৫টি লুকায়িত গুগল গেম, যেগুলো এক্ষুনি চেক করা উচিত!

ইয়েস, গুগল শুধুই সার্চ ইঞ্জিন নয়, এর নিজস্ব এক টেস্ট আর সেন্স অফ হিউমর ও রয়েছে! গুগল প্রত্যেক বছর নানান হিডেন গেম তৈরি করে থাকে আর নির্দিষ্ট দিনের জন্য যেগুলোকে গুগল হোমপেজে দেখতে পাওয়া যায়, কিন্তু আপনি চাইলে এখনো এই গেম গুলো খেলে মজা নিতে পারেন। আর সত্যি বলতে এই গেমের পরিমাণ কিন্তু ছোট নয়, তাই সিরিজ আকারে একের পর এক গেম গুলোর সাথে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করবো। আজ শুরু করলাম ৫টি লুকায়িত গুগল গেম দিয়ে, যেগুলো আপনার এক্ষুনি খেলা শুরু করা উচিৎ!

ব্যাস্কেট বল গেম

যারা অনেক দিন ধরে গুগল সার্চ ব্যবহার করে আসছেন তারা এই গেমের সাথে পরিচিত হলেও হতে পারেন। গুগল এই মজার গেমটি ২০১২ সালে প্রথম উন্মুক্ত করে। এই গেমে নানান দূরত্বে আপনি ঝুড়ির দিকে বল ছুড়ে মারতে পারবেন। এই টাইপের গেম একেবারেই সহজ আর সময় কিল করার পারফেক্ট ম্যাশিন! Basketball 2012 গেমটি এখানে প্লে করুন!

ব্যাস্কেট বল গেম

আপনি মাউসের বাটন যতোবেশি সময় ধরে চেপে ধরে থাকবেন আপনার বল ছুড়ে মারার গতি ততোবেশি বৃদ্ধি পাবে। এরমানে আপনাকে সঠিক স্পীডটি খুঁজে বের করতে হবে, আর তারপরে ব্যাস, সব বল শুধু ব্যাস্কেটের মধ্যেই প্রবেশ করবে! আর তখন নিজেকে বিশাল বড় এক ব্যাস্কেট প্লেয়ার মনে করে গর্ব করতে শুরু করতে পারেন! আপনি নির্দিষ্ট কিছু সময় পাবেন, এর মধ্যে যতো ইচ্ছা স্কোর করতে পারবেন, আর আগেই বললাম একবার সঠিক স্পীড মেপে ফেলতে পারলেই আপনি চ্যাম্পিয়ান! কিন্তু একবার গেম চলতেই থাকলে আপনাকে দূর থেকে আরো দূরে বল ছুড়ে মারতে থাকতে হবে! একটি প্র টিপস দিচ্ছি, আপনি কীবোর্ড থেকে স্পেস বাটন চেপেও বল নিক্ষেপ করতে পারবেন!

টি-রেক্স দৌড়

ইন্টারনেট কানেকশন না থাকলে মাথা খারাপ হয়ে যাওয়া অস্বাভাবিক কোন ব্যাপার নয়, আর গুগল সেটা ভালো করেই যানে! তাই তো গুগল ক্রোম অফলাইন হতেই টি-রেক্স দৌড় গেমটি চলে আসে। এই লুকায়িত গেমটি বেশ আসক্তি-সৃষ্টিকারী এবং কিউট! আমি এক সময় এই গেমের পেছনে যে কতো সময় ব্যয় করেছি তার হিসেব নেই! গেমটি খেলতে আপনার গুগল ক্রোম ব্রাউজার লাগবে ও কোন ইন্টারনেট কানেকশন থাকা চলবে না, গেমটি অ্যান্ড্রয়েড বা পিসি উভয় প্ল্যাটফর্মেই খেলতে পারবেন!

টি-রেক্স দৌড়

তো গেমটি খেলার জন্য প্রথমে ওয়াইফাই, মডেম যা দিয়ে ইন্টারনেট ইউজ করেন জাস্ট বিচ্ছিন্ন করে নিন, এবার গুগল ক্রোম ব্রাউজার ওপেন করুন। দেখবেন একটি “Unable to connect to the Internet” স্ক্রীন এর পাশাপাশি একটি টি-রেক্স দেখতে পাওয়া যাবে। স্পেস বাটনে প্রেস করলেই টি-রেক্সটি দৌড়াতে শুরু করবে, এবার স্পেস বাটন প্রেস করতে থাকবেন আর টি-রেক্স লাফাতে থাকবে। এভাবেই টি-রেক্স লাফিয়ে লাফিয়ে ক্যাকটাস থেকে নিজেকে বাঁচাবে আর চলতেই থাকবে!

প্র টিপসঃ এই গেমটি চাইলে আপনি অনলাইনে এবং যেকোনো ব্রাউজার ইউজ করেই খেলতে পারেন, জাস্ট এই লিঙ্কটি ভিজিট করুন; ONLINE T-REX

প্যাক-ম্যান গুগল সার্চ গেম

প্যাক-ম্যান গুগল সার্চ গেম

গুগল ডুডলে এই প্যাক-ম্যান গেম প্রথম মে ২১, ২০১০ এ দেখতে পাওয়া যায়। গেমটি শুরু করার জন্য জাস্ট গুগল সার্চে লিখুন “pacman” ব্যাস এরপরের ব্যাপার গুলো নিশ্চয় আর বলে দিতে হবে না। কীবোর্ড থেকে অ্যারো কী প্রেস করে জাস্ট টাইমলেস বিজনেসে নেমে পড়ুন, সারাদিন এবার Inky, Pinky, Blinky এবং Clyde এর হাত থেকে পালিয়ে বেড়ান!

সাপের গেম

সাপের গেম

ব্যাস্তব জীবনে কোন প্রজাতির সাপ অ্যাপেল খায় এই ব্যাপারে জানা নেই, কিন্তু গুগল সার্চের সাপ গেমে আপনি সাপকে অ্যাপেল খেতেই দেখতে পাবেন। নোকিয়া ক্লাসিক সেই সাপ গেমের মতোই এই গেমটি ও, অজস্র সময় নিমিষের মধ্যেই হাওয়া করে দেবে। নোকিয়ার সেই সাপ গেমের উপরেই এই গেমটি তৈরি করা হয়েছিল। আর কিভাবে খেলতে হবে সেটা শিখিয়ে কি দরকার শব্দ নষ্ট করা, এর থেকে নিজেই ট্রায় করে দেখুন! আর হ্যাঁ, গেমটি শুরু করতে গুগল সার্চে গিয়ে লিখুন, “Google Snake Game,” আর টপ সার্চ রেজাল্ট থেকে গেমটি খেলতে শুরু করুন!

ব্রেইকআউট

ব্রেইকআউট

১৯৭২ সালে Steve Wozniak এবং Steve Jobs এই “ব্রেইকআউট” গেমটি ডেভেলপ করেন। গেমটির নিচের দিকে একটি দাঁড় থাকে যেখানে একটি বল বারবার এসে বাউন্স করে আর উপরের ইট গুলোকে ভেঙ্গে দেয়। বলটি নিচের দাঁড় আর ইট গুলোর মধ্যে চলমান থাকে এভাবেই চলতেই থাকে যতোক্ষণ ইট গুলো ভেঙ্গে শেষ না হয়ে যায়। এই ক্ল্যাসিক গেমটি উপভোগ করার জন্য গুগল গিয়ে সার্চ করতে হবে “Atari Breakout” লিখে, তারপরে ইমেজ সার্চ ট্যাবে প্রবেশ করতে হবে, ব্যাস খেল শুরু হয়ে যাবে! গুগল সার্চ পেজের ইমেজ গুলো ইটে পরিণত হবে আর নিচে একটি প্যাডল চলে আসবে যেটা কীবোর্ড এর অ্যারো কী ব্যবহার করে ন্যাভিগেট করা যাবে!


তো এই পাঁচটি মজাদার গেমের মধ্যে আপনার কাছে কোনটি সবচাইতে বেশি ভালো লাগে আমাদের নিচে তা কমেন্ট করে জানান! যদি আরো এরকম হিডেন গুগল গেম সম্পর্কে যানতে চান আমাকে নিচে কমেন্ট করতে পারেন, আমি এরকম পোস্ট তৈরি করা চালু রাখব! আর হ্যাঁ, এই মজার গেম গুলো খেলতে খেলতে কী-বোর্ড ধ্বংস করে ফেললে আর দোষ কিন্তু আমার নয়!


WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

Feature Image: Adobe Stock

প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? কিছুতেই কি আপনার মস্তিষ্কে পাল্লা পড়ছে না? তাহলে বন্ধু, আপনি এবার সঠিক জায়গায় এসেছেন—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি, যাতে সকলে সহজেই সকল টেক টার্ম গুলো বুঝতে পারে।

2 Comments

  1. Daniel Rozario Reply

    Tic-toe গেমটাও কিন্তু এখানে থাকার যোগ্য। আর টি-রেক্সের গেমটা কাঠখোট্টা মনে হলেও আমার পছন্দের গেম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *