লিকুইড কুলিং বা ওয়াটার কুলিং সিস্টেম কি? — বিস্তারিত!

লিকুইড কুলিং বা ওয়াটার কুলিং

কয়েক বছরের মধ্যে সিপিইউ এবং জিপিইউ এর স্পীড নাটকীয়ভাবে বৃদ্ধি  পেয়েছে! কম্পিউটিং এ আরো স্পীড যুক্ত করার জন্য অবশ্যই সিপিইউ’তে আরোবেশি ট্র্যাঞ্জিস্টর আঁটানোর প্রয়োজন পড়ে, সাথে আরোবেশি ইলেক্ট্রিসিটি এবং ক্লকরেট প্রয়োজনীয় হয়ে উঠে। আর এই জন্যই কম্পিউটার গুলো আরো এবং আরো হিট জেনারেট করে। আজকের মডার্ন কম্পিউটার প্রসেসর গুলোতে হিট সিঙ্ক ব্যবহার করা হয়, যেটা প্রসেসর থেকে হিট গ্রহন করে এবং পরিবেশে সেই তাপকে প্রবাহিত করে প্রসেসরকে ঠাণ্ডা করে। কিন্তু পিসিতে কুলিং ফ্যান অনেক অপ্রয়োজনীয় শব্দ তৈরি করে। আর কিছু মডার্ন আর প্রচণ্ড ফাস্ট প্রসেসর এতোবেশি হিট জেনারেট করে, যেটা কুলিং ফ্যান শুধু ঠাণ্ডা করতে পারে না। এই জন্যই নতুন একটি সলিউশন বেড় হয়ে গেছে, যার নাম লিকুইড কুলিং বা ওয়াটার কুলিং সিস্টেম। এই আর্টিকেলে এটি কি, কিভাবে কাজ করে এবং আপনার জন্য কতোটা প্রয়োজনীয়, সকল টার্ম গুলোকে কভার করবো।

লিকুইড কুলিং

লিকুইড কুলিং বা ওয়াটার কুলিং সিস্টেম  প্রসেসরের জন্য রেডিয়েটার হিসেবে কাজ করে, যেটি কম্পিউটারের ভেতরে অবস্থিত হয়ে থাকে। কারের মধ্যে যেমন রেডিয়েটার থাকে, ঠিক তেমনি একটি ওয়াটার কুলিং সিস্টেম প্রসেসরের সাথে লাগানো হিট সিঙ্কের মাধ্যমে প্রসেসরে লিকুইড সবরাহ করে। গরম প্রসেসরে ঠাণ্ডা লিকুইড প্রবাহ করানো হয়, এবং প্রসেসরের হিট লিকুইডে ট্র্যান্সফার করিয়ে দেওয়া হয়। এবার এই উত্তপ্ত লিকুইড পাইপের সাহায্যে বাইরের রেডিয়েটারে চলে আসে এবং হিটকে পরিবেশে ছড়িয়ে দেয়। এরপরে লিকুইড আবার ঠাণ্ডা হয়ে যায় এবং একই প্রসেস পুনরাবৃত্তি করতেই থাকে।

লিকুইড কুলিং বা ওয়াটার কুলিং কিন্তু একই জিনিষ, কিন্তু এর মানে এটা নয় সেখানে ট্যাপের পানি দেওয়া থাকে। অবশ্যই কুলিং সিস্টেমে শুদ্ধ পানি ব্যবহার করা হয়, যেটা সম্পূর্ণ বিদ্যুৎ অপরিবাহী! পানি তার স্বভাবগত কারণেই গরম জিনিষকে ঠাণ্ডা করার কাজে ব্যবহৃত করা হয়। পানি, সস্তা, সহজ লভ্য এবং রিস্ক ফ্রী একটি উপাদান, তাই বর্তমানে অনেক কোম্পানি এই ওয়াটার কুলিং সিস্টেমের উপর কাজ করে, যেটা পিসিতে সেটআপ করা আর মোটেও কঠিন কোন ব্যাপার নয়।

ওয়াটার কুলিং এর সুবিধা

প্রসেসর থেকে তাপ শোষণ করে পিসির বাইরে পাঠিয়ে দেওয়ার জন্য লিকুইড কুলিং সিস্টেম অনেক দক্ষ একটি সিস্টেম। প্রসেসর গরম হওয়ার সাথে সাথে কম্পিউটিং স্পীড স্লো হয়ে যায়, কেনোনা প্রসেসর নিজেই ক্লক স্পীড ডাউন করে দেয়, যাতে খানিকটা উত্তাপ কমানো যায়। অর্থাৎ আপনার সিস্টেমটি যদি ঠিকঠাক মতো ঠাণ্ডা রাখতে পারেন, অবশ্যই সেটি ভালো স্পীডে সর্বদা কাজ করবে। এই জন্যই যারা সিপিইউ ওভার ক্লকিং করে, সর্বদা ওয়াটার কুলিং সিস্টেম বেঁছে নেয়। অনেকে তো কমপ্লেক্স ওয়াটার কুলিং সিস্টেম ব্যবহার করে সিপিইউ রেটেড ওভার ক্লকিং স্পীড থেকেও দিগুন রেটে সিপিইউকে ওভার ক্লক করিয়ে ফেলে।

ওয়াটার কুলিং

লিকুইড কুলিং সিস্টেমের আরেকটি বড় সুবিধা হচ্ছে এই পিসির অঝথা ফ্যানের তৈরি নয়েজ থেকে আপনাকে বাঁচিয়ে দেবে। বর্তমানের কিছু হিট সিঙ্ক এবং কুলার ফ্যান একসাথে যুক্ত করে থাকা কুলিং সিস্টেম বিশাল শব্দ তৈরি করে, কেনোনা প্রসেসরকে ঠাণ্ডা করতে ফ্যানকে অনেকবেশি বাতাস সরবরাহ করতে হয়। হাই পারফর্মেন্স সিপিইউ এর জন্য ৫০০০ আরপিএম এর অধিক পর্যন্ত কুলিং ফ্যান প্রয়োজনীয় হতে পারে, যেটা প্রচণ্ড নয়েজ তৈরি করার জন্য দায়ী।

আজকের দিনে প্রত্যেকেই তাদের কম্পিউটারে এই কুলিং সিস্টেম লাগিয়ে নিতে পছন্দ করে। কেউই শব্দ ওয়ালা কম্পিউটার মেশিন পছন্দ করে না। আর এয়ার কুলিং সিস্টেম থেকে ওয়াটার কুলিং সিস্টেম অনেক বেশি কার্যকারী। লিকুইড কুলারের মধ্যেও ফ্যান থাকে, একটি ফ্যান লিকুইডকে সিস্টেমকে বইয়ে নিয়ে যেতে সাহায্য করে, কিন্তু সেই ফ্যানটি মোটেও বিশেষ শব্দ তৈরি করে না, এখানে লিকুইড শব্দ নিরোধক হিসেবে কাজ করে। কুলিং সিস্টেমের বাইরের দিকেও ফ্যান থাকে, কিন্তু সেগুলো মোটেও খুব জোরে ঘোরে না, তাই নয়েজ একেবারেই অনেক কম হয়ে থাকে।

অসুবিধা

লিকুইড কুলিং কিট আপনার কম্পিউটার কেসে অনেকখানি জায়গা দখল করে নেয়, অনেক কম্পিউটার কেসে এটি ইন্সটল করা অনেক ঝামেলার কাজ হিসেবে প্রমানিত হতে পারে। কোন কোন সিস্টেম নির্দিষ্ট জায়গার প্রয়োজন পড়ে আপনার কম্পিউটারে ইন্সটল করার জন্য। আপনার কম্পিউটার কেসিং কেনার পূর্বে অবশ্যই এটা নিশ্চিত করতে হবে, এতে ওয়াটার কুলিং সিস্টেমের জন্য যথেষ্ট পরিমানে জায়গা রয়েছে কিনা।

কাস্টম বিল্ড ওয়াটার কুলিং সিস্টেম ইন্সটল করতে অনেক টেকনিক্যাল জ্ঞান থাকার প্রয়োজন পড়তে পারে। প্রত্যেকটি কম্পিউটার কেসে আলাদা আলাদা লেআউট থাকে, তাই অনেক সময় আপনাকে পাইপ কেটে সেগুলোকে ম্যানুয়ালি সেটআপ করার প্রয়োজন পড়তে পারে। যদি কুলিং সিস্টেম ঠিকঠাক মতো ইন্সটল করতে না পারেন, কিংবা যদি লিকুইড লিক করে, আপনার পিসির অভ্যন্তরীণ সিস্টেম ড্যামেজ হয়ে যেতে পারে। তাহলে কি এই ক্ষেত্রে ওয়াটার কুলিং সিস্টেম রিস্কি? অনেক ইউজার তো পিসি আশেপাশে পানির গ্লাস রাখতেও ভয় করেন, সেখানে পিসির ভেতরে পানি, চিন্তা করে দেখুন! তাহলে কুলার কি লিক করতে পারে? সত্যি কথা বলতে আমি এখনো পর্যন্ত এরকম কিছু শুনিনি। রিটেইল কুলার গুলোর সবকিছু সিল করা থাকে, যাতে ভুল করেও লিক না হয়। কাস্টম কুলারের গল্প আলাদা, কেনোনা সেখানে ইউজারকে নিজেই ম্যাকারি করতে হয়, আর এতে অনেক সময় লিক প্রবলেম থেকেই যেতে পারে।

প্রয়োজনীয়তা

অনেক সস্তা ওয়াটার কুলার রয়েছে, যেগুলো ইউজারদের জন্য বেস্ট চয়েজ হতে পারে, যদিও এগুলো দামী কুলার গুলোর মতো পারফর্মেন্স দিতে পারবে না, তারপরেও বলতে পারেন এয়ার কুলারের নয়েজ ফ্রী ভার্সন তৈরি করতে পারবেন। যাদের নর্মাল সিস্টেম তাদের ওয়াটার কুলিং এ ইনভেস্ট না করলেও চলবে, যদি করতেই চান সস্তা রিটেইলার কিট লাগাতে পারেন। যারা গেমিং করেন তাদের জন্য আমি ভালো রিটেইলার কিট লাগাতে রেকমেন্ড করবো। সাথে আপনি যদি সিপিইউ ওভার ক্লকিং করেন অবশ্যই খুব ভালো রিটেইল কিট লাগাতে বলবো, যেখানে বড় রেডিয়েটর রয়েছে।

যারা কম্পিউটারকে এক্সট্রিম ওভার ক্লকিং করাতে চান শুধু মাত্র তাদের জন্য কাস্টম কুলিং সলিউশন প্রয়োজনীয় হবে। রিটেইলার রিটে সবসময়ই ফ্যান লাগানো থাকে, সেখানে যদি কিছু কাস্টম করেন একদম সাইলেন্ট সিস্টেম বিল্ড করতে পারবেন। যদি দামের দিকে কথা বলি, এয়ার কুলিং সিস্টেম আপনার জন্য অনেক সস্তা এবং সুবিধার হতে পারে। তবে হাই পারফর্মেন্স কম্পিউটার গুলোতে লিকুইড কুলার লাগানো এখন একটা ট্রেন্ডে পরিনত হয়ে গেছে। শুধু ডেক্সটপ কম্পিউটার নয়, কিছু কোম্পানি তো হাই পারফর্মেন্স ল্যাপটপেও এই সলিউশন ব্যবহার করতে আরম্ভ করে দিয়েছে।


তো ওয়াটার কুলিং সিস্টেম সম্পর্কে আপনি কি ভাবেন? অলরেডি আপনার কম্পিউটারে কি এটি ইন্সটল করা রয়েছে? নাকি লাগাতে চাচ্ছেন? নাকি এয়ার কুলিং সিস্টেম নিয়েই আপনি খুশি? আমাদের সবকিছু নিচে কমেন্ট করে জানান!


WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

ইমেজ ক্রেডিট; By aSuruwataRi Via Shutterstock | By Raw Group Via Shutterstock

তাহমিদ বোরহান
প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? কিছুতেই কি আপনার মস্তিষ্কে পাল্লা পড়ছে না? তাহলে বন্ধু, আপনি এবার সঠিক জায়গায় এসেছেন—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি, যাতে সকলে সহজেই সকল টেক টার্ম গুলো বুঝতে পারে।