নিরাপত্তাটেক নিউজ

মাইক্রোসফট আউটলুক হ্যাক : হ্যাকারের কবলে ছিল কিছু Outlook.com অ্যাকাউন্ট!

1
মাইক্রোসফট আউটলুক হ্যাক : হ্যাকারের কবলে ছিল কিছু Outlook.com অ্যাকাউন্ট!

আজ ১৩ই এপ্রিল, Pacific Time সকালে মাইক্রোসফট নিজে থেকে জানায়, হ্যাকার’রা কয়েক মাস যাবত কিছু Outlook․com অ্যাকাউন্ট আয়ত্বে নিয়ে ছিল! দ্যা ভার্জের রিপোর্ট অনুসারে মাইক্রোসফট বুঝতে পারে এক Outlook.com সাপোর্ট এজেন্টের ক্রেডিনশিয়াল কোনভাবে হ্যাকারদের কবলে চলে যায় এবং মোটামুটি ৩ মাস যাবত কিছু Outlook․com অ্যাকাউন্ট তাদের আয়ত্বের মধ্যে ছিল।

মাইক্রোসফট জানায়, তাদের সাপোর্ট এজেন্টের অ্যাকাউন্টটি ১লা জানুয়ারি থেকে ২৮ই মার্চ পর্যন্ত হ্যাকারের কবলে ছিল। এই এজেন্ট অ্যাকাউন্ট থেকে হ্যাকার’রা আলাদা Outlook․com অ্যাকাউন্টের ইনবক্স থেকে মেইল অ্যাড্রেস, ফোল্ডার নেম, এবং মেইল সাবজেক্ট দেখতে পারবে কিন্তু আসল মেইল বা মেইলের সাথের অ্যাটাচমেন্ট আক্সেস করতে পারবে না।

তবে যে যে ইউজারের Outlook․com অ্যাকাউন্ট এই ডাটা ব্রিচের কবলে পড়েছে বলে মনে হয়েছে মাইক্রোসফট তাদের মেইল পাঠিয়ে ব্যাপারটি নোটিফাই করে দিয়েছে। যদিও হ্যাকাররা এই ডাটা ব্রিচ থেকে ইউজার অ্যাকাউন্ট পাসওয়ার্ড হ্যাক করতে পারেনি, তারপরে মাইক্রোসফট সকল ব্রিচ হওয়া ইউজারদের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করতে রেকোমেন্ড করেছে।

তবে এই ডাটা ব্রিচ কিভাবে হয়েছে তার বিষদ বর্ণনা এখনো পরিষ্কার নয়, সাথে কতো গুলো Outlook․com অ্যাকাউন্ট হ্যাকারদের কবলে ছিল সেটার সংখ্যা ও জানা সম্ভব হয়নি। এটাও জানা যায়নি, সাপোর্ট এজেন্টের অ্যাকাউন্ট কিভাবে হ্যাকাররা আক্সেস করেছে। তবে যদি আপনার অ্যাকাউন্টও এই ডাটা ব্রিচের শিকার হয়ে থাকে, আপনি অবশ্যই এতোক্ষণে মাইক্রোসফট থেকে মেইল পেয়ে যাওয়ার কথা।

যদি দুর্ভাগ্যবশত মেইল পেয়েই যান, বেস্ট হবে আপনার Outlook․com অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ডটি পরিবর্তন করে ফেলা। কিভাবে পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করবেন, সেটা অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে দেখে নিতে পারেন।

তাহমিদ বোরহান
প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? কিছুতেই কি আপনার মস্তিষ্কে পাল্লা পড়ছে না? তাহলে বন্ধু, আপনি এবার সঠিক জায়গায় এসেছেন—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি, যাতে সকলে সহজেই সকল টেক টার্ম গুলো বুঝতে পারে।

ওয়ানপ্লাস আপাতত ফোল্ডেবল স্মার্টফোন বানাচ্ছে না, বদলে টিভি ও কার তৈরি নিয়ে কাজ করছে!

Previous article

সর্বাধিক জনপ্রিয় টপ-লেভেল ডোমেইন নেম গুলো কি কি? — এগুলো কতোটা মূল্য রাখে?

Next article

You may also like

1 Comment

  1. খুব উপকারী আর্টিকেল। ধন্যবাদ ভাইয়া।

Leave a reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *