বর্তমান তারিখ:19 October, 2019

বেস্ট ওয়েবসাইট : ৫ টি প্রয়োজনীয় এবং মজার ওয়েবসাইট! [পর্ব-৭]

যদিও ইন্টারনেট আর ওয়েব আলাদা জিনিস—তারপরেও ইন্টারনেটে আমরা বেশিরভাগ সময় ওয়েবেই কাটিয়ে থাকি। নানান কাজের জন্য রয়েছে নানান ওয়েবসাইট গুলো। দুনিয়ার এমন কিছু কিছু ওয়েব সাইট রয়েছে যেগুলো আপনি হয়তো কখনো কল্পনা পর্যন্ত করেন নি। যাই হোক, আজকের আর্টিকেলে এমন কিছু বেস্ট ওয়েবসাইট নিয়ে আলোচনা করবো যেগুলো আজব তো নয়, কিন্তু অনেক কাজের, প্রায় প্রতিনিয়ত বিভিন্ন কাজে আমি এই সাইট গুলোকে ব্যবহার করে থাকি।

আজকে কয়েকটি ভালো ওয়েবসাইট সম্পর্কে আলোচনা করবো যেগুলো আপনার কাজে আসতে পারে। এই  লিস্টের মধ্যে খুবই দরকারি ওয়েবসাইট থেকে শুরু করে শুধুমাত্র মজার জন্য তৈরী ওয়েবসাইট পর্যন্তও আছে. হতে পারে আপনাদের মধ্যে অনেকেই এই ওয়েবসাইটগুলোর ব্যাপারে আগে থেকেই জানেন এবং আগে থেকে ব্যাবহারও করে আসছেন। নিচে বলা ওয়েবসাইট গুলোর নাম যদি আপনি আগে থেকেই জেনে থাকেন বা আগেই ব্যাবহার করা থাকেন, তাহলে আপনি লেখাটি এড়িয়ে যেতে পারেন। আর যদি না জেনে থাকেন, তাহলে শেষ পর্যন্ত পড়ুন। আশা করি আজকের আর্টিকেল থেকে আপনি অন্তত ভালো কয়েকটি ওয়েবসাইটের নাম জানতে পারবেন যেগুলো আপনার ভবিষ্যতে দরকার হতে পারে।

আমাদের বেস্ট ওয়েবসাইট সিরিজের পূর্ববর্তী আর্টিকেলগুলো নিচে দেওয়া লিংক থেকে পড়তে পারেন যদি আপনি এখনো না পড়ে থাকেন-

→ বেস্ট ওয়েবসাইট : যেগুলো প্রত্যেকদিনই দরকার হতে পারে [পর্ব-১]

→ ৫টি বেস্ট উইন্ডোজ ফ্রী সফটওয়্যার ডাউনলোডিং ওয়েবসাইট [পর্ব-২]

→ বেস্ট ওয়েবসাইট : ৫ টি প্রয়োজনীয় এবং মজার ওয়েবসাইট! [পর্ব-৩]

→ বেস্ট ওয়েবসাইট : ৫ টি প্রয়োজনীয় এবং মজার ওয়েবসাইট! [পর্ব-৪]

→ বেস্ট ওয়েবসাইট : ৫ টি প্রয়োজনীয় এবং মজার ওয়েবসাইট! [পর্ব-৫]

→ বেস্ট ওয়েবসাইট : ৫ টি প্রয়োজনীয় এবং মজার ওয়েবসাইট! [পর্ব- ৬]


তো আর কথা না বাড়িয়ে, চলুন শুরু করা যাক এই সিরিজের সপ্তম পর্ব

Remove.bg

এই ওয়েবসাইটটির সাহায্যে আপনি যেকোনো ইমেজ থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড আলাদা করতে পারবেন। আপনি যদি ফটোশপের বিষয়ে আমার মতো NOOB হয়ে থাকেন, তাহলে এই ওয়েবসাইটটি আপনার জন্য অত্যন্ত হেল্পফুল হবে। অনেকসময় একটি ইমেজ থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড  রিমুভ করার জন্য অ্যাডোব ফটোশপের মতো অনেক ভারী ভারী প্রোগ্রাম ব্যাবহার করার দরকার পড়ে এবং Pen Tool বা এই ধরনের অন্যান্য অনেক টুলের কাজ না জানলে অ্যাকিউরেটভাবে ছবি থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড আলাদা করা সম্ভব হয়না। তবে এই ওয়েবসাইটটিতে আপনি জাস্ট যেকোনো ছবি আপলোড করেই এক ক্লিকে সেটার ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করতে পারবেন বা ব্যাকগ্রাউন্ড চেঞ্জ করতে পারবেন অথবা ট্রান্সপারেন্ট করতে পারবেন।

হ্যা, অবশ্যই এটা ফটোশপের মতো প্রোফেশনাল সফটওয়্যারগুলোর মতো একেবারে পারফেক্ট হবে না, তবে আপনি নিশ্চিতভাবেই অবাক হবেন এটা দেখে যে, এই ওয়েবসাইটটি এক ক্লিকে কতটা অ্যাকিউরেটভাবে ছবি থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করতে পারে। আপনার যদি কোন কারনে একটি ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড ট্রান্সপারেন্ট করার দরকার পড়ে, তাহলে ফটোশপ ওপেন করার আগে এই ওয়েবসাইটটিতে একবার আপলোড করে ট্রাই করতে পারেন। যদি রেজাল্ট আপনার আশানুরুপ হয়, তাহলে আপনার কমপক্ষে ৫-১০ মিনিট টাইম সেভ হয়ে যাবে। আবারো বলছি, এটা যথেষ্ট অ্যাকিউরেট হয়, তবে ফটোশপের মত ১০০% পারফেক্ট হয়না।

ভিজিট


AccountKiller

অনেকসময় আমাদের অনেক অনলাইন অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার দরকার পড়ে। হতে পারে কোন একটি ওয়েবসাইটে বা ওয়েব সার্ভিস বা সোশ্যাল নেটওয়ার্কে আপনার নিজের কোন একটি অ্যাকাউন্ট আছে যেটি আপনি আর ব্যাবহার করতে চান না। তাই আপনি আপনার অ্যাকাউন্টটি ডিলিট করে দিতে চান অথবা ডিজেবল করে দিতে চান। কিন্তু অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার প্রোসেস বিভিন্ন ওয়েবসাইটের ক্ষেত্রে বিভিন্নরকম হতে পারে। এমন অনেকসময় হয়ে থাকে যে, আমরা আমাদের একটি অনলাইন অ্যাকাউন্ট ডিলিট করতে চাচ্ছি বা ক্লোজ করতে চাচ্ছি, তবে কিছুতেই অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার প্রোসেসটি বা ডিলিট করার কাঙ্খিত লিংকটি খুঁজে পাচ্ছি না।

এমন অবস্থায় AccountKiller ওয়েবসাইটটি কাজে আসতে পারে। এই ওয়েবসাইটটিতে আপনি জনপ্রিয় সব ওয়েবসাইট এবং সোশ্যাল ওয়েবসাইটগুলোর অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার স্টেপ বাই স্টেপ গাইড পাবেন। আপনি কাঙ্ক্ষিত ওয়েবসাইটটর নাম সার্চ করেও সেটির অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার প্রোসেসগুলো দেখতে পারবেন এবং ফলো করতে পারবেন। সবসময় না হলেও, অনেক সময়ই এই ওয়েবসাইটটি অনেক বেশি দরকার হতে পারে আপনার।

ভিজিট


WhatTheFont!

এমন অনেকসময় হয়ে থাকে যে, আমরা অনলাইনে কোথাও বা ফেসবুকে বা যেকোনো জায়গায় কোন ইমেজে এমন কোন একটি ফন্ট দেখি যেটা আমাদের অনেক ভালো লাগে। তবে ফন্টের নাম না জানার কারনে আমরা গুগলের সার্চ করে বা অন্য কোনভাবেই ফন্টটির ttf ফাইল খুঁজে বের করতে পারিনা বা ডাউনলোড করতে পারি না। এমন অবস্থায় এই ওয়েবসাইটটি অত্যন্ত হেল্পফুল হতে পারে।

 

এই ওয়েবসাইটটিতে আপনি যেকোনো ইমেজ আপলোড করে ওই ইমেজটিতে থাকা টেক্সটগুলো কোন ফন্টে লেখা টা জানতে পারবেন। আপনাকে ফন্টটি সম্পর্কে কিছুই জানতে হবে না এবং এমনকি কোন হিন্টসও দিতে হবে না। জাস্ট ইমেজটি আপলোড করলেই আপনাকে রেজাল্টে জানিয়ে দেওয়া হবে যে এখানে কোন ফন্টটি ব্যাবহার করা হয়েছে। ফন্টটি যদি ফ্রি হয়, তাহলে আপনি সেটি ডাউনলোডও করতে পারবেন এখান থেকে। আর ফন্টটি পেইড হলে আপনি কিনেও নিতে পারবেন এখান থেকেই।

ভিজিট


PrintFriendly

এই ওয়েবসাইটটি মুলত প্রিন্ট করার কাজে সহযোগিতা করবে। অনেকসময় অনলাইনে কোন আর্টিকেল বা কোন কন্টেন্ট আমাদের কাছে প্রয়োজনীয় মনে হলে আমরা সেটা প্রিন্ট করে নিই। তবে সাধারনভাবে যেকোনো ওয়েবপেইজ প্রিন্ট করলে প্রিন্টেড ফাইলটির ভেতরে এমন অনেক আলাদা টেক্সট কন্টেন্ট এবং ইমেজ চলে আসতে পারে যেগুলো আমাদের কাছে অপ্রয়োজনীয় বা আমরা যে কন্টেন্টটিতে ফোকাস করতে চাই, সেটির সাথে সেগুলোর কোন সম্পর্ক নেই। এই ধরনের অপ্রয়োজনীয় কন্টেন্টগুলো শুধুমাত্র আমাদের প্রিন্টেড কন্টেন্টটিকে খারাপ করে দেয়।

এই ওয়েবসাইটটির সাহায্যে আপনি যেকোনো ওয়েবসাইটকে প্রিন্ট করার আগে সেটিকে প্রিন্টার-ফ্রেন্ডলি করে নিতে পারবেন। অর্থাৎ পেজ থেকে এক্সট্রা যেসব কন্টেন্ট আপনার দরকার নেই, সেগুলো বাদ দিতে পারবেন। তাছাড়া প্রিন্টার-ফ্রেন্ডলি ভার্সনটিতে টেক্সটগুলোও আরও একটু ভালোভাবে সাজানো থাকবে যাতে সেগুলো আরও সহজভাবে পড়া যায়। কোন ওয়েবপেইজ প্রিন্ট করার দরকার হলে পেজটির লিংক এই ওয়েবসাইটে ইন্টার করলেই সেটির একটি প্রিন্টার ফ্রেন্ডলি আউটপুট পাওয়া যাবে।

ভিজিট


HackerTyper

এবার একটি ইউজলেস বাট বেশ মজার একটি ওয়েবসাইট নিয়ে কথা বলা যাক। এই ওয়েবসাইটটি ওপেন করলেই আপনার সামনে একটি ব্ল্যাক স্ক্রিন আসবে, এবং আপনি এখানে আপনার কিবোর্ডে যাই টাইপ করুন না কেন, স্ক্রিনে সবুজ রঙের বিভিন্ন ধরনের র‍্যান্ডম কোডস স্ক্রল হবে, যেন আপনি একজন অনেক বড় হ্যাকার এবং একটি গুরুতর হ্যাকিং প্রোজেক্ট নিয়ে ব্যাস্ত আছেন।

অবশ্যই এই কোডগুলো শুধুমাত্র দেখার জন্যই। এগুলোর প্র্যাকটিক্যাল কোন ব্যাবহার নেই এবং এই সম্পূর্ণ ওয়েবসাইটটিই শুধুমাত্র মজা করার জন্যই তৈরি। এই ওয়েবসাইটটি ওপেন করে কিবোর্ডে র‍্যান্ডম কি প্রেস করে হয়ে যেতে পারেন একজন স্কিলড হ্যাকার এবং আপনার বন্ধুদেরকে দেখাতে পারেন, বাট শুধুমাত্র মজা করার জন্যই! এই ওয়েবসাইটটি কখনোই আপনাকে হ্যাকার হতে সাহায্য করবে না। স্ক্রিনে যা দেখবেন বা দেখাবেন, সবকিছুই ফেক!

ভিজিট

তো এই ছিল আরো পাঁচটি ইউজফুল এবং মজার ওয়েবসাইট। বেস্ট ওয়েবসাইট সিরিজের পরবর্তী আর্টিকেলে আরো এমন পাঁচটি ওয়েবসাইট নিয়ে আলোচনা করবো আশা করি। আজকের মতো এখানেই শেষ করছি। আশা করি আজকের আর্টিকেলটি আপনাদের ভালো লেগেছে। কোনো ধরণের প্রশ্ন বা মতামত থাকলে অবশ্যই কমেন্ট সেকশনে জানাবেন। আর আপনার কাছে যদি এমন ধরণের আরো ওয়েবসাইট এর কালেকশন থাকে, তাহলে সেগুলোর মধ্যে কয়েকটিও আমাদের সাথে শেয়ার করতে পারেন কমেন্ট সেকশনে।


WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

Image Credit : GaudiLab Via Shutterstock

অনেক ছোটবেলা থেকেই প্রযুক্তির প্রতি আকর্ষণ ছিলো এবং হয়তো সেই আকর্ষণটা আরো সাধারন দশ জনের থেকে একটু বেশি। নোকিয়ার বাটন ফোন থেকে শুরু করে ইনফিনিটি ডিসপ্লের বেজেললেস স্মার্টফোন, সবই আমার প্রিয়। জীবনে টেকনোলজি আমাকে যতটা ইম্প্রেস করেছে ততোটা অন্যকিছু কখনো করতে পারেনি। আর এই প্রযুক্তির প্রতি আগ্রহ থেকেই লেখালেখির শুরু.....

8 Comments

  1. রায়হান Reply

    Remove.bg এতো পারফেক্ট কাজ করে আগে জানা ছিল না। আমি জাস্ট থ হ্যে গেছি ভাই। ধন্যবাদ ভাই। আপনি না থাকলে এরকম মারাত্মক সাইট জানতে পেতাম না ভাই,

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *