ভ্যাল্কিরি (Valkyrie) : ইতিহাস কাকে মনে রাখবে? স্টাফেনবার্গ? নাকি হিটলার? [মুভি রিভিউ!]

যারা নর্থ মিথোলজির সাথে পরিচিত তারা হয়তো ভ্যাল্কিরির নাম শুনেছেন। পৌরানিক গল্পের এই ভ্যাল্কিরি হলো একটা যোদ্ধা জাতির নাম। আজকে যে মুভি নিয়ে বকর বকর করতে যাচ্ছি তার সাথে পৌরাণিক কাহিনির কোন যোগসুত্র নাই — বরং আছে ২য় বিশ্বযুদ্ধের! ভ্যাল্কিরি মুভিটি ২য় বিশ্বযুদ্ধকালীন সময়ে ঘটে যাওয়া একটা সত্যি ঘটনাকে কেন্দ্র করে বানানো হয়েছে। সাধারনত যা হয় সত্যি ঘটনাকে পর্দায় তুলে আনা মুভি গুলোতে কোন কলিজা কাঁপিয়ে দেওয়া টুইস্ট থাকে না। ঘটনাকে অবিকৃত করে রাখার স্বার্থে। তাই এইধরনের মুভিতে স্পয়লার দেওয়া না দেওয়াতে কোন কিছু নির্ভর করে না। বরং জানা ঘটনা কীভাবে পর্দায় তুলে ধরা হয়েছে সেইটাই মুখ্য হয়ে যায়!


২য় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে বিশ্বজয়ের নেশায় বিভোর জার্মান সর্বাধিনায়ক হিটলার ইউরোপের একের পর এক দেশকে পদানত করে যাচ্ছিলেন। হিটলারের বিরুদ্ধে রুখে দাড়িয়েছিলো মিত্রশক্তির দেশগুলো, এবং তারই বিশ্বস্ত সেনাধিনায়কের একাংশ! পুরো বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন ২৭ বার হত্যার চেস্টা চালিয়েছিলো সবাই মিলে এই জার্মান লৌহমানবকে থামিকে দিতো এবং প্রতিবারই বৈর্থ হয়েছিলেন।

সর্বশেষ চেষ্টা টি করেছিলেন কর্নেল স্টাফেনবার্গ। যিনি মনে করতেন হিটলার জার্মানির জন্যে যোগ্য নন। তিনি জার্মানির জন্যে বিপদ ঢেকে আনবেন! এছাড়া ইউরোপের ঝরে যাওয়া কোটি কোটি প্রানের কাছে তার বিবেক দংশিত হচ্ছিলো। তাই কর্নেল স্টাফেনবার্গ ও জার্মান প্রশাসনের কিছু লোক মিলে প্ল্যান করেন হিটলারকে উতখাত করার। এই অপারেশনের নাম দেওয়া হয় ভ্যাল্কিরি! এই প্ল্যানটা ছিল অসাধারণ একটা প্ল্যান। হিটলারকে হত্যার পর পরই রিজার্ভ আর্মি রাস্তায় নেমে আসবে এবং দখল করবে প্রতি ব্যারাক এবং জার্মান নাৎসি আর্মির উদ্ধাস্তন কর্মকর্তাদের গ্রেফতার করা হবে,দ্যান বার্লিনের নিয়ন্ত্রন নিয়ে নেওয়া হবে!তারপর টানা হবে যুদ্ধবিরতি!

আমরা যারা ইতিহাস সম্পর্কে অবগত আছি তারা সবাইই জানি অপারেশন ভ্যাল্কিরি সফল হয়নি। একটু জন্যে,সামান্য একটা ভুলের জন্যে এই অপারেশন দেখেছিলো ব্যর্থতার মুখ! হিটলার সেদিন মরেন নি। তিনি ১৯৪৫ সালে সুইসাইড করেছিলেন! তবুও ইতিহাসে এই রেভেলিওনের প্রভাব ব্যাপক!

যারা ওয়ার এস্পিওনাজ মুভি পছন্দ করেন তাদের এই মুভিটি প্রিয় হবে তাতে কোন সন্দেহ নাই। ইতিহাসে ঘটে যাওয়া একটা ঘটনা পর্দায় তুলে আনা হয়েছে যেখানে আমরা সবাই জানি কি হবে তবুও দর্শকরা দুরু দুরু বুকে প্রার্থনা করবে যেন সফল হয় অপারেশন ভ্যাল্কিরি। ঠিক এই জায়গাতেই মুনসিয়ানা দেখিয়েছেন পরিচালক ব্রায়ান সিংগার!জানা একটা ঘটনা পর্দায় এমন ভাবে তুলিয়ে এনেছেন যা প্রতিটি মুহুর্তে আপনাকে উতকন্ঠায় ভরিয়ে রাখবে! সেই সাথে আছে অসাধারন ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক যা ভ্যাল্কিরিকে দিয়েছে সম্পুর্ন অন্য মাত্রা!

মুভিতে কর্নেল স্টাফেনবার্গ এর ভুমিকায় অভিনয় করেছেন টম ক্রুজ। আমরা সবাই যার অভিযোগ করি,তিনি শুধু বানিজ্যিক মুভিগুলোতেই অভিনয় করেন। টম ক্রুজ যে বানিজ্যিক ধারার ছবির পাশাপাশি মেইনস্ট্রিম মুভিতেও শতভাগ সফল তার একটা উধাহারন হতে পারে ভ্যাল্কিরি মুভিটি!

মুভির বেশীরভাগ কাস্টই ইউরোপিয়ান। যেহেতু জার্মান পল্টে বানানো মুভি তাই তাদের এক্টিং ছিল বস লেভেলের! টম ক্রুজ ছাড়া জেনারেল অলব্রিক্ট ক্যারেক্টার রূপদান করেছেন Sir Bill Nighy — এবং আররো আছে Sir Kenneth Brangh!২য় বিশ্বযুদ্ধের উপর ভিত্তি করে বানানো এই স্পাই থ্রিলার আপনার জন্যে মাস্টওয়াচ মুভি,যা আপনার মিস করা উচিত হবে না বলে আমি মনে করি!


মুভিটা দেখার পর একটাই প্রশ্ন জাগবে! ইতিহাস কাকে শ্রদ্ধাভরে মনে রাখবে? স্টাউফেনবার্গ আর তার সহযোগী জেনারেল অলব্রিক্ট আর হেনিং ভন ট্রেসকো কে? নাকি হিটলার কে? তবে আপনার উত্তর নিচে কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না!


WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

Images: Metro-Goldwyn-Mayer Studios Inc

আরভিন আহমেদ
মুভি,টিভি-সিরিজ লাভার! প্রচন্ড অলস প্রকৃতির এই লোক ঠিক করেছেন তিনি সারাজীবন মুভি আর সিরিজ দেখেই কাটিয়ে দিবেন!