সেরা ১০টি ফ্রী ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার (২০১৮)

ফ্রী ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার

আমাদের সবারই এই ভুলটি কখনও না কখনও হয়েছেই। কোনকিছু ডিলিট করার খনিক পরেই বুঝতে পারি যে, ডিলিট হওয়া ফাইলটি প্রয়োজনীয় ছিল। আজ আমরা কম্পিউটারের ডিলিট হওয়া ডাটা উদ্ধার এর জন্য সেরা ১০ টি ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার সম্পর্কে জানব। তবে, কিছু কম্পিউটারে বলতে গেলে এই ডাটা রিকোভারি একদম অসম্ভব। আপনি যদি সলিড স্টেট ড্রাইভ বা এসএসডি হার্ডড্রাইভ সম্পন্ন কম্পিউটার ব্যবহার কারী হন,তবে হয়ত ডাটা রিকোভারি সহজে সম্ভবকর হবে।

অন্যদিকে ম্যাগনেটিক হার্ড ড্রাইভ বা HDD ব্যবহার করে থাকলে ডাটা রিকোভারি করতে সক্ষম হবেন। এসএসডি হার্ডড্রাইভ এবং এইচডিডি হার্ডড্রাইভ তথা ম্যাগনেটিক হার্ডড্রাইভ এর কার্যপদ্ধতি সম্পূর্ণ ভিন্ন। ম্যাগনেটিক ড্রাইভে কোন ফাইল বা ডাটা ডিলিটেড হলে তা সাথে সাথে হার্ড ড্রাইভ থেকে ইরেজ তথা মুছে যায়না। কম্পিউটারে সাময়িক ভাবে কেবল সেই ফাইল তথা ডাটার পাথ ডিলিট হয়ে যায়। তাই বিশেষায়িত সফটওয়্যার ব্যবহার করে এসব ডিলিট হওয়া ফাইল, ডাটা আবার উদ্ধার করা যায়।

আপনি যদি রি-সাইকেল বিন,হিডেন ফোল্ডারসে আপনার ডিলিট হয়ে যাওয়া বা হারিয়ে যাওয়া ডাটা খুজে পেতে ব্যার্থ হন ; তবে দেরি না করে বিশেষায়িত সফটওয়্যার তথা ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার এর সাহায্য নিন। এই আর্টিকেলে বর্তমান সময়ের ১০ টি সেরা ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার সম্পর্কে উল্লেখ করা হলঃ

রিকিউভাঃ

সিম্পল উইজার্ড এবং গভীর ডাটা স্ক্যান সুবিধাযুক্ত পিরিফর্ম রিকিউভা খুবই কার্যকরী এবং ফ্রী ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার। পরিষ্কার ইন্টারফেস ও অপশনাল ডিপ স্ক্যান এর কারনে এটি একটি খুবই কার্যকরী ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার হিসেবে সবার কাছে পরিচিত। তবে এর ফ্রি ভার্সনে কেবল একটি সমস্যা চোখে পড়তে পাড়ে, তা হল বিজ্ঞাপন। তবে রিকিউভা এর প্রিমিয়াম ভার্সনে বিজ্ঞাপন চোখে পড়বে না।

আপনি কেবল স্পেসিফিক ড্রাইভকে,ফাইলকে টার্গেট করতে পারবেন আবার কুইক স্ক্যান ও ডিপ স্ক্যান সুবিধার মাধ্যমে সমস্ত কিছু রিকভারি টর জন্য বাছাই করতে পারবেন।

মিনিটুল পার্টিশন রিকভারি ফ্রীঃ

আপনি যদি দূর্ঘটনাবশত সম্পূর্ন হার্ডড্রাইভ পার্টিশন ডিলিট করে থাকেন বা হারিয়ে থাকেন,তবে মিনিটুল পার্টিশন রিকভারি এর ফ্রী ভার্সনটি আপনার জন্য। আপনি এই সফটওয়্যারটি ব্যবহার করে সম্পূর্ন পার্টিশন আবার উদ্ধারও করতে পারবেন। ডাটা লস্ট বা হারিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে সবচাইতে ভয়ানক অভিজ্ঞতা হয় তখন – যখন সম্পূর্ণ হার্ড ড্রাইভ বা এর কোন এক বা তার অধিক পার্টিশন ডিলিট হয়ে যায়। এইসব পার্টিশন আবার রিকভার করা যায়, যদি দূর্ঘটনাবশত ডিলিট হয়ে থাকে বা পার্টিশন এর হেডার যদি করাপ্টেড হয়। আর এরকম কারনে পার্টিশন খোয়া গেলে আপনি সহজেই মিনিটুল পার্টিশন রিকভারি দিয়ে তা উদ্ধার করতে পারবেন।

DMDE ফ্রী ভার্সনঃ

DMDE সফটওয়্যারটি ডিলিট হওয়া ফাইল তো রিকভার করেই আবার পুরাতন বা ডেড হার্ডড্রাইভ থেকে ডাটা পূর্নজ্জীবিত করতে সক্ষম। সফটওয়্যারটি সাক্সেস রেট আশানুরূপ, এতে ডিক্স এডিটিং মোড বিদ্যমান। তবে এর ইন্টারফেস আপনার কাছে ভয় দেখানোর মত লাগতে পারে। DMDE এটি বেশিরভাগ হার্ড ডিস্ক ডক্টরদের প্রিয়, কেননা এটি ২ টেরাবাইট+ পর্যন্ত সাইজের হার্ড ডিস্ক থেকে ডাটা পূনরূদ্ধার করতে পারে।

DMDE খুবই কার্যকরী একটি রিকভারি সফটওয়্যার হলেও, এই টুলটি ব্যবহার করা মোটেও সহজসাধ্য নয়। আপনার সিলেক্ট করে দেয়া একটি হার্ডড্রাইভ এর ওপর DMDE কাজ শুরু করে, তারপর তারভেতর কিকি পার্টিশন,ডাটা রয়েছে তা বের করে, যদি সাক্সেসফুল হয়,তবে ব্রাউজার থেকে ফাইল সিলেক্ট করার সময়, যেরকম উইন্ডো আসে সে রকম এটি উইন্ডো ওপেন হবে, আর আপনি আপনার প্রয়োজনীয় ডাটা রিকভার করতে পারবেন, সহজে।

ফটোরেক ও টেস্টডিস্কঃ

নাম ফটোরেক(PhotoRec) বা ফটো রিকভারি হলেও, নামের সাথে যাবেন না। এর নামের সাথে এর কাজের অনেক পার্থক্য রয়েছে। এটি কেবল ফটো বা ইমেজ ফরম্যাট না আরও শতাধিক ফাইল ফরম্যাট রিকভার করতে সক্ষম। এটি হার্ডড্রাইভ,মেমোরি কার্ড, সিডি/ডিভিডি এমনকি ফ্লাস ড্রাইভ থেকে শতাধিক ডিলিটেড না হারিয়ে যাওয়া ডাটা রিকভার করতে সক্ষম। টেস্টডিস্ক এর সাথে এর প্যাকেজড ভার্সন ব্যবহার করে, হার্ডডিস্ক পার্টিশনও রিকভার করা যাবে। এর ইউজার ইন্টারফেস আলাদা আর এখানে কোনরকম মাউস ইনপুট সাপোর্ট করবে না, কী-বোর্ড দিয়ে কাজ সমাধা করতে হবে।

প্যারাগন রেসকিউ কিটঃ (ফ্রী এডিশন)

আপনার উইন্ডোজ বুট করতে পারছেন না? ডাটা রিকভার করবেন কিভাবে, এই চিন্তা করছেন? আপনার এই কাজের জন্য রয়েছে প্যারাগন রেসকিউ কিট রিকভারি টুল। আপনাকে অবশ্য এটি আগে থেকে ইনস্টল করে রাখতে হবে একটি রানিং উইন্ডোজ পিসিতে।তারপর আপনার ৫১২ এমবি এর উর্ধ্বের একটি ব্লাঙ্ক সিডি/ডিভিডি না ফ্লাস ড্রাউভ লাগবে-আর আপনি যদি আপনার ডিলিট হওয়া ডাটা এইসব এক্সটারনাল ড্রাইভে ব্যাক-আপ করতে চান, তবে ৩২-৬৪ জিবি ফ্লাস ড্রাইভ কে প্যারাগন রেসকিউ কিট এর জন্য ব্যবহার করা সুবিধা হবে। তারপর নন-বুটিং উইন্ডোজ পিসিতে এসব ফ্লাস ড্রাইভ কানেক্ট করে, বুট মেনু থেকে ফাইল,ডাটা,মিডিয়া এসব রিকোভার করতে পারবেন।

ডিস্ক ড্রিলঃ

অন্যতম সেরা একটি ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার হল ডিস্ক ড্রিল। এটি উইন্ডোজ এবং ম্যাক দুই অপারেটিং সিস্টেম এর জন্যই উপলব্ধ। এটা আপনাকে প্রায় ২০০ এর অধিল ফাইল টাইপ রিকোভার করতে সহযোগিতা করবে। এটা ডাটা রিকোভারি এর পাশাপাশি একটি রানিং কম্পিউটারকে ক্লিন আপ এবং ডাটা ব্যাকআপ সম্পর্কিত কাজও করতে সক্ষম। তবে ট্রায়াল ভার্সন বা ফ্রী ভার্সন আপনাকে কেবল ৫০০ এমবি ডাটা রিকোভার করার সুযোগ দেয়।

আনডিলিট ৩৬০ঃ

এটি সম্পূর্ন ফ্রী হার্ডড্রাইভ এর ডাটা রিকোভার করার একটি সফটওয়্যার। এটি মোমোরি কার্ড, পেনড্রাইভ তথা ফ্লাস ড্রাইভ থেকেও ডাটা রিকভার করতে পারে। এটি ফাইল রিকভারি এবং ফোল্ডার রিকভারি দুটিই সাপোর্ট করে। এটি NTFS5,FAT12,FAT32 এর মতন ফাইল সিস্টেমসও সাপোর্ট করে।

সফটপারফেক্ট ফাইল রিকভারিঃ

এটাও একটি ট্রিপিক্যাল ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার। দূর্ঘটনাবশত হার্ডড্রাইভ,পেনড্রাইভ,মেমোরি কার্ড থেকে ডিলিট হওয়া ফাইল এটি রিকোভার করতে পারে। । এটিও NTFS5,FAT12,FAT32 এর মতন ফাইল সিস্টেমসও সাপোর্ট করে এখান থেকে ডাটা রিকোভার করতে পারে।

পিসি ইন্সপেকটর ফাইল রিকোভারিঃ

এটি ফাইল ও পার্টিশনে একাই ডিলিট হওয়া ফাইল খুজে বের করতে ও তা রিকোভার করতে পারে। এটা ডিলিটেড ফাইল রিকোভার করে নেটওয়ার্ক ড্রাইভে সংরক্ষন করার অপশন দেয়।

সিসডেম ডাটা রিকোভারিঃ

এটি ম্যাক কম্পিউটার এর জন্য কার্যকরী ডাটা রিকোভারি সফটওয়্যার। ম্যাক ইউজাররা তাদের ম্যাক ডিভাইস থেকে সুরক্ষিতভাবে ছবি,ভিডিও,ডকুমেন্ট, অডিও এসব কিছু রিকোভার তথা উদ্ধার করতে পারবেম এই সফটওয়্যারটি দিয়ে।ম্যাক ইউজারদের জন্য সীমিত সুবিধা নিয়ে ফ্রী ভার্সন এবং সম্পূর্ন সুবিধা নিয়ে ৪৯.৯৯ ডলারের এর পেইড ভার্সনও উপলব্ধ।


আশা করি এখানে এনলিস্টেড সফটওয়্যার বা টুলস গুলি আপনার মূল্যবান ডাটা উদ্ধারে কার্যকরী ভূমিকা রাখবে। আপনার কম্পিউটারে যদি একান্ত গুরুত্বপূর্ণ ফাইল তথা ডাটা থেকে থাকে,যা আপনি কখনও হারাতে চান না, বুদ্ধিমানের কাজ হবে – বাজার থেকে একটা এক্সটারনাল SSD ড্রাইভ কিনে তাতে ব্যাকআপ রাখুন। আশা করি আর্টিকেলটি আপনাকে ডাটা রিকোভারির ক্ষেত্রে সঠিক সফটওয়্যার বাছাই করতে সাহায্য করবে।



WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

ইমেজ ক্রেডিটঃ Pixabay

কোন কিছু জেনে সেটা মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার মধ্য দিয়েই সার্থকতা । আমি মোঃ তৌহিদুর রহমান মাহিন- ভালোবাসি প্রযুক্তিকে , আরও ভালোবাসি প্রযুক্তি সম্পর্কে বেশি বেশি জানতে- জানাতে। নিয়মিত মানসম্মত প্রযুক্তি বিষয়ক আর্টিকেল উপহার দেয়ার প্রত্যয়ে আছি টেকহাবস এর সাথে।

7 Comments

  1. ইমরুল কায়েস Reply

    আমার শাওমি ফোনে ফোন ষ্টোরেজ থেকে অনেক গুলো ফটো ডিলেট হয়ে গেছে।এই ফটোগুলো কি কোনভাবে ফিরিয়ে আনা সম্ভব?ভালো রেজুলেশনে?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *