সর্বপ্রথম আসল ব্ল্যাক হোলের ইমেজ প্রকাশিত!

অবশেষে সর্বপ্রথম ব্ল্যাক হোলের রিয়াল ইমেজ প্রকাশিত করলো বিজ্ঞানীগণ। আসলে এটা ব্ল্যাক হোলের ইমেজ নয়, কেননা ব্ল্যাক হোল কোন আলো রিফ্লেক্ট করে না, ইমেজটি হচ্ছে ব্ল্যাক হোলের চার পাশের হট গ্যাস এবং ডাস্ট ক্লাউডের ছবি যেটা আলোর স্পীডে ব্ল্যাক হোলের চারপাশে ঘূর্ণীয়মান। The Event Horizon টেলিস্কোপ ও আরো কিছু সিরিজ টেলিস্কোপের সাহায্য নিয়ে দুইটি সুপার ম্যাসিভ ব্ল্যাক হোল অবজার্ভ করা হয়।

দুইটি সুপার ম্যাসিভ ব্ল্যাক হোলের মধ্যে একটি আমাদের গ্যালাক্সির মাঝখানে অবস্থিত যেটার নাম Sagittarius A এবং আরেকটি M87 নামক গালাক্সিতে অবস্থিত। ফিচার ইমেজে প্রদর্শিত ব্ল্যাক হোল ইমেজটি এম৮৭ গ্যালাক্সি থেকে নেওয়া যেটা ৫৫ মিলিয়ন আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত। ইমেজটি দেখতে ঘোলা লাগলেও এটা অত্যন্ত হাই টেক রেডিও টেলিস্কোপের সাহায্য নিয়ে ক্যাপচার করা হয়েছে।


WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

ব্ল্যাক হোলের চারপাশের রিং থেকে আলো অনেকটা ভারসাম্যহীন দেখা যাচ্ছে, যেটা সম্পূর্ণই প্রত্যাশিত। এটা আলবার্ট আইনস্টাইনের তত্ত্বের সাথে মিলে যায়; ব্ল্যাক হোলের গ্রাভিটি এতোটাই বেশি স্ট্রং যে লাইট বেঁকে যায়। এই সর্ব প্রথম ক্যাপচার করা ইমেজটি আমাদের লিমিটকে আরো সামনের দিকে নিয়ে গেছে। এটা সত্যিই বিজ্ঞানীদের জন্য অবিস্মরণীয় একটি ব্যাপার, এর পূর্বে একই এই ইমেজটি দেখে নি। হ্যা আমাদের কাছে সিমুলেশন ছিল, ইলাস্ট্রেশন ছিল, কিন্তু রিয়াল ইমেজ ছিল না। আজ সত্যি গর্ব করার মত একটি মুহূর্ত!

তাহমিদ বোরহান
প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? কিছুতেই কি আপনার মস্তিষ্কে পাল্লা পড়ছে না? তাহলে বন্ধু, আপনি এবার সঠিক জায়গায় এসেছেন—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি, যাতে সকলে সহজেই সকল টেক টার্ম গুলো বুঝতে পারে।