WireBD

অতি অর্থশালী লোকেরা ইন্টারনেটকে যেভাবে ব্যাবহার করে

আপনি যদি মনে করে থাকেন যে, আপনি লেটেস্ট আইফোনটি কিনেছেন, লেটেস্ট ম্যাকবুকটি কিনেছেন বা লেটেস্ট মডেলের গাড়ীটি কিনেছেন মানেই আপনি অত্যন্ত সমৃদ্ধশালী লোকেদের তালিকায় পড়েন, তাহলে আপনি খুব ভুল ভেবেছেন। এসব প্রিমিয়াম ডিভাইস বা গাড়ী কিনে আপনি শুধুমাত্র আপনার বন্ধুমহলেই “বড়লোক্স” টাইটেলটি ।

কিন্তু পৃথিবীতে সত্যিকারেই যারা অত্যন্ত ধনী বা এতটাই ধনী যে, যাদের অর্থ সম্পদ নিজেরাও গুনে শেষ করতে পারবে না, “বড়লোক্স” নামে আখ্যায়িত না হলেও তাদের লাইফস্টাইল হয়ে থাকে যেকোনো অ্যাভারেজ মানুষের থেকে অনেক বেশি প্রিমিয়াম। আপনি হয়তো জানতেন না যে, তারা ইন্টারনেটকেও আমাদের থেকে অনেক আলাদাভাবে ব্যাবহার করে। তারা এমন অনেক ওয়েবসাইট বা ওয়েব সার্ভিস ব্যাবহার করে, যেগুলো আমরা সাধারন মানুষরা চিনিও না। আজকে আলোচনা করতে চলেছি এসব অত্যন্ত ধনী লোকেরা কিভাবে ইন্টারনেটকে ব্যাবহার করে থাকে।

JamesEdition

এটা হচ্ছে মিলিয়নিয়ার এবং বিলিয়নিয়ারদের অ্যামাজন। কোটিপতি লোকেরা যেসব অনলাইন শপ ইউজ করে তাদের মধ্যে অন্যতম একটি হচ্ছে এই JamesEdition। এটি একটি আন্তর্জাতিক লাক্সারি মার্কেটপ্লেস যেখানে আপনি সবধরনের লাক্সারি এবং প্রিমিয়াম জিনিস পাবেন। বাড়ি-ঘর, প্রোপার্টি থেকে শুরু করে লাক্সারি গাড়ী, প্রাইভেট জেট প্লেন, ইয়ট, হেলিকপ্টার সবকিছুই আছে। এই অনলাইন শপটি থেকে মুলত মানুষ ২০ মিলিয়ন ডলারের প্রাইভেট জেট থেকে শুরু করে ১৬ মিলিয়ন ডলারের ইয়টও কিনতে পারে। এছাড়া এখানে আগেকার যুগের ভিন্টেজ গাড়ী, ওয়াচ ইত্যাদিও পাওয়া যায় যেগুলো একজন মধ্যবিত্ত পরিবারের লোক শুধুমাত্র স্বপ্নেই দেখতে পারে।

শুধু তাই নয়, এই অনলাইন স্টোরে একটি এক্সট্রা অরডিনারি সেকশনও আছে, যেখানে সেল করা হয় বিভিন্ন ধরনের আজব লাক্সারি প্রোডাক্টস যেগুলোর আসলে কোনোই প্রয়োজনীয়তা নেই। যেমন- এই এক্সক্লুসিভ সেকশনে আপনি অনেকগুলো AK-47 দ্বারা তৈরি সম্পূর্ণ একটি চেয়ার কিনতে পারবেন যদি আপনি কিনতে চান। বুঝতেই পারছেন, এই ওয়েবসাইটটি এবং বিশেষ করে ওয়েবসাইটের এই সেকশনটি শুধুমাত্র তাদের জন্য যারা অর্থ ব্যায় করার রাস্তা খুঁজে পায় না। আপনার বা আমার এই ওয়েবসাইটটিতে কোনই কাজ নেই। তবে যদি তাদের প্রোডাক্টগুলো ঘুরে দেখতে চান, তাহলে তাদের ওয়েবসাইটটি একবার ঘুরে আসতেই পারেন।

ভিজিট


RichKids

আমরা সাধারন মানুষেরা ফটো বেজড সোশ্যাল মিডিয়া হিসেবে ইন্সটাগ্রাম ব্যাবহার করি এবং এটাই পছন্দ করি। কারন, এটা ফ্রি এবং এটা ছবি শেয়ার করার জন্য অন্যতম বেস্ট একটি সোশ্যাল প্লাটফর্ম। কিন্তু অতি অর্থশালী লোকেরা ফ্রি জিনিস ব্যাবহার করে না। কারন একটাই, এটা ফ্রি। তাই ইন্সটাগ্রামের পরিবর্তে তারা যেটি ব্যাবহার করে, তা হচ্ছে RichKids। নাম শুনেই বুঝতে পারছেন যে এটা শুধুমাত্র অর্থশালীদের জন্যই তৈরি। Richkids নিজেদেরকে পৃথিবীর সবথেকে এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল নেটওয়ার্ক বলে দাবী করে থাকে।

RichKids ওয়েবসাইটটিতে ঢুকলে আপনি দেখবেন ইন্সটাগ্রামের মতো বিভিন্ন র‍্যান্ডম “রিচ কিডস”-দের বিভিন্ন রকম ছবি যার সবগুলোতেই তারা দেখাতে চেষ্টা করছে যে তারা কতোটা অর্থশালী এবং তাদের লাইফ আপনার বা আমার থেকে কতগুন বেটার। এখানে আপনি শুধু অর্থসম্পদের শো অফই দেখতে পারবেন। আপনি একজন আনরেজিস্টারড মেম্বার হিসেবে সেখানে শুধুমাত্র অর্থশালীদের পোস্ট করা ছবিগুলো দেখা ছাড়া আর কিছুই করতে পারবেন না। Richkids এর মেম্বারশিপ নিতে হলে আপনাকে প্রতি মাসে খরচ করতে হবে প্রায় ১১২৬ ডলার যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ৯৫ হাজার টাকা। বুঝতেই পারছেন, এই সোশ্যাল প্লাটফর্মটিও শুধুমাত্র তাদের জন্য যারা অর্থ ব্যায় করার রাস্তা খুঁজে পায় না। যদি দেখতে চান এসব ” রিচ কিডস”-দের লাইফ আপনার এবং আমার থেকে কতটা লাক্সারিয়াস, তাহলে ঘুরে আসতে পারেন RichKids ওয়েবসাইটটি থেকে।

ভিজিট


LUXY

এটা হচ্ছে অতিরিক্ত অর্থশালী লোকেদের Tinder কিংবা Badoo। আপনি যদি কখনো কোন ডেটিং ফোকাসড অ্যাপস বা সোশ্যাল প্লাটফর্ম ব্যাবহার করে থাকেন (যেমন- Tinder), তাহলে আপনি বুঝবেন এটা কি ধরনের সোশ্যাল প্লাটফর্ম। আমাদের মতো সাধারন মানুষেরা ডেটিংস অ্যাপস হিসেবে Tinder বা Badoo ব্যাবহার করলেও  অতিরিক্ত ধনী লোকেরা এসব ফ্রি অ্যাপসের ধারেকাছেও যান না। LUXY নামের এই ডেটিং ওয়েবসাইটটির ৪১% এরও বেশি ইউজারের প্রত্যেকের মাসিক আয় ১ মিলিয়ন ডলারেরও বেশি। আর এইজন্যই LUXY দাবী করে যে, তারা এই পৃথিবীর সবথেকে লাক্সারিয়াস ডেটিং ওয়েবসাইট।

LUXY ডেটিং ওয়েবসাইটটি অর্থসম্পদকে এতটাই গুরুত্ব দেয় যে, এখানে একটি ডেডিকেটেড ডিসকভার ফিচার আছে, যার নাম Find Millionaires Nearby। LUXY আপনার ছবি এবং আপনার ইনকাম দুটি ভ্যারিফাই করে এবং আপনি যদি তাদের রিকয়ারমেন্টস অনুযায়ী অর্থশালী না হন, তাহলে তারা আপনাকে সেখানে মেম্বারশিপ দেবে না। যদি এইটুকু শুনেই অবাক হন, তাহলে আরও শুনুন, LUXY এর রিসেন্ট একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, তারা ৪০,০০০ এরও বেশি ইউজারের মেম্বারশিপ ক্যানসিল করে দিয়েছে শুধুমাত্র দেখতে খুব বেশি ভালো না হওয়ার কারনে। আর এখানেই অতি অর্থশালী লোকেরা অনলাইন রিলেশনশিপ এবং জীবনসঙ্গী খুঁজে থাকেন।

ভিজিট


Quintessentially

এটি একট লাক্সারি লাইফস্টাইল গ্রুপ যেটি অর্থের বিনিময়ে আপনার যেকোনো ধরনের কাজ করে দেবে। অবশ্যই কোন অন্যায় কাজ বা কোন ক্রাইম করতে আপনাকে সাহায্য করবে না, জাস্ট আপনার জন্য যেকোনো ইভেন্ট ম্যানেজ করে দেবে, যতটা তাদের সাধ্যের মধ্যে আছে। Quintessentially একবার তাদের একজন ক্লায়েন্টের জন্য সিডনির হারবর ব্রিজ ক্লোজ করে দিয়েছিলো যাতে তাদের ক্লায়েন্ট তার প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিতে পারে সিডনির ওই ব্রিজটির ওপরে দাঁড়িয়ে। এছাড়া Quintessentially একবার তাদের এক অর্থশালী ক্লায়েন্টের জন্য ৩০০ জন লোকের একটি পার্টি অ্যারেঞ্জ করেছিলো এবং এই পার্টিটি হয়েছিলো মিশরের পিরামিডের ওপরে।

এই ধরনের অনেক ধরনের লাক্সারিয়াস ইভেন্ট ম্যনেজ করতে তারা সাহায্য করে থাকে অর্থশালী ব্যক্তিদেরকে যতক্ষন পর্যন্ত তারা Quintessentially কে এসব কাজের জন্য অত্যন্ত মোটা  অংকের পেমেন্ট দিতে পারছে। আপনি তাদের কাছে যাই চান না কেন, তারা সবকিছুই ম্যানেজ করে দিতে পারবে যতক্ষন পর্যন্ত আপনি তার জন্য বিপুল পরিমান অর্থ খরচ করতে পারছেন এবং সেটা তাদের সাধ্যের মধ্যে আছে এবং মোস্ট ইম্পরট্যান্টলি, যতক্ষন না পর্যন্ত সেটা কোন ধরনের ক্রাইমের পর্যায়ে পড়ছে।

ভিজিট


Bookmycharters

এটাকে বলতে পারেন অতি অর্থশালী লোকেদের অনলাইন রেন্টাল সার্ভিস। অনেকটা কার রেন্টাল সার্ভিসগুলোর মতো। কিন্তু এখানে অর্থশালী লোকেরা কিন্তু আমাদের মতো সাধারন গাড়ী রেন্ট করেনা বা কোন সাধারন ফ্ল্যাট রেন্ট করেনা। এখানে যেসব বুক করা হয় বা ভাড়া নেওয়া হয় সেগুলো হচ্ছে প্রাইভেট জেট, প্রাইভেট ইয়ট, প্রাইভেট হেলিকপ্টার ইত্যাদি লাক্সারিয়াস যানবাহন। এখানে আপনি নিজের ইচ্ছামত যা ইচ্ছা তাই রেন্ট করতে পারবেন এবং সেগুলো যেখানে ইচ্ছা সেখানেই যাওয়ার কাজে ব্যবহার করতে পারবেন যতক্ষন আপনার সেখানে যাওয়ার পারমিশন আছে।

আর হ্যা, এসব যানবাহনের রেন্টাল রেট যে অত্যন্ত মোটা অংকের টাকা হবে, তা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা। তবে এটির সার্ভিস এখনো পর্যন্ত শুধুমাত্র ইন্ডিয়ান রিজিয়নেই এভেইলেবল। উদাহরনস্বরূপ, আপনি চাইলে কোলকাতা থেকে মুম্বাই পর্যন্ত একটি প্রাইভেট জেট বুক করতে পারবেন এখানে যার ভাড়া আপনাকে বহন করতে হবে প্রায় ১২ লক্ষ ইন্ডিয়ান রুপি।

ভিজিট

এই ছিলো কয়েকটি ওয়েবসাইট এবং ওয়েব সার্ভিস যেগুলো শুধুমাত্র অতি অর্থশালী লোকেরাই ব্যাবহার করে। মধ্যবিত্ত এবং নিম্নবিত্ত মানুষের জন্য এসব ওয়েবসাইট অ্যাক্টিভলি ব্যাবহার করা একটি আকাশ- কুসুম কল্পনা ছাড়া আর কিছুই না। ধনী লোকেরা যেভাবে ইন্টারনেটকে ব্যাবহার করে- এটা বলার কারন হচ্ছে, শুধুমাত্র এই ওয়েবসাইটগুলোই নয়, এমন আরও অনেক অনেক ওয়েবসাইট এবং ওয়েব সার্ভিস আছে যেগুলো আমরা চিনিও না, শুধুমাত্র এই “রিচ কিডস”-রাই চেনে এবং নিয়মিত ব্যাবহার করে। এগুলো শুধুমাত্র কয়েকটি উদাহরন ছিলো। এইজন্যেই তাদের ইন্টারনেট এবং মধ্যবিত্ত মানুষের ইন্টারনেট, দুটি আলাদা জগতের মতো!

সিয়াম একান্ত

অনেক ছোটবেলা থেকেই প্রযুক্তির প্রতি আকর্ষণ ছিলো এবং হয়তো সেই আকর্ষণটা আরো সাধারন দশ জনের থেকে একটু বেশি। নোকিয়ার বাটন ফোন থেকে শুরু করে ইনফিনিটি ডিসপ্লের বেজেললেস স্মার্টফোন, সবই আমার প্রিয়। জীবনে টেকনোলজি আমাকে যতটা ইম্প্রেস করেছে ততোটা অন্যকিছু কখনো করতে পারেনি। আর এই প্রযুক্তির প্রতি আগ্রহ থেকেই লেখালেখির শুরু.....

11 comments

সোশ্যাল মিডিয়া

লজ্জা পাবেন না, সোশ্যাল মিডিয়া গুলোতে টেকহাবসের সাথে যুক্ত হয়ে সকল আপডেট গুলো সবার আগে পান!