বর্তমান তারিখ:13 October, 2019

কুইক টেক [পর্ব-২৩] : কিভাবে হাই পিং ফিক্স করবেন? [উইন্ডোজ ১০]

হাই পিং গেমিং এর জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর, পিং কমিয়ে গেমিং এ ফেরত আসুন!

আপনার কম্পিউটার আর ইন্টারনেটের মধ্যে ডাটা আদান প্রদান সংযোগ স্থাপিত করতে যে সময়ের প্রয়োজন পরে সেই সময়কে পিং বা পিং রেট বা লেটেন্সি বলা হয়। আপনি যদি অনলাইন গেমিং করে থাকেন বা আপনার ওয়েব পেজ যদি দ্রুত লোড না নেয়, আপনি হতে পারেন হাই পিং রেট সমস্যায় ভুগছেন। স্মুথ অনলাইন গেমিং, ফাস্ট ইন্টারনেট ব্রাউজিং উপভোগ করার জন্য আপনাকে অবশ্যই হাই পিং রেট ফিক্স করতে হবে।

আজকের কুইক টেক পর্বে দেখাবো কিভাবে উইন্ডোজ ১০ এ হাই পিং রেট সমস্যা দূর করা যেতে পারে!


রাউটার সমস্যা ফিক্স করে হাই পিং সমস্যা ফিক্স করুন

আপনার রাউটার আর কম্পিউটারের মধ্যে যদি কানেকশনের সমস্যা থাকে সেক্ষেত্রে আপনি ভালো পিং রেট পাবেন না। কিছু কমন ফিক্স অ্যাপ্লাই করার মাধ্যমে রাউটারের কানেকশন স্ট্যাবল করা যেতে পারে। নিচের স্টেপ গুলো অনুসরণ করুন!

  • আপনার কম্পিউটারের যতোটা সম্ভব কাছে রাউটারটি আনার চেষ্টা করুন। শিউর হোন যে আপনি রাউটার থেকে ভালো সিগন্যাল পাচ্ছেন। যদি রাউটার কম্পিউটারের কাছে আনা সম্ভব না হয় সেক্ষেত্রে ওয়াইফাই সিগন্যাল এক্সটেন্ডার ইউজ করে দেখতে পারেন।
  • রাউটারের সাথে কানেক্টেড থাকা আলাদা ডিভাইজ গুলো ডিস্কানেক্ট করে দেখতে পারেন। হতে পারে আলাদা ডিভাইজ গুলো বেশি ব্যান্ডউইথ ইউজ করছে।
  • আপনার রাউটারটি রিস্টার্ট করে দেখুন, অনেক সময় শুধু রাউটার রিস্টার্ট করার মাধ্যমে অনেক সমস্যার সমাধান করা যেতে পারে।

উইন্ডোজ টাস্ক ম্যানেজার থেকে পিং কমানোর চেষ্টা করুন

উইন্ডোজ ১০ টাস্ক ম্যানেজার ইউজ করে সহজেই আপনি জানতে পারবেন, কোন প্রোগ্রাম আপনার পিসি থেকে সবচাইতে বেশি ব্যান্ডউইথ খেয়ে নিচ্ছে। আপনি সাধারণভাবে সেই টাস্কটিকে এন্ড করে দিয়ে পিং রেট লো করতে পারেন। কিভাবে খুঁজে বের করবেন? নিচের স্টেপ গুলো অনুসরণ করুন;

  • Ctrl+Alt+Delete প্রেস করুন কীবোর্ড থেকে, তারপরে Task Manager নির্বাচন করুন। অথবা Ctrl+Shift+Esc প্রেস করে সরাসরি টাস্ক ম্যানেজার ওপেন করতে পারেন।
  • এবার টাস্ক ম্যানেজার এক্সপ্যান্ড করার জন্য, More Details ক্লিক করুন!
  • এবার Network লিস্ট থেকে descending অর্ডার সিলেক্ট করলে মোস্ট ব্যান্ডউইথ ইউজ করা অ্যাপ্লিকেশন গুলো উপরে উঠে আসবে, জাস্ট যে অ্যাপ্লিকেশনটি বেশি ব্যান্ডউইথ করছে তার নামের উপরে রাইট ক্লিক করে End Task নির্বাচন করলেই অ্যাপলিকেশনটি ক্লোজ হয়ে যাবে। [তবে ভুল করে যেন কোন সিস্টেম প্রসেস এন্ড না করে ফেলেন, এতে পিসি আর কাজ করবে না বা সিস্টেম রিস্টার্ট করতে হবে]

উইন্ডোজ অটো আপডেট সেটিং পরিবর্তন করে হাই পিং ফিক্স করুন

উইন্ডোজ আপডেট ডাউনলোড হওয়ার সময় বা আপডেট নেওয়ার সময় আপনার ইন্টারনেট পিং হাই হয়ে যেতে পারে। উইন্ডোজ ১০ এ একবার আপডেট ডাউনলোড শুরু হলে সেটাকে পজ করার কোন উপায় নেই, এভাবে আপনার গেমিং এক্সপেরিয়েন্স মাঠে মারা যেতে পারে। উইন্ডোজ ১০ আপডেট সেটিংস থেকে আপনি ব্যান্ডউইথ কন্ট্রোল করতে পারবেন, নিচের স্টেপ গুলো অনুসরণ করতে পারেন।

  • Settings > Update & Security নির্বাচন করুন

  • Advanced Options নির্বাচন করুন

  • Delivery Optimization নির্বাচন করুন

  • আবারো একবার Advanced Options নির্বাচন করুন

  • প্রথম স্লাইডারটি কমিয়ে ১০% করে দিতে পারেন, এতে আপনার নেটওয়ার্ক থেকে খুব কম ব্যান্ডউইথ ইউজ করবে উইন্ডোজ আপডেট। ফোনে আপডেট থেকে গেমিং এ সমস্যা হবে না আর!

আপনার আইএসপির ও সমস্যা হতে পারে

আপনি যদি ব্রডব্যান্ড ইউজার হয়ে থাকেন, সেক্ষেত্রে আপনার আইএসপি এর ও সমস্যা হতে পারে, যার জন্য পিং হাই হয়ে যেতে পারে। ব্যান্ডইউথ মিটার টুলস গুলো ইউজ করে ইন্টারনেট স্পীড টেস্ট করুন তারপরে পিং রেট খুব বেশি হলে আইএসপির সাথে যোগাযোগ করুন। অনেক আইএসপির হাই প্যাকেজ গ্রহণ করলে পিং রেট ঠিক হয়ে যায়, চেক করে দেখুন তাদের এমন লিমিটেশন রয়েছে কিনা, প্রয়োজনে আপনার প্যাকেজটি আপগ্রেড করে নিন!

আর হ্যাঁ, ওয়াইফাই ইউজ না করে সরাসরি ইথারনেট ক্যাবল দিয়ে পিসিতে কানেকশন দিতে পারেন ,তারের কানেকশন একটু বেশি স্টাবল হয়ে থাকে। যদি কোন ভাবেই সমস্যা ঠিক না হয় সেক্ষেত্রে আইএসপি পরিবর্তন করতে পারেন। অথবা পিসির নেটওয়ার্ক ড্রাইভার গুলো রি-ইন্সটল করেও দেখা যেতে পারে।



WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

Image: WiREBD

প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? কিছুতেই কি আপনার মস্তিষ্কে পাল্লা পড়ছে না? তাহলে বন্ধু, আপনি এবার সঠিক জায়গায় এসেছেন—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি, যাতে সকলে সহজেই সকল টেক টার্ম গুলো বুঝতে পারে।

7 Comments

  1. Rayhan Reply

    ট্রাই করে দেখবো। তবে আমি এমনিতেই ভালো পিং পাচ্চি। রাউটার কাছে আনলে কি আর পিং কমবে?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *