২ লাখ রেডমি কে২০ প্রো বিক্রি হয়েছে মাত্র ১ ঘণ্টা ৪০ মিনিটে!

২ লাখ রেডমি কে২০ প্রো বিক্রি হয়েছে মাত্র ১ ঘণ্টা ৪০ মিনিটে!

কোম্পানিটির নতুন রেডমি কে২০ প্রো যেটাকে তারা “ফ্ল্যাগশিপ কিলার ২.০” হিসেবে দাবি করছে — ফোনটি রিলিজ হওয়ার পরে মার্কেটে ভালোই ঝড় তুলতে সক্ষম হয়েছে। চায়নাতে ডিভাইজটির দাম রাখা হয়, CNY 2,499 যেটা বাংলাদেশী টাকায় প্রায় BDT 30500 — সাম্প্রতি ফোনটি প্রথম সেলে দাড় করানো হয়।

আর কোম্পানির অনুসারে, তারা চায়নাতে প্রথম সেলেই মাত্র ১ ঘণ্টা ৪০ মিনিট সময়ের মধ্যে ২০০,০০০ রেডমি কে২০ প্রো ডিভাইজ সেল করতে সক্ষম হয়েছে। তো নিজেই চিন্তা করে দেখুন, এই ব্র্যান্ডটি ধীরেধীরে কতোটা বেশি জনপ্রিয়তার দিকে এগোচ্ছে, হুয়াওয়ের পতনের পরে মনে হচ্ছে সেই জায়গা আর কেউ নয় বরং এই কোম্পানিটিই দখল করবে।

এতো কিছুই যখন আলোচনা করলাম, চলুন ফোনটির স্পেকস নিয়ে কিছুটা আলোচনা করা যাক। রেডমি কে২০ প্রো ফোনটি ৬.৩৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে সাথে FHD+ রেজুলেশন এবং ১৯ঃ৫ঃ৯ অ্যাস্পেক্ট রেশিও এর সাথে বাজারে আসে। ফোনটিতে ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর এবং পপ-আপ সেলফি ক্যামেরা রয়েছে, ফলে যতোটা সম্ভব ফোনটি থেকে বেজেল সরানো সম্ভব হয়েছে।

ফোনটিকে “ফ্ল্যাগশিপ কিলার ২.০” বলার কারণ ও রয়েছে, কেননা ফোনটিকে পাওয়ার প্রদান করেছে Snapdragon 855 SoC সাথে ৮জিবি র‍্যাম এবং ২৫৬ জিবি স্টোরেজ সুবিধা রয়েছে। ফোনটিতে অ্যান্ড্রয়েড ভার্সন ৯.০ দেওয়া রয়েছে যার উপরে MIUI 10 স্কিন ব্যবহার করা হয়েছে!



WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

Image: Redmi

তাহমিদ বোরহান
প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? কিছুতেই কি আপনার মস্তিষ্কে পাল্লা পড়ছে না? তাহলে বন্ধু, আপনি এবার সঠিক জায়গায় এসেছেন—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি, যাতে সকলে সহজেই সকল টেক টার্ম গুলো বুঝতে পারে।