৫টি বেস্ট রিমোট ডেক্সটপ টুল ২০১৮ | টিম ভিউয়ার কেবল একমাত্র নয়!

আমাদের মডার্ন লাইফে, কম্পিউটার এমন একটি ইলেকট্রনিক ডিভাইজ যেটা ছাড়া মডার্ন টেক কল্পনা করারও ক্ষমতা নেই। সত্যি বলতে আজ এরকম কাউকে খুঁজে পাওয়া একেবারেই মুশকিল নয়, যার প্রতিনিয়ত ১০ ঘন্টারও বেশি সময় কম্পিউটারের সাথে কাটে। কিন্তু হঠাৎ করে আপনার কম্পিউটারে কোন গণ্ডগোল দেখা দিলে কি ঘটবে? —অবশ্যই সেটা কোন দুঃস্বপ্নের চেয়ে কম কোন ব্যাপার হবে না। আগের দিনে কম্পিউটার নষ্ট হয়ে গেলে বা কাজ না করলে লোকাল সার্ভিস সেন্টারে নিয়ে যাওয়া আবশ্যক ছিল। কিন্তু বর্তমানে থ্যাংকস টু ইন্টারনেট—আপনার ঘরে বসেই কম্পিউটারের যেকোনো সমস্যার সমাধান রিমোট ভাবে করা সম্ভব। কম্পিউটারের সমস্যা সমাধান করাতে কার পেছনে ফিজিক্যালি মেশিনটা হাতে নিয়ে ছুটে বেড়বেন? এর চেয়ে এটাই বেস্ট নয় কি, কোন এক্সপার্ট দূর থেকে আপনার কম্পিউটার নিয়ন্ত্রন করে আপনার সকল সমস্যা গুলো হাল করে দিল! অথবা, আপনারই প্রিয়জনের কম্পিউটারের সমস্যা হয়েছে, আপনি কিভাবে রিমোটলি সেটাকে ফিক্স করে দেবেন? এই আর্টিকেলে ৫টি বেস্ট রিমোট ডেক্সটপ টুল নিয়ে আলোচনা করা হলো, যেগুলোর মাধ্যমে অনলাইনে সহজেই যেকোনো কম্পিউটার নিয়ন্ত্রন করতে পাড়বেন।

রিমোট ডেক্সটপ টুল কি?

যদি আপনি একজন গীক হয়ে থাকেন, তো রিমোট অ্যাক্সেস সফটওয়্যার বা রিমোট ডেক্সটপ টুল কি—সেটার সূচনা আপনাকে দেওয়ার প্রয়োজন পড়বে না। কিন্তু আপনি যদি না জানেন, রিমোট অ্যাক্সেস সফটওয়্যার কি—এটি এমন ধরণের একটি সফটওয়্যার যেটি এক কম্পিউটার হতে আরেক কম্পিউটার নিয়ন্ত্রন করার ক্ষমতা প্রদান করে। নিয়ন্ত্রন বলতে কি—আপনি কোন কম্পিউটারের সাথে কানেক্টেড হয়ে সেটা নিজের কম্পিউটারের মতো ব্যবহার করতে পারবেন, মানে মাউস, কীবোর্ড সহ যা ইচ্ছা তা করতে পারবেন, মনে হবে আপনি ঐ কম্পিউটারটির সামনে বসে রয়েছেন।

প্রথমে আপনার কম্পিউটারে একটি সফটওয়্যার ইন্সটল করতে হবে আর যার কম্পিউটারটি আপনি নিয়ন্ত্রন করতে চান, সেখানেও একই সফটওয়্যারটি ইন্সটল থাকতে হবে। এখানে আপনার কম্পিউটারটিকে “ক্লায়েন্ট” বলা হবে এবং যার সাথে কানেক্ট হবেন, সেই কম্পিউটারটিকে “হোস্ট” বলা হবে। এবার প্রয়োজনীয় হবে সঠিক ক্রেডেনশিয়াল (ইউজার নেম এবং পাসওয়ার্ড)—তারপরে হোস্ট থেকে ক্লায়েন্ট কানেক্ট করা সম্ভব হবে এবং রিমোট অ্যাক্সেস পাওয়া যাবে।

অনলাইন সার্চ করলে আপনি অগুনতি এরকম সফটওয়্যার লিস্ট পেয়ে যাবেন। কিন্তু এখানে আমি আপনাকে বেস্ট কিছু সফটওয়্যার প্রদান করতে চলেছি, যাতে আপনার চাহিদা অনুসারে সেগুলো আপনার সঠিক কাজে লাগতে পারে এবং আপনার মূল্যবান সময় বেঁচে যায়। তবে এখানে একটি কথা বলে রাখছি, আপনার উইন্ডোজ কম্পিউটারেই কিন্তু একটি বিল্ডইন রিমোট অ্যাক্সেস টুল থাকে, যদিও আমি এই লিস্টে একে যোগ করবো না, কিন্তু আপনি চাইলে সেটাও ট্রায় করে দেখতে পারেন।

টিম ভিউয়ার

আমি জানি, যারা এখনো রিমোট অ্যাক্সেস শব্দের অর্থ বোঝেনি, টিম ভিউয়ার (TeamViewer) নামটি শোনার সাথে সাথেই সম্পূর্ণ বিষয়টি পানির মতো পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে। হ্যাঁ, এটি নিঃসন্দেহে ব্যাপক জনপ্রিয় একটি রিমোট অ্যাক্সেস টুল। শুধু এটা আমার নয়, অনেক টেক গীকের প্রথম পছন্দের একটি টুল। এর সবচাইতে বড় সুবিধাটি হচ্ছে, এর ঝামেলা বিহীন এবং পানির মতো সহজ ব্যবহার। এই সফটওয়্যারটি লাইটওয়েট এবং ইন্সটল করার সময় কোন অ্যাডমিনিস্ট্রেটর পারমিশন প্রয়োজনীয় হয় না। সাথে আপনাকে কোন আলাদা কনফিগারও ঠিক করার প্রয়োজন পড়বে না। সফটওয়্যারটি ইন্সটল করে ওপেন করার সাথে সাথেই সেশন আইডি এবং পাসওয়ার্ড প্রদান করবে, আর এই আইডি এবং পাসওয়ার্ড ক্লায়েন্ট কম্পিউটারে প্রবেশ করানোর সাথে সাথেই হোস্ট কম্পিউটার কানেক্টেড হয়ে যাবে।

টিম ভিউয়ার

আপনার কম্পিউটার কোন এক্সপার্ট দ্বারা ফিক্স করাতে চান কিন্তু সে আপনার কাছে নেই, এই অবস্থায় এই টুলটি সবচাইতে বেস্ট বলে প্রমানিত হতে পারে। এর আরেকটি মজার ব্যাপার হচ্ছে, সফটওয়্যারটি ক্রস প্ল্যাটফর্ম সমর্থন করে। অর্থাৎ, আপনি ম্যাক কম্পিউটারে রয়েছেন, আপনি চাইলে এর মাধ্যমে আপনার বন্ধুর উইন্ডোজ কম্পিউটার কানেক্ট করে সেটা ফিক্স করতে পারবেন। তাছাড়া আপনি চাইলে, ফোন থেকেও যেকোনো কম্পিউটার কন্ট্রোল করতে পারবেন। হ্যাঁ, এটি অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস দুই মেজর মোবাইল অপারেটিং সিস্টেমেই সমর্থিত।

এই লিস্টের যেকোনো সফটওয়্যার টুলকে ট্রায় করার আগে, আমি আপনাকে প্রথমে টিম ভিউয়ার ব্যবহার করার পরামর্শ প্রদান করি। এটি যেকোনো ভার্সন উইন্ডোজ—উইন্ডোজ ১০, ৮.১, ৮, ৭, এক্সপি, উইন্ডোজ সার্ভার ২০১৬, ২০১২, ২০০৮, ২০০৩, অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস, ম্যাক, লিনাক্স, ক্রোম ওএস — সবকিছুতেই সমর্থন করবে।

ডাউনলোড টিম ভিউয়ার

ক্রোম রিমোট ডেস্কটপ

এমনটা হয়তো হতেই পারে না, আপনি গুগল ক্রোম ব্রাউজার ব্যবহার করেন না! তবে, আপনি কি জানেন? ক্রোম ব্যবহার করেই আপনি যে কারো কম্পিউটার রিমোট অ্যাক্সেস করতে পারবেন। এক্ষেত্রে অবশ্যই দুই কম্পিউটারেই ক্রোম ইন্সটল থাকতে হবে এবং ক্রোম রিমোট ডেস্কটপ (Chrome Remote Desktop) নামক একটি এক্সটেনশন আপনাকে ক্রোম ওয়েব স্টোর থেকে ডাউনলোড করতে হবে।

ক্রোম রিমোট ডেস্কটপ

হোস্ট কম্পিউটার থেকে এক্সটেনশনটির শেয়ার বাটনে ক্লিক করলে একটি অ্যাক্সেস কোড পাওয়া যাবে, যেটা ক্লায়েন্ট কম্পিউটারের এক্সটেনশনে প্রবেশ করাতে হবে। ক্লায়েন্ট কম্পিউটার থেকে অ্যাক্সেস বাটন ক্লিক করলে, অ্যাক্সেস কোড প্রবেশ করানোর অপশনটি চলে আসবে। আর তারপরেই আপনি জাস্ট কানেক্ট হয়ে যাবেন। আর কোনই ঝামেলার ব্যাপার নেই এতে, শুধু ক্রোম ব্রাউজারটিই থাকা আসল ব্যাপার। যেহেতু এই এক্সটেনশনটি গুগল ক্রোম ব্রাউজারের উপর কাজ করে, তাই ক্রোম যে কম্পিউটারে ইন্সটল করা সম্ভব হবে, সকল কম্পিউটারে এই পদ্ধতি ব্যবহার করে রিমোট অ্যাক্সেস নেওয়া সম্ভব হবে। উইন্ডোজ, ম্যাক, লিনাক্স এবং অবশ্যই ক্রোমবুকেও আপনি এই টুল ব্যবহার করতে পারবেন।

এটি কিন্তু টিম ভিউয়ার বা লিস্টে থাকা বাকি টুল গুলোর মতো পাওয়ারফুল নয়, একেবারেই সিম্পল ইউজ লাইক ফাইল কপি/পেস্ট করার জন্য এটিকে ব্যবহার করতে পারেন। তাছাড়া, চ্যাট, ভিওআইপি কল ইত্যাদি ফিচার গুলো এখানে পাবেন না।

ডাউনলোড ক্রোম রিমোট ডেস্কটপ

লগমিইন রেসকিউ

যদি গুগল ক্রোম ব্রাউজার এতো জনপ্রিয় না হতো আর এর ক্রোম রিমোট ডেস্কটপ এক্সটেনশন ব্যবহার করা এতো সহজ হতো, আমি অবশ্যই লগমিইন রেসকিউ (LogMeIn Rescue) সফটওয়্যারটিকে এখানে দ্বিতীয় স্থানে রাখতাম। অনেক পার্সোনালি অনেক টেক সাপোর্ট টিমকে এই টুলটি ব্যবহার করতে দেখেছি। যদিও এই টুলটি ফ্রী নয়, কিন্তু এতে এমন কিছু অসাধারণ ফিচার রয়েছে, যেগুলো আলাদা রিমোট অ্যাক্সেস টুল থেকে আপনি পাবেন না। এই সফটওয়্যারটির সবচাইতে ভালো কথা হচ্ছে, এটি শুধু হোস্ট কম্পিউটারে ইন্সটল করতে হয়। ক্লায়েন্ট কম্পিউটারে কোন সফটওয়্যার ইন্সটল করার দরকারই নেই। আপনার শুধু প্রয়োজন পড়বে একটি ৬ ডিজিটের কোড, যেটা কেবল আপনার ওয়েব ব্রাউজারে প্রবেশ করেই আপনি কম্পিউটারের রিমোট অ্যাক্সেস আপনার টেকনিশিয়ানকে প্রদান করতে পারবেন।

লগমিইন রেসকিউ

এটি লিনাক্স ব্যাতিত ম্যাক, উইন্ডোজ এবং মোবাইলেও সমর্থন করে। আর এর কিছু স্পেশাল ফিচার গুলো হচ্ছে, সেশন রেকর্ডিং, চ্যাট, অডিও ভিডিও কল ইত্যাদি।

ডাউনলোড লগমিইন রেসকিউ

অ্যামি অ্যাডমিন

অ্যামি অ্যাডমিন (Ammyy Admin) একটি পোর্টেবল রিমোট অ্যাক্সেস টুল, যেটা সেটাপ করা পানির চেয়েও সহজ ব্যাপার। এর ইন্সটল ফাইল ১ মেগাবাইটেরও কম সাইজের, আর একে ইন্সটল করতেও হবে না, কেনোনা এটি পোর্টেবল সফটওয়্যার, জাস্ট ক্লিক করলেই ওপেন হয়ে যাবে। সফটওয়্যারটি অ্যামি নামে একটি মেন্যু আছে, যেখানে ক্লিক করে আপনি সার্ভিস পছন্দ করতে পারবেন এবং অ্যামি অ্যাডমিন সার্ভিস ইন্সটল করতে হবে যাতে প্রোগ্রামটি ম্যানুয়ালি রান না করিয়েই পিসি অ্যাক্সেস করা যায়। অথবা আপনি প্রোগ্রামটি থেকে আইডি নাম্বারটি লিখে রাখতে পারেন, যাতে ক্লায়েন্ট সহজেই কানেক্ট হতে পারে।

অ্যামি অ্যাডমিন

ক্লায়েন্ট কম্পিউটার হোস্ট অ্যামি কম্পিউটারের সাথে কানেক্ট হওয়ার জন্য পোর্টেবল সফটওয়্যারটি রান করাতে হবে এবং আলাদা কম্পিউটারটির আইডি প্রবেশ করাতে হবে। তারপরে বুম করে আপনি কানেক্ট হয়ে যাবেন। এই সফটওয়্যারটির মাধ্যমে রিমোট অ্যাক্সেস পাওয়ার পাশাপাশি ভয়েস চ্যাট, ফাইল ট্র্যান্সফার ইত্যাদি সুবিধা গুলো পাবেন। বর্তমানে অ্যামি শুধু উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমেই কাজ করে, আর হ্যাঁ, এটি সম্পূর্ণই ফ্রী প্রোগ্রাম, তাই চিন্তার কোন কারণই নেই।

ডাউনলোড অ্যামি অ্যাডমিন

আয়রো অ্যাডমিন

আয়রো অ্যাডমিন  (AeroAdmin) রিমোট অ্যাক্সেস করার সবচাইতে সহজ একটি টুল বা প্রোগ্রাম। কঠিন সেটিংস বলে এখানে কিছুই নেই, সবকিছু কনফিগ করা জলের মতো ব্যাপার। এই প্রোগ্রামটি দেখতে অনেকটা টিম ভিউয়ারের মতো। হোস্ট কম্পিউটারে এই পোর্টেবল সফটওয়্যারটিকে প্রথমে রান করতে হবে এবং আইপি অ্যাড্রেস ক্লায়েন্ট কম্পিউটারটিকে প্রদান করতে হবে, আর এভাবেই ক্লায়েন্ট কম্পিউটার হোস্ট কম্পিউটারকে খুঁজে নেবে।

আয়রো অ্যাডমিন

এবার ক্লায়েন্ট কম্পিউটারটিতে অবশ্যই একই সফটওয়্যারটি ইন্সটল থাকতে হবে এবং এতে আইডি বা আইপি প্রবেশ করাতে হবে। হোস্ট কম্পিউটার একবার কানেকশনের জন্য নিশ্চিত করে দিলে আপনি আরামে কম্পিউটারটি নিয়ন্ত্রন করতে আরম্ভ করতে পারবেন। এর সবচাইতে ভালো ব্যাপার হচ্ছে এটি পার্সোনাল আর বিজনেস দুই কাজের জন্যই সম্পূর্ণ ফ্রী, যেখানে টিম ভিউয়ার পার্সোনাল কাজের জন্য ফ্রী হলেও বিজনেস ভার্সন আপনাকে টাকা দিয়ে কিনতে হবে। এই সফটওয়্যারটির লিমিটেশন হচ্ছে, এটি চ্যাট অপশন নেই, যেটা থাকা আমার মতে অত্যন্ত প্রয়োজনীয় ব্যাপার ছিল। যাই হোক, তারপরেও এটি একটি ভালো সফটওয়্যার।

ডাউনলোড আয়রো অ্যাডমিন


তো এই ছিল আজকের কমপ্লিট লিস্ট। আশা করছি এই লিস্ট আপনার অনেক সময় বাঁচিয়ে দেবে এবং আপনি আপনার জন্য সঠিক প্রোগ্রামটি খুব সহজেই নির্বাচন করে ফেলতে পারবেন। এই লিস্টে যুক্ত করার জন্য আপনার কাছে কি আরো কোন অসাধারণ টুল রয়েছে, নিচে কমেন্ট করে আমাদের জানান।


WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

ইমেজ ক্রেডিটঃ By Rawpixel.com Via Shutterstock

তাহমিদ বোরহান
প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? কিছুতেই কি আপনার মস্তিষ্কে পাল্লা পড়ছে না? তাহলে বন্ধু, আপনি এবার সঠিক জায়গায় এসেছেন—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি, যাতে সকলে সহজেই সকল টেক টার্ম গুলো বুঝতে পারে।