুতেই কি আপনার মস্তিষ্কে পাল্লা পড়ছে না? তাহলে বন্ধু, আপনি এবার সঠিক জায়গায় এসেছেন—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি, যাতে সকলে সহজেই সকল টেক টার্ম গুলো বুঝতে পারে।

9 Comments

  1. Md. Anwar Hossain Reply

    আস্সালামু আলাইকুম। প্রযুক্তির এমন সহজবোধ্য ও প্রাণবন্ত আলোচনার জন্য আপনাদেরকে অসংখ্য ধন্যবাদ। তার সাথে একটি দুঃখ, যদি আপনাদের বানানের ভুলগুলো আরো কমিয়ে আনতে পারতেন। তাহলে আরো ভালো লাগতো। ধন্যবাদ। সবাইকে নিয়ে ভালো থাকুন।

    1. তাহমিদ বোরহান Post author Reply

      মূল্যবান মতামত প্রকাশের জন্য ধন্যবাদ 🙂
      আসলে আমাদের অনেক কাজ করতে হয়, তাই সময়ের খুব অভাব হয়ে উঠে। আর্টিকেল লেখার পরে আবার এডিট করার জন্য খুব একটা সময় হাতে থাকে না। বানানের ভুল ব্যাপাররা ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন আশা করছি। আসলে আমরা অভ্র ব্যবহার করে লিখি, আর অভ্রতে এমনই বানানের বারোটা বেজে যায়। সময়ের সাথে আরো পারফেক্ট হওয়ার চেষ্টা করবো।

      ~ধন্যবাদ 🙂

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *