বর্তমান তারিখ:19 October, 2019

কিভাবে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইট মাইগ্রেট করবেন? [এক হোস্টিং থেকে আরেক হোস্টিং এ ট্র্যান্সফার!]

ওয়ার্ডপ্রেসে সাইট তৈরি করার আরেকটি প্রধান সুবিধা হচ্ছে আপনি কোন প্রকারের এক্সট্রা ঝামেলা না করেই এক হোস্টিং প্রভাইডারর থেকে আরেক হোস্টিং প্রভাইডারে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটটি মাইগ্রেট করতে পারবেন, মানে একেবারে হুবহু কপি করতে পারবেন। হয়তো আপনি বর্তমানে কোন শেয়ার্ড হোস্টিং প্ল্যানে রয়েছেন আর এখন ডিজিটাল ওসেন, গুগল ক্লাউড বা অ্যামাজন ক্লাউডে মুভ করতে চাচ্ছেন, সেক্ষেত্রে এই টিউটোরিয়ালটি আপনার বেশ কাজের প্রমাণিত হতে পারে।

তবে অনেক হোস্টিং প্রভাইডার রয়েছে যারা ফ্রি এবং ম্যানেজড সাইট মাইগ্রেশন করার সুবিধা প্রদান করে থাকে, যেমন- এক্সেলনোড; এদের সাপোর্ট টিম পূর্বের হোস্টিং প্রভাইডার থেকে নিজেরায় আপনাকে তাদের প্ল্যাটফর্মে সাইট মাইগ্রেট করতে সাহায্য করবে, আপনাকে কিছুই করতে হবে না। আপনার ওয়েবসাইট/ব্লগকে নেক্সট লেভেলে নিয়ে যাওয়ার জন্য অবশ্যই ক্লাউডের কোনই বিকল্প নেই। তবে আপনি যদি একেবারেই নতুন হয়ে থাকেন, সেক্ষেত্রে ঝামেলা ফ্রি আর অনেক সস্তাতে (ক্লাউড কিন্তু মোটেও সস্তা নয়!) আপনার প্রথম ওয়েবসাইটটি হোস্ট করতে এক্সেলনোড ট্রায় করতে পারেন। “WIREBD” প্রমো কোড ব্যবহার করে ৫০% ছাড়ে সি-প্যানেল নির্ভর পাওয়ারফুল শেয়ার্ড হোস্টিং পেতে পারবেন, সাথে ডিস্কাউন্টে ডোমেইন এবং ২৪/৭ ডেডিকেটেড সাপোর্ট তো থাকছেই! এক্ষুনি, বিস্তারিত আরো তথ্যের জন্য এক্সেলনোড ভিজিট করুণ!

এক্সেলনোডকে এক্ষুনি কল করুণ!

হ্যাঁ, এই টিউটোরিয়ালটি শুরু করার পূর্বে অবশ্যই নতুন হোস্টিং এ আপনার ফ্রেস ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটলেশনটি করা থাকতে হবে। মানে যেখানে আপনি আপনার পুরাতন বা এক্সিস্টিং সাইটটি মুভ করবেন। এই টিউটোরিয়ালে একটি ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন ব্যবহার করে ওয়ার্ডপ্রেস সাইট মাইগ্রেট করা শেখানো হয়েছে — যেটা হোস্টিং প্যানেল থেকে ব্যাকআপ তৈরি করে আরেক হোস্টিং এ মুভ করা থেকেও অনেক সহজ উপায়!

WP Migration Plugin টি ডাউনলোড করুণ

আপনার পূর্বের ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে লগইন করুন এবং অ্যাডমিন প্যানেল থেকে “Add Plugins” এ ক্লিক করুণ এবং All-in-One WP Migration — প্লাগইনটি ডাউনলোড করুণ।

আপনার ওয়েবসাইট’টি এক্সপোর্ট করুণ

প্লাগইনটি ডাউনলোড করা হলে অ্যাক্টিভ করে নিন, তারপরে ওয়ার্ডপ্রেস অ্যাডমিন প্যানেল সাইডবারে All-in-One WP Migration প্লাগইনের অপশন দেখতে পাবেন। All-in-One WP Migration প্লাগইন এর ড্যাশবোর্ড থেকে আপনি যদি ডোমেইন একই রেখে আপনার সাইট ট্র্যান্সফার করতে চান সেক্ষেত্রে কিছুই করতে হবে না, জাস্ট Export To > File এ ক্লিক করুণ।

কিন্তু যদি বর্তমান সাইট ডোমেইন আর নতুন সাইট ডোমেইন আলাদা হয় সেক্ষেত্রে Find field এ আপনার বর্তমান ডোমেইন নেম লিখতে হবে এবং Replace with field এ আপনার নতুন ডোমেইন নেম লিখতে হবে এবং ADD বাটনে ক্লিক করতে হবে, তারপরে সাইট এক্সপোর্ট করার জন্য Export To > File ক্লিক করলেই কাজ শেষ!

কিছুক্ষণের মধ্যে আপনার এক্সিস্টিং সাইটের ফুল ব্যাকআপ তৈরি হয়ে যাবে এবং আপনাকে জাস্ট কম্পিউটারে ডাউনলোড করে নিতে হবে।

ওয়েবসাইট ইমপোর্ট করুণ

এবার নতুন ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে লগইন করুণ, যেটা ক্লাউডে বা আলাদা হোস্টিং এ ইন্সটল করেছেন। আর হ্যাঁ, যদি পূর্বের সাইট আর বর্তমান সাইটের ডোমেইন একই রাখতে চান সেক্ষেত্রে অবশ্যই আপনার ওয়েবসাইট এক্সপোর্ট করার পরে আপনার ডোমেইনটি নতুন ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে পার্ক করতে হবে। তারপরে নতুন ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটলেশনে লগইন করুণ, এখানেও All-in-One WP Migration প্লাগইনটি ডাউনলোড করুণ।

তারপরে, All-in-One WP Migration এর Import অপশন এ ক্লিক করুণ। এবার Import From > File এ ক্লিক করে আপনার কম্পিউটার থেকে কিছুক্ষণ আগের ডাউনলোড করা ব্যাকআপ ফাইলটি দেখিয়ে দিন! ব্যাস, আপনার সাইট অটো মাইগ্রেশন হয়ে যাবে। পূর্বের সাইটের হুবহু কপি আলাদা সাইটে তৈরি হয়ে যাবে বা আপনার হোস্টিং মাইগ্রেশন হয়ে যাবে।

নোটঃ ফ্রি All-in-One WP Migration প্লাগিনটিতে কেবল ৪০ মেগাবাইট সাইজ পর্যন্ত ব্যাকআপ আপলোড করতে পারবেন, যদি আপনার সাইট এর থেকে বড় হয়ে থাকে, সেক্ষেত্রে আপনাকে এর প্রো ভার্সনটি কিনতে হবে। তবে চিন্তা করার দরকার নেই, আমি নিচের স্টেপে শিখিয়ে দিচ্ছি আপনি কিভাবে আনলিমিটেড সাইজের ব্যাকআপ আপলোড করবেন!

আপলোড লিমিট হ্যাক

পূর্বে All-in-One WP Migration প্লাগইন এর ফ্রি ভার্সনে ৫১২ মেগাবাইট পর্যন্ত লিমিট ছিল, কিন্তু বর্তমানে সেটা আরো কমিয়ে ৪০ মেগাবাইট করে দেওয়া হয়েছে। যেটা একেবারেই কম। তাই আপনাকে প্লাগইনটি লিমিট হ্যাক করতে হবে, না হলে প্রো ভার্সন টাকা দিয়ে কিনতে হবে। যেহেতু এর লিমিট বাইপাস করা অনেক সহজ, আর আপনি নিজেই করতে পারবেন, তাই টাকা দিয়ে কেনার আর কোন যুক্তি দেখি না।

আর হ্যাঁ, এই লিমিট হ্যাক করার পদ্ধতি এই প্লাগইনটি লেটেস্ট ভার্সনটির সাথে কাজ করে না। আপনাকে ভার্সন 6.77 বা আরো পেছনের ভার্সন ইন্সটল করতে হবে। All-in-One WP Migration প্লাগইনটির ভার্সন 6.77 — এখান থেকে ডাউনলোড করতে পারেন।

প্লাগইনটি অ্যাক্টিভ করুন

 

উপরের লিংক থেকে প্লাগইনটি ডাউনলোড করার পরে, ওয়ার্ডপ্রেস ড্যাশবোর্ড থেকে Add New প্লাগিন এ গিয়ে ডাউনলোড করা প্লাগিনটি আপলোড করতে হবে। আর হ্যাঁ, অবশ্যই লেটেস্ট প্লাগইনটি থাকা চলবে না, আগে থেকে ইন্সটল করে থাকলে অবশ্যই প্রথমে আন-ইন্সটল করে নিতে হবে। এরপরে ডাউনলোড করা প্লাগইনটি অ্যাক্টিভ করতে হবে!

Plugin Editor ওপেন করুণ

এবার ওয়ার্ডপ্রেস ড্যাশবোর্ডের প্লাগইন সেকশন থেকে Plugin Editor এ প্রবেশ করতে হবে।

প্লাগইন নির্বাচন করুণ

Plugin Editor পেজের হাতের ডানদিকের উপরে দেখবেন প্লাগইন সিলেক্ট করার অপশন দেওয়া হয়েছে, সেখানে All-in-One WP Migration প্লাগইনটি সিলেক্ট করুণ!

constants.php ফাইলটি ওপেন করুণ

All-in-One WP Migration প্লাগইনটি সিলেক্ট হয়ে গেলে ডান দিকের সাইডবার থেকে constants.php নামক একটি ফাইল দেখতে পাবেন, সেখানে ক্লিক করুণ!

constants.php ফাইলটি এডিট করুণ

constants.php ফাইল এডিটরে স্ক্রোল করে ২৮৪ নাম্বার লাইনে চলে আসুন, তারপরে Max File Size সেকশনে 2<<28 লেখা দেখতে পাবেন, যেটাকে এডিট করে 2 << 33 করে দিতে হবে।

// =================
// = Max File Size =
// =================
define( ‘AI1WM_MAX_FILE_SIZE’, 2 << 33 );


তারপরে, নিচে স্ক্রোল করে Update File বাটনটিতে ক্লিক করুণ, যাতে পরিবর্তিত কোডটি সেভ হয়ে যায়।

টেস্ট

যদি সবকিছু ঠিকঠাক থাকে, সেক্ষেত্রে Maximum upload file size 16GB প্রদর্শন করবে! ব্যাস এবার ইচ্ছা মতো ফাইল আপলোড করতে পারবেন, আর ৪০ মেগাবাইটের লিমিটে সিমাবদ্ধ হয়ে থাকতে হবে না!

আর হ্যাঁ, এইভাবে সাইট মাইগ্রেট করলে আপনার সাইট হুবহু কপি হবে, ফলে কোন সেটিংস বা এসইও কোন কিছুই পরিবর্তিত হবে না। যদি ডোমেইন পরিবর্তন করেন, সেক্ষেত্রে গুগল ওয়েবমাস্টার টুল থেকে নতুন ডোমেইনটি দেখিয়ে দিতে হবে। এই পর্বটি নিয়ে যেকোনো প্রশ্নে অবশ্যই আমাকে নিচে কমেন্ট করতে পারেন।

এক্সেলনোড — ডোমেইন/হোস্টিং কোম্পানিকে আমি বিশেষ ধন্যবাদ জানাতে চাই, তারা এই সিরিজকে স্পন্সর করেছে, ফলে নিয়মিত আপনাদের সামনে ফ্রি ক্লাউড কম্পিউটিং টিউটোরিয়াল পাবলিশ করা সম্ভব হবে! সাশ্রয়ী মূল্যে ডোমেইন/শেয়ার্ড হোস্টিং কেনার জন্য তাদের সাইট ভিজিট করতে পারেন, পূর্বে তাদের রিভিউটি পড়ে নিতে পারেন।



WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

Images: WiREBD

প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? কিছুতেই কি আপনার মস্তিষ্কে পাল্লা পড়ছে না? তাহলে বন্ধু, আপনি এবার সঠিক জায়গায় এসেছেন—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি, যাতে সকলে সহজেই সকল টেক টার্ম গুলো বুঝতে পারে।

4 Comments

  1. কৌশিক Reply

    অসংখ্য ধন্যবাদ। এই প্লাগিন দিয়ে এতো সহজে সাইট মাইগ্রেট করা যায় জানা ছিল না। আমি UpDraft Plus ব্যাকআপ প্লাগিনটা ব্যবহার করতাম। ম্যানুয়ালি ফাইল, ডেটাবেস, প্লাগিন এগুলো ব্যাকআপ নিয়ে পরবর্তীতে সিপ্যানেল থেকে ইম্পোর্ট করতাম।
    তবে একটা প্রশ্ন জানার ছিল, নতুন ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল দিলে ইউজার লগইন এবং ডেটাবেস এর ইউজারনেম এবং পাসওয়ার্ড কি অটোমেটিক পুরাতন ওয়ার্ডপ্রেস এর ইউজারনেম এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে রিপ্লেস হয়ে যাবে, না ইন্সটল দেয়ার সময় নতুন ইউজার পাসওয়ার্ড এর পরিবর্তে পুরাতন ইউজার এবং পাসওয়ার্ড ব্যবহার করতে হবে……

    1. তাহমিদ বোরহান Post author Reply

      হুবহু কপি হবে, মাইগ্রেশন কমপ্লিট হওয়ার পরে আগের সাইটে যা ইউজার নেম/পাস ছিল সেটাই চলে আসবে। নতুন ওয়ার্ডপ্রেসের ইউজার এবং পাস রিমুভ হয়ে যাবে!

  2. রিয়ান সাব্বির Reply

    ভাই এক্সেলনোডের নিজস্ব সাইট যেখানে এতোটা স্লো কাজ করে সেখানে কিভাবে এরা আমার ওয়েবসাইট ফাস্ট করাবে? কিছু ই তো বুঝলাম না। আমি লিংক ক্লিক করে ১ মিনিট থেকে বসে রয়েছি শুধু ধুকতেই রয়েছে। ব্যাপারটা বুঝিয়ে দিলে উপকৃত হতাম। প্রথম ওয়েবসাইট হোস্ট করতে চাচ্ছিলাম। চাই সহজ আর সস্তা কিছু খুজছিলাম।

    ধন্যবাদ তাহমিদ ভাই।

    1. তাহমিদ বোরহান Post author Reply

      আমি ওদের শেয়ার্ড হোস্টিং সার্ভার পর্যবেক্ষণ করেছি, সাইট হোস্ট করে কতিপয় টেস্ট করেছি তারপরেই কিন্তু বিস্তারিত রিভিউ পাবলিশ করেছিলাম। আপনি যেটা অভিযোগ করলেন, আমি চেক করে দেখলাম আর আমার কানেকশন/সিস্টেম থেকে আমি কিন্তু সাধারণ স্পীডেই ওপেন করতে পেরেছি এক্সেলনোড হোমপেজ।

      তবে মিথ্যা বলবো না, আমাকে আরো দুই একজন এই ব্যাপারে জানান, যে এক্সেলনোড হোমপেজ স্লো লোড নিচ্ছিল, আমি সাথে সাথে অ্যাডমিনের সাথে কন্টাক্ট করি, তিনি জানান তাদের সে সময় ডিডস অ্যাটাক সামলাতে হচ্ছিল, তাই সার্ভার খানিকটা স্লো ছিল, তবে সেটা সর্বদা থাকে না। আর একটি ব্যাপার আপনাকে পরিষ্কার করি, সেটা হচ্ছে এক্সেলনোড মেইন সাইট আর আপনি হোস্ট কেনার পরে যে সার্ভার পাবেন দুইটা সম্পূর্ণ আলাদা যায়গা, সুতরাং আপনার কাছে খানিকটা হোমপেজ স্লো মনে হলেও সেটা আপনার হোস্ট করা ওয়েবসাইটের সাথে কোন সমস্যা হবে না।

      তাছাড়া তাদের ২৪/৭ কন্টাক্ট নাম্বারে কল করতে পারেন, +8801943589447

      আর হ্যাঁ, আমাকে অন্ধবিশ্বাস করে হোস্টিং কিনতে হবেনা, বাজারে অনেক ভালোমানের কোম্পানি রয়েছে আপনি যাচায় করে তবেই কিনবেন। প্রথমে শেয়ার্ড হোস্টিং এ থাকলেও পরে অবশ্যই ক্লাউডে চলে আসতে হবে, না হলে পারফর্মেন্স পাবেন না!

      যেকোনো প্রশ্নে অবশ্যই বিনা-দ্বিধায় কমেন্টটি রিপ্লাই করতে পারেন, ধন্যবাদ!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *