কম্পিউটিং

প্যাকেট লস কি? কিভাবে প্যাকেট লস ফিক্স করবেন? [ওয়্যারবিডি ফিক্স!]

2
প্যাকেট লস কি

সম্পূর্ণ ইন্টারনেট ডাটা প্যাকেট বা নেটওয়ার্ক প্যাকেট এর উপর নির্ভরশীল। যদি আপনার ইন্টারনেট বা নেটওয়ার্ক কানেকশন স্লো কাজ করে সেক্ষেত্রে সবার প্রথমে প্যাকেট লস হচ্ছে কিনা সেটা চেক করায় আদর্শ হবে। নেটওয়ার্কের মাধ্যমে ডাটা ট্রান্সমিট করার সময় যদি তথ্য লস হয় সেক্ষেত্রে একে প্যাকেট লস বলা হয় — যদিও আর্টিকেলের নিচের অংশে প্যাকেট লস নিয়ে আরো বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

যেকোনো নেটওয়ার্কে সেটা লোকাল বা রিমোট; প্যাকেট লস আপনার নেটওয়ার্ক কানেকশন অনেক দুর্বল করে দিতে পারে এবং আপনার নেটওয়ার্কিং সিস্টেম আর স্ট্যাবল থাকবে না। যদিও অনেক কারণে নেটওয়ার্ক স্লো হতে পারে, তবে প্যাকেট লস হচ্ছে কিনা সেটা চেক করা প্রথম ট্র্যাবলশুটিং হবে।

প্যাকেট লস কি?

যখনই নেটওয়ার্ক বা ব্যান্ডউইথ নিয়ে আলচনা করা হয় সেক্ষেত্রে প্রায়ই পাইপে পানি প্রবাহর সাথে এদের তুলনা করা হয়। যদিও ইন্টারনেট ডাটা পাইপে পানির মতো লাগাতার একই সাথে প্রবাহিত হয়না, ডাটা গুলো বিভক্ত হয়ে প্রবাহিত হয় এবং এই বিভক্ত হওয়া টুকরা গুলোকে ডাটা প্যাকেট বলা হয়। ইন্টারনেট কি এবং কিভাবে কাজ করে — এই আর্টিকেলটি থেকে সম্পূর্ণ ব্যাপারটি আরো পরিস্কার বুঝতে পারবেন।

ডাটা প্যাকেট গুলোকে একটি বইয়ের আলাদা আলাদা পাতার সাথে তুলনা করতে পারেন। ধরুন ইন্টারনেটের মাধ্যমে একটি ফিজিক্যাল বই সেন্ড করছেন, সেক্ষেত্রে গোটা বইটি একবারে নেটওয়ার্ক নিয়ে না গিয়ে একেটা করে পাতা সেন্ড হবে এবং প্রত্যেকটি পাতাতে তথ্য থাকবে কোনটার পরে কোনটা জোরা লাগবে। যখন সকল পাতা গুলো নেটওয়ার্কের আরেক প্রান্তে চলে যাবে এবং ঠিকঠাক অনুসারে জোরা লাগবে, ঠিক বইটি সম্পূর্ণ হয়ে যাবে।

কিন্তু কোন কারণে যদি কয়েকটি পাতা না পৌছাতে পারে তাহলে কিন্তু বইটি ঠিকঠাক জোরা লাগানো সম্ভব হয়ে উঠবে না। এভাবেই প্যাকেট লস কোন ডাটাকে ধ্বংস করে দিতে পারে। তাছাড়া একেকটি প্যাকেট নিজেও মিস হয়ে যেতে পারে, ধ্বংস হতে পারে, বা অসম্পূর্ণ ভাবে থাকতে পারে। — সকল ক্ষেত্রেই কিন্তু প্যাকেট গুলো অযোগ্য হয় এবং ডাটা করাপ্ট করে দেয়। ডাটা প্যাকেট হারিয়ে গেলে আবার নতুন প্যাকেট সেন্ড করে সেটা ফিক্স করা হয়।

সকল নেটওয়ার্কেই একটু আধটু ডাটা লস থাকেই, একটি ফুল ফাংশনাল নেটওয়ার্ক সিস্টেমে প্যাকেট লস অনেক কম হয়ে থাকে, যেটা নেটওয়ার্কের পারফর্মেন্স তেমন খারাপ করতে পারে না। কিন্তু কোন কারণে যদি আপনার নেটওয়ার্কে হাই লেভেলের প্যাকেট লস শুরু হয় সেক্ষেত্রে অবশ্যই ট্র্যাবলশুটিং করে সমস্যা খুঁজে বের করতে হবে এবং ফিক্স করতে হবে। যদি পানির পাইপের উদাহরণ নেওয়া হয়, অবশ্যই পাইপে লিক হয়ে গেলে পানির প্রবাহ স্লো হয়ে যাবে, তাই অবশ্যই পাইপ লিক ফিক্স করতে হবে, রাইট?

প্যাকেট লস হওয়ার কারণ

সত্যি বলতে অনেক কারণেই প্যাকেট লস হতে পারে, তবে সঠিক কারণটি খুঁজে বের করতে হবে এবং ফিক্স করতে হবে। এটা সত্যিই অনেক বড় সমস্যা, নেটওয়ার্ক পারফর্মেন্স খারাপ হয়ে গেলে অনেক বড় বড় বিজনেসের সমস্যা হয়ে দাঁড়াতে পারে। তবে সঠিক কারণ গুলো জানা থাকলে দ্রুতই হয়তো ফিক্স করতে সক্ষম হতে পারবেন।

প্যাকেট লস হওয়ার কারণ

  • পর্যাপ্ত ব্যান্ডউইথ না থাকলে; আপনার কানেকশন এবং ডিভাইজ গুলো ঠিকঠাক মতো হ্যান্ডেল করতে যতোটুকু ব্যান্ডউইথ প্রয়োজনীয় তা না থাকলে প্যাকেট লস ঘটতে পারে। অনেক সময় বেশি ট্র্যাফিক জনিত কারণে বা নেটওয়ার্কের যদি ম্যাক্সিমাম লিমিট রিচ করে সেক্ষেত্রে প্যাকেট লস হতে পারে। অনেক ডিভাইজ কানেক্টেড থাকলেও এই সমস্যা ঘটে থাকে। তবে খুশির খবর হচ্ছে বর্তমানের অ্যাপলিকেশন গুলো হারিয়ে যাওয়া প্যাকেট গুলোকে আবার রিসেন্ড করতে পারে স্বয়ংক্রিয় ভাবে।
  • সফটওয়্যার বাগ; দুনিয়ার কোন সফটওয়্যারই বাগলেস নয়, সকল সফটওয়্যারে ত্রুটি রয়েছে। আপনার নেটওয়ার্কিং ডিভাইজের ফার্মওয়্যার এ বাগ থাকতে পারে ফলে প্যাকেট লস সমস্যা তৈরি করতে পারে। সফটওয়্যার জনিত সমস্যা ঘটলে আপনার তেমন বেশি কিছু করার থাকে না। আপনাকে অবশ্যই আপডেটের জন্য অপেক্ষা করতে হবে, কেননা সফটওয়্যার প্যাচ ছাড়া এটা ফিক্স হবে না। তবে অনেক সময় সিস্টেম রিবুট করেও অনেক সমস্যা ফিক্স করা যেতে পারে।
  • হার্ডওয়্যার সমস্যা; আপনার নেটওয়ার্কে থাকা যেকোনো হার্ডওয়্যার প্যাকেট লসের প্রধান কারণ হতে পারে। হতে পারে আপনার রাউটার, নেটওয়ার্ক সুইচ বা মডেম এমনকি ফায়ারওয়াল পর্যন্ত ত্রুটি যুক্ত হয়ে রয়েছে। অনেক সময় ডিভাইজ গুলো ওভারলোড হওয়ার জন্যও প্যাকেট লস করতে পারে। মনে করুণ কোন রেস্টুরেন্ট ওয়েটারের দুই হাত ভর্তি থালা-বাসন অলরেডিই রয়েছে এখন আবার নতুন থালা হাতে নিতে বললে তো পূর্বের দুই একটা থালা পরেই যাবে, রাইট?
  • ত্রুটি যুক্ত ক্যাবল; হ্যাঁ, ত্রুটি যুক্ত ইথারনেট ক্যাবল ও আপনার নেটওয়ার্কের প্যাকেট লসের জন্য দায়ী হতে পারে। যদি ক্যাবল ড্যামেজ হয়ে যায় বা প্রপারভাবে লাগানো না থাকে সেক্ষেত্রে ক্যাবলটি ব্যান্ডউইথ হ্যান্ডেল করতে পারবে না, ফলে ডাটা লস হবে।

প্যাকেট লস চেক

প্যাকেট লস — টার্মটি শুনতে অনেক হাইটেক মনে হলেও এটা চেক করার পদ্ধতি কিন্তু জলের মতোই সহজ। অনেক সফটওয়্যার অ্যাপ্লিকেশন রয়েছে সেগুলোকে ইউজ করে প্যাকেট লস চেক করতে পারেন। অনেক তৃতীয়পক্ষ সফটওয়্যার রয়েছে যারা অনেক অ্যাডভান্স রিপোর্ট প্রদান করতে সক্ষম, তবে আপনার কম্পিউটারের ডিফল্ট কম্যান্ড প্রম্পট ইউজ করেও এটা চেক করা যেতে পারে।

আপনার নেটওয়ার্কে কানেক্ট থাকা ডিভাইজ গুলোর মধ্যে পিং করেই আপনি সহজেই প্যাকেট লস বুঝতে পারবেন। তবে ওয়্যারসার্ক ইউজ করে আরো বিস্তারিত রিপোর্ট পাওয়া যেতে পারে।

উইন্ডোজ কম্পিউটারে চেকিং করার জন্য প্রথমে কম্যান্ড প্রম্পট উইন্ডো ওপেন করুণ এবং রাউটার টার্গেট করে পিং কম্যান্ড ব্যবহার করুণ, উদাহরণ সরূপ মনে করুণ আপনার রাউটারের আইপি অ্যাড্রেস; 127.0.0.1 — তাহলে নিচের মতো করে কম্যান্ড প্রবেশ করান!

ping 127.0.0.1 -t

অথবা ম্যাকের জন্য টার্মিনাল ওপেন করুণ এবং নিচের কম্যান্ড লাইনটি ব্যবহার করুণ!

ping 127.0.0.1

এবার পিং কম্যান্ড চলতে থাকবে, অন্তত ১০টি রেজাল্ট আসার পরে CTRL+C কী প্রেস করে স্টপ করে দিন। এবার রেজাল্টের দিকে লক্ষ্য করুণ, কোন প্রকারের প্যাকেট লস হলে আপনি বুঝতেই পারবেন, কেননা উল্লেখ্য করায় থাকবে। যদি সবকিছু ঠিকঠাক থাকে তাহলে ০% প্যাকেট লস শো করবে।

--- 127.0.0.1 ping statistics ---
27 packets transmitted, 27 packets received, 0.0% packet loss
round-trip min/avg/max/stddev = 1.820/8.351/72.343/14.186 ms

ব্যাস! কাহিনী শেষ!

সমস্যা খুঁজে বের করুণ

যদি রেজাল্ট থেকে প্যাকেট লস হচ্ছে দেখতে পান, সেক্ষেত্রে অবশ্যই সমস্যা খুঁজে বের করতে হবে। প্রথমত গোঁড়া থেকে সমস্যা খোঁজার চেষ্টা করায় ভালো। আগে লক্ষ্য করে দেখুন আপনার ক্যাবলের কোন কাঁটা ছেড়া অংশ রয়েছে কিনা, যেটা সহজেই খালি চোখে বোঝা সম্ভব। যদি ক্যাবল পরিবর্তন করে সমস্যা ঠিক হয়ে যায় তাহলে তো লেটা চুকেই গেলো, কি বলেন?

দ্বিতীয়ত চেক করে দেখুন, আপনার নেটওয়ার্ক ডিভাইজ গুলো পর্যাপ্ত ব্যান্ডউইথ হ্যান্ডেল করতে পারছে কিনা। অনেক সময় একটি ত্রুটি যুক্ত ডিভাইজ নেটওয়ার্ক থেকে সরিয়ে দিলে সম্পূর্ণ নেটওয়ার্কই ফিক্স হয়ে যেতে পারে। রাউটার, সুইচ সবই চেক করে বা পরিবর্তন করে দেখতে হবে। এরপরে বারবার টেস্ট চালাতে হবে, যতক্ষণ পর্যন্ত ০% লস শো না করছে।

প্যাকেট লস ফিক্স

দুইভাবে প্যাকেট লস ফিক্স করা যেতে পারে। প্রথমত আপনার চিহ্নিত করা সমস্যাজনিত হার্ডওয়্যার পরিবর্তন করতে হবে, প্রয়োজনে নতুন হার্ডওয়্যার ইন্সটল করতে হবে।

প্যাকেট লস ফিক্স

এবং দ্বিতীয়ত, সফটওয়্যার জনিত কারণে সমস্যা দেখা দিলে আপনাকে সফটওয়্যারটি প্যাচ করতে হবে। আর এটা একটু ট্রিকি ব্যাপার হতে পারে। কেননা আপনি কোন টাইপের কাস্টমার সে অনুসারে আপনাকে সাপোর্ট দেবে কোম্পানি। অনেক সময় তারা দ্রুত প্যাচ ফিক্স করে দিতে পারে বা অনেক সময় আপনাকে পাবলিক আপডেট রিলিজ করা পর্যন্ত দেরি করতে হতে পারে।

প্যাকেট লস নেটওয়ার্কে স্লো করে দিতে পারে, হ্যাঁ অবশ্যই অনেক কারণেই নেটওয়ার্ক স্লো হতে পারে তবে প্রথমে প্যাকেট লসের জন্য খোঁজাই ভালো হবে। প্যাকেট লস ফিক্স করার পরে বাকি প্রবলেম গুলোর দিকে এগোতে পারেন!


Images: Shutterstock.com

তাহমিদ বোরহান
প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? কিছুতেই কি আপনার মস্তিষ্কে পাল্লা পড়ছে না? তাহলে বন্ধু, আপনি এবার সঠিক জায়গায় এসেছেন—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি, যাতে সকলে সহজেই সকল টেক টার্ম গুলো বুঝতে পারে।

চাঁদের ও কি চাঁদ থাকতে পারে? কেন এমন দেখা যায় না? [ওয়্যারবিডি বিজ্ঞান স্পেশাল!]

Previous article

গুগল সার্চ করার সময় “Unusual Traffic” এরর আসছে? কিভাবে ফিক্স করবেন?

Next article

You may also like

2 Comments

  1. Thanks. 😁

Leave a reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *