স্যামসাং গ্যালাক্সি এস১০ 5G ফোনটি বিস্ফোরিত হয়েছে, কিন্তু স্যামসাং ফোন পাল্টে দিতে অস্বীকার!

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস১০ 5G ফোনটি বিস্ফোরিত হয়েছে, কিন্তু স্যামসাং ফোন পাল্টে দিতে অস্বীকার!

ব্যাটারি সমস্যার কারণে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস১০ ৫জি মডেল ফোনটি বিস্ফোরিত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে! কিন্তু দক্ষিণ কোরিয়ার সেই কাস্টমারটিকে স্যামসাং ফোনটি বদলিয়ে দিতে অস্বীকার করেছে। — স্যামসাং জানায় এটা কোন ফোনের ত্রুটি নয় যেমনটা নোট ৭ এর সাথে ২০১৬ এর দিকে ঘটেছিলো, মূলত বাহ্যিক প্রভাবের ফলে ফোনটি বিস্ফোরিত হয়েছে।

বিস্ফোরণের নিউজ পাওয়ার পরে কোম্পানি ফোনটি রিসিভ করে এবং অনেক নিখুদভাবে ফোনটি চেক করে, তারপরে রেজাল্ট জানানো হয় ফোনের ব্যাটারির কোন সমস্যা নেই, বাইরে থেকে কোন ঝাঁকি খাওয়ার জন্য ফোনটি বিস্ফোরিত হয়েছে।

কিন্তু 5G হ্যান্ডসেটটির মালিক জানায়, তার ফোনটি হঠাৎ করেই কোন কারণ ছাড়া জ্বলে উঠে! — তিনি জানান, “আমার ফোনটি টেবিলে রাখা ছিল তারপরে হঠাৎ করে ফোনটি থেকে পোড়া পোড়া গন্ধ বের হতে শুরু করে এক পর্যায়ে আগুন লেগে যায় এবং আগুন সম্পূর্ণ ফোনটিকে গ্রাস করে ফেলে।” তারপরে সে ফোনটি টেবিল থেকে মেঝেতে ফেলে দেয় কেননা ফোনটি অত্যন্ত গরম হয়ে গিয়েছিল।

কিন্তু ফোনটির শেয়ার করা ইমেজ থেকে দেখতে পাওয়া যায় পোড়া ফোনটির সামনের এবং পেছনের গ্লাস ফেটে রয়েছে। এখন স্যামসাং এর অনুসারে কোন প্রকারের ইমপ্যাক্ট থেকেই ফোনটি বিস্ফোরিত হয়ে গেছে। তবে কে সত্য বলছে আর কে মিথ্যা ব্যাপারটা অনুমান করা একটু মুশকিলের। কেননা স্যামসাং এর ব্যাটারি জনিত কারণ নিয়ে খুব ভালো একটা রেকর্ড নেই, নোট ৭ এর সাথে যা হয়েছিলো সেটা জানতে নিশ্চয় কারো বাকি নেই।

এদিকে কোম্পানিটি তাদের সর্বপ্রথম ফোল্ডেবল স্মার্টফোন বিক্রি ডেট পিছিয়ে দিয়েছে। কেননা ফোনটির কিছু রিভিউ ইউনিটের ডিসপ্লে সম্পূর্ণ ড্যামেজ হয়ে যায়, ফলে স্যামসাং বেশ আলোচনায় চলে আসে। যাইহোক, এখন দেখা যাক নতুন গ্যালাক্সি এস১০ ৫জি মডেলের সাথে কি ঘটে!



WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

Image: Shutterstock.com