বর্তমান তারিখ:23 August, 2019

নেপচুনিয়ান মরুভূমিতে ‘The Forbidden Planet’ নামক এক এক্সোপ্ল্যানেট খুঁজে পাওয়া গেছে!

গ্রহটি স্টারের অনেক কাছে অবস্থিত হয়েও এতে নিজস্ব বায়ুমণ্ডল রয়েছে!

নেপচুনিয়ান মরুভূমিতে 'The Forbidden Planet' নামক এক এক্সোপ্ল্যানেট খুঁজে পাওয়া গেছে!

এক এক্সোপ্ল্যানেট যেটা নেপচুনের থেকে ছোট এবং নিজস্ব বায়ুমণ্ডল রয়েছে, তাকে Neptunian Desert বা নেপচুনিয়ান মরুভূমিতে আবিস্কার করা হয়েছে। প্ল্যানেটটি International Collaboration of Astronomers দ্বারা আবিষ্কৃত করা হয়। NGTS-4b বা ‘The Forbidden Planet’ নামক এক্সোপ্ল্যানেটটির সাইজ নেপচুন থেকে ছোট হলেও এটা প্রায় পৃথিবীর ৩গুন বড় সাইজের, সাথে এর ভর প্রায় ২০টি পৃথিবীর সমান আর এর সার্ফেস তাপমাত্রা ১০০০ ডিগ্রী সেলসিয়াস।

নেপচুনিয়ান মরুভূমিতে খুঁজে পাওয়া এটা প্রথম একটি প্ল্যানেট। এখন প্রশ্ন হচ্ছে, এই নেপচুনিয়ান মরুভূমি কি জিনিষ? — নেপচুনিয়ান মরুভূমি হচ্ছে কোন স্টারের কাছের একটি অঞ্চল যেখানে কোন নেপচুন সাইজের প্ল্যানেট খুঁজে পাওয়া যায় না। অঞ্চলটি নক্ষত্রের অনেক নিকটবর্তি হওয়ার কারণে নক্ষত্র থেকে প্রচণ্ড পরিমাণে রেডিয়েশন আসে সাথে মারাত্মক তাপমাত্রা সহ্য করতে হয় ফলে এই অঞ্চলে কোন গ্রহ থাকলে তার বায়ুমণ্ডল থাকে না, শুধু সলিড পাথুরে কোর অবশিষ্ট থাকে।

কিন্তু নতুন খুঁজে পাওয়া এই ‘The Forbidden Planet’ এর ব্যাপারটি একটু আলাদা, আর এটাই এই প্ল্যানেটকে ইউনিক তৈরি করতে সাহায্য করেছে। প্ল্যানেটটি নেপচুনিয়ান মরুভূমিতে থাকার পরেও এর গ্যাসীয় বায়ুমণ্ডল রয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে এই প্ল্যানেটটি রিসেন্টলি নেপচুনিয়ান মরুভূমিতে মুভ করেছে, সেটা মাত্র ১ মিলিয়ন বছর পূর্বে এবং হতে পারে প্ল্যানেটটি পূর্বে আরো বড় সাইজের ছিল। তবে প্ল্যানেটটির বায়ুমণ্ডল এখনো স্পেসে বাষ্পীভূত হতেই রয়েছে।

আরেকটি মজার তথ্য হচ্ছে, এই প্ল্যানেটটি নিজের স্টারকে ১.৩ দিনে একবার প্রদক্ষিণ করে — এই ১.৩ দিন পৃথিবী ১ বছরে সূর্যকে প্রদক্ষিণ করার হিসেব অনুসারে গণনা করা হয়েছে। কোন স্টার থেকে কতোটুকু আলো কেউ ব্লক করছে সেই অনুসারে জ্যোতির্বিজ্ঞানী গন কোন নতুন প্ল্যানেট খুঁজে বের করেন। যদিও এই প্ল্যানেটটি তার স্টারের ১% আলো ব্লক করছিল, কিন্তু NGTS টেলিস্কোপ (যে টেলিস্কোপটি কাজে লাগিয়ে এই গ্রহটি খুঁজে বের করা হয়েছে) ০.২% আলো ব্লক থেকেও অবজেক্ট খুঁজে পেতে সক্ষম। তবে গ্রাউন্ড কোন টেলিস্কোপ ইউজ করে এরকম প্ল্যানেট পূর্বে খুঁজে পাওয়া সম্ভব হয় নি!

Dr. Richard West — যিনি University of Warwick এর পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগ রয়েছেন, তিনি নিচের কমেন্টটি করেন।

“This planet must be tough—it is right in the zone where we expected Neptune-sized planets could not survive. It is truly remarkable that we found a transiting planet via a star dimming by less than 0.2% – this has never been done before by telescopes on the ground, and it was great to find after working on this project for a year.

“We are now scouring out data to see if we can see any more planets in the Neptune Desert—perhaps the desert is greener than was once thought.”



WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

Image: University of Warwick/Mark Garlick

প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? কিছুতেই কি আপনার মস্তিষ্কে পাল্লা পড়ছে না? তাহলে বন্ধু, আপনি এবার সঠিক জায়গায় এসেছেন—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি, যাতে সকলে সহজেই সকল টেক টার্ম গুলো বুঝতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *