WireBD

টেক রাউন্ডআপ ৩ : প্রযুক্তির দুনিয়ায় ঘটে যাওয়া সবকিছু! (সেপ্টেম্বর ২০১৮)

টেক রাউন্ডআপ এর তৃতীয় পর্বে সবাইকে জানাচ্ছি স্বাগতম। আপনারা ইতিমধ্যেই জেনে থাকবেন যে কেবলমাত্র টেক নিউজ তথা প্রযুক্তি নিউজ কভার করার জন্য  ওয়্যারবিডি নিউজ নামের আলাদা একটি ওয়েবসাইট আছে। আপনি প্রতিদিনের শুধুমাত্র টেক নিউজগুলোর ইনস্ট্যান্ট আপডেট পাওয়ার জন্য ওয়েবসাইটটি ভিজিট করতে পারেন। আর ওয়্যারবিডিের এই টেক রাউন্ডআপ সিরিজটি প্রত্যেক মাসে একবার করে করা হবে শুধুমাত্র সেই মাসের বা সেই সপ্তাহের গুরুত্বপূর্ণ প্রযুক্তি সম্পর্কিত কিছু নিউজ বা সংবাদ কভার করার জন্য।

এবারের টেক রাউন্ডআপে থাকছে…… 

PUBG মোবাইলে আসলো নতুন আপডেট

জনপ্রিয় ব্যাটল রয়্যাল গেম PUBG এর মোবাইল সংষ্করণে চলে এসেছে নতুন আপডেট। এই আপডেটে মোবাইল সংষ্করণের জন্য প্রথম বার নিয়ে আসা হলো Sanhok ম্যাপ, Musle গাড়ি, বুলেটপ্রুফ UAZ সহ আরো অনেক কিছুই। এছাড়াও নতুন এই আপডেটে হ্যাকার এবং চিটারদের বিরুদ্ধে নতুন ফিচার আনা হয়েছে। এবার পিসি সংস্করণের Flare Gun টিও এবার পাবজির মোবাইল সংস্করণে পাওয়া যাবে। অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস ডিভাইস ব্যবহারকারীরা এখন PUBG এর 0.8.0 সংস্করণে আপগ্রেড করে নিতে পারবেন।

টেক রাউন্ডআপ

উল্লেখ্য যে এর আগে Sanhok মিনি ম্যাপটি শুধুমাত্র PUBG  এর পিসি এবং এক্সবক্স সংষ্করণেই পাওয়া যেত। Miramar এবং Eragnel ম্যাপদুটির তুলনায় PUBG এর এই নতুন Sanhok ম্যাপটি আকারে অনেকটাই ছোট। তাই PUBG প্লেয়ারদের মতে ইন্টেন্স ফাইটিং এক্সপেরিয়েন্সের জন্য বেস্ট এই Sanhok ম্যাপটি। ম্যাপটিতে প্লেয়াররা সাউথ ইস্ট এশিয়ার একটি জঙ্গলে খেলতে পারবে। ম্যাপটির সাইজ হচ্ছে 4.4×4.4 কিলোমিটার যা গেমটির অনান্য ম্যাপের ৪ ভাগের ১ ভাগ মাত্র। ছোট ম্যাপ হওয়ায় প্লেয়ারদেরকে এবার খুব দ্রুত রিসোর্স খুঁজতে হবে এবং অনান্য প্লেয়ারদের সাথে অন্য ম্যাপের তুলনায় বেশ দ্রতুই যুদ্ধ করতে হবে।

অ্যাপলের নতুন প্রোডাক্ট অ্যানাউন্সমেন্ট

টেক জায়ান্ট অ্যাপল সম্প্রতি নতুন তিনটি আইফোন মডেলকে উন্মোচন করেছে। অর্থ্যৎ এ বছরের (২০১৮) জন্য আমরা একই সাথে ৩টি নতুন আইফোন মডেল বাজারে পেতে যাচ্ছি। মডেলগুলো হচ্ছে iPhone XS, XS Max এবং XR। মডেলগুলোর দাম এবং স্পেসিফিকেশন ভিন্ন। XS Max মডেলটির মাধ্যমে সাম্প্রতিক সময়ের সবথেকে দামী আইফোন কনজিউমার মডেল বাজারে ছাড়বে অ্যাপল। আইফোন XS এবং XS Max মডেল দুটি সেপ্টেম্বর ২১ (২০১৮) তারিখ থেকে বিক্রি শুরু হবে অন্যদিকে তুলনামূলক কম মূল্যের এবং বেশি কালারফুল আইফোন XR এর বিক্রি শুরু হবে ২৬ অক্টোবর (২০১৮) থেকে।

আইফোন XR হচ্ছে এই নতুন তিনটি আইফোনের মধ্যে সবথেকে কমমূল্যের। এই মডেলটি ৬টি ভিন্ন রঙে বাজারে আসবে। রং ছাড়াও এই মডেলকে সহজে চেনা যাবে এর সিঙ্গেল লেন্স ক্যামেরার মাধ্যমে। এছাড়াও মডেলটি বাকি দুটি মডেলের (XS, XS Max) এর থেকেও ওজনে তুলনামূলক ভাবে হালকা। কারণ অন্য দুটি মডেলে অ্যালুমিনিয়াম ব্যবহার করা হলেও XR মডেলটিতে ব্যবহার করা হয়েছে স্টেইনল্যাস স্টিল। এছাড়াও পুরোনো প্রযুক্তির LCD স্ক্রিণ টেকনোলজি ব্যবহারের কারণে এই মডেলটির দামও তুলনামূলকভাবে কম। তবে ডিভাইসটিতে গত বছরের আইফোন এক্স এর ফেস আইডি ফিচারটি সহ বাকি অনেকগুলো ফিচার থাকায় iPhone XR মডেলটি এ বছরে তুলনামূলকভাবে বেশি বিক্রি হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।  XR মডেলটির দাম শুরু হবে ৭৪৯ মার্কিন ডলার দিয়ে।

টেক রাউন্ডআপ

অন্যদিকে iPhone XS এবং XS Max দুটো মডেলেই থাকবে ডুয়াল লেন্স ব্যাক ক্যামেরা সিস্টেম। তবে এই মডেলগুলোর দাম একটু বেশি এবং এগুলো দাম শুরু হবে ৯৯৯ (XS) এবং ১০৯৯ (XS Max) মার্কিন ডলার দিয়ে। এই মডেলগুলো গত বছরের iPhone X এর মতোই দেখতে কিন্তু iPhone XS Max ডিভাইসতে থাকবে সাড়ে ছয় ইঞ্চির বিশাল ডিসপ্লে। এছাড়াও সকল তিনটি মডেলে থাকবে মোবাইল ইন্ডাস্ট্রির সর্বপ্রথম 7nm CPU চিপ “A12 Bionic”। iPhone সিরিজের একদমই নতুন আর ইউনিক যে ফিচারটি এই দুটি মডেলে থাকবে সেটা হচ্ছে ডুয়েল সিম ফিচার! হ্যাঁ! এবার XS ও XS Max ডিভাইস দুটিতে আপনি ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ডুয়েল সিম চালাতে পারবেন। এদের মধ্যে একটি হচ্ছে ফিজিক্যাল ন্যানোসিম এবং আরেকটি হচ্ছে eSIM। তবে চীনের মার্কেটে এই আইফোনগুলোতে দুটি ফিজিক্যাল সিম কার্ড ব্যবহার করার সুযোগ থাকবে।

অন্যদিকে নতুন Zero-bezel ডিজাইন এবং বাটনকে haptic touch ফিচারের মাধ্যমে পরিবর্তন করে অ্যাপল তাদের নতুন Apple Watch 4 কেও উন্মোচন করেছেন। নতুন এই সিরিজে অ্যাপল ওয়াচের ফেস সাইজ 40mm থেকে 44mmতে আপগ্রেড করা হয়েছে। এই ওয়াচ সিরিজে আরো থাকবে নতুন Watch OS 5 আপডেট যেটির মাধ্যমে ব্যবহারকারীর স্বাস্থ্যের একটি ডিজিটাল গার্ডিয়ান হয়ে উঠবে এই ওয়াচ সিরিজটি। ইমারজের্ন্সি কল, Fall ডিটেকশন, বিল্ট ইন electrocardiogram (ECG) সহ বিভিন্ন ফিচার থাকবে এই সিরিজে। নতুন এই সিরিজের ওয়াচগুলোর দাম শুরু হবে ৪০০ মার্কিন ডলার থেকে।

আপকামিং OnePlus 6T এর রিউমরস

বিশ্বের টেক প্রেমীরা ওয়ানপ্লাস সিক্স ডিভাইস এর পরবর্তী আপগ্রেড OnePlus 6T ডিভাইসের উপর ব্যাপক আগ্রহ দেখাচ্ছে। তুলনামূলক কমদামে প্রিমিয়াম ফিচারের কারণেই এই ব্রান্ডটি বিশ্বের ব্যবহারকারীদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। আর আপকামিং এই ডিভাইসটির কিছু ফিচার সম্পর্কে কনফার্ম হওয়অ গিয়েছে।

OnePlus 6T ডিভাইসের পেছনে ট্রিপল লেন্স ক্যামেরা থাকবে, থাকবে স্ন্যাপড্রাগন ৮৪৫ প্রসেসর এবং ৬.৪ ইঞ্চির ডিসপ্লে থাকবে বলে কনফার্ম হওয়া গিয়েছে। এছাড়াও ডিভাইসটি দাম ৫৬৯ মার্কিন ডলার হতে পারে এবং ১৬ অক্টোবর (২০১৮) থেকে ডিভাইসটির বিক্রি শুরু হবে বলে গুজব রয়েছে। ৩টি লেন্সের ক্যামেরা যুক্ত Huawei P20 Pro এর দাম রয়েছে প্রায় ১১০০ মার্কিন ডলারের মতো সেখানে একই ফিচারের OnePlus 6T এর দাম যদি ৬০০ মার্কিন ডলারের মধ্যে থাকে তাহলে অবশ্যই প্রায় অর্ধেক দামেই ডিভাইসটি প্রিমিয়াম ফিচার আমাদেরকে উপহার দিতে পারবে।

টেক রাউন্ডআপ

এছাড়াও আরো কনফার্ম হওয়া ফিচারের মধ্যে রয়েছে ৬.৪ ইঞ্চির 2340×1080 AMOLED স্ক্রিণ যেখানে থাকবে ৯১.৬% স্ক্রিণ-টু-বডি রেশিও, ডিভাইসটির জিপিইউ হিসেবে থাকবে Adreno 630 । পেছনে তিনটি ক্যামেরা (20MP, 12MP এবং TOF 3D) এবং সামনে ক্যামেরায় থাকবে ২৫ মেগাপিক্সেলের লেন্স। ডিভাইসটিতে থাকবে ৬ গিগাবাইট এবং  ৮ গিগাবাইট র‌্যাম। স্টোরেজের দিক দিয়ে ডিভাইসটিতে আপনি পাবেন 64GB / 128GB / 256GB থেকে বেছে নেবার সুযোগ।

ডিভাইসটি অ্যান্ড্রয়েড ৯.০ Pie OS দিয়ে চলবে এবং ডিভাইসতে ওয়াচপ্লাস প্রথমবারের মতো in-display ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর দিবে বলে কনফার্ম হওয়া গিয়েছে। উল্লেখ্য যে এর আগে একমাত্র Vivo তাদের ডিভাইসে স্মার্টফোনের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো in-display ফিঙ্গারপ্রিন্ট এনেছিলো।

শাওমির নতুন স্মার্টওয়াচ

চাইনিজ স্মার্টফোন কোম্পানি শাওমি বিভিন্ন ছোটখাট ব্রান্ডগুলোকে অনেকদিন ধরেই আর্থিক এবং অনার্থিক ভাবে সাহায্য করে আসছে। এইসকল ব্রান্ডগুলোকে বলা হয় “ecosystem” ব্রান্ড। এদের মধ্যে একটি ব্রান্ড হচ্ছে Huami । আর শাওমির এই ecosystem ব্রান্ডটি সেপ্টেম্বর ১৭ (২০১৮) তারিখে নতুন স্মার্টওয়াচ উন্মোচন করতে যাচ্ছে। টুইটারের একটি টুইট থেকে এই উন্মোচনের দিনটি জানা যায়; এরই সাথে আরো জানা গিয়েছে যে স্মার্টওয়াচগুলো হলিউডের Avengers: Infinity War ছায়াছবিটির সংষ্করণে বানানো হয়েছে। বর্তমানে সাউথ ইস্ট এশিয়ার বাজারে এই ব্রান্ডের কয়েকটি স্মার্টওয়াচ রয়েছে; এগুলো হচ্ছে Amazfit Bip, Amazfit Stratos, Amazfit Cor এবং Amazfit Pace ।

বাংলাদেশে কার্যক্রম শুরু করবে অ্যামাজন এবং ওয়ালমার্ট

গ্লোবাল ই-কমার্স জায়ান্ট অ্যামাজন এবং ওয়ালমার্ট ২০২০ সালে বাংলাদেশে তাদের কার্যক্রম আনুষ্ঠানিক ভাবে শুরু করবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ই-কমার্স এসোসিয়েশন এর ভাইস প্রেসিডেন্ট রেজওয়ানুল হক জামি। তিনি আরো বলেন; বাংলাদেশে ওয়ালমার্টের অফিস রয়েছে এবং তারা গত দেড় বছর ধরে বাংলাদেশের উপর মার্কেটিং রিসার্চ করে আসছে। এবার ওয়ালমার্ট আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশে তাদের ব্যবসা শুরু করতে আগ্রহী হয়েছে। অন্যদিকে আমাজনের ব্যাপারে তিনি বলেন; সম্প্রতি আমাজনের একদল মুখপাত্র বাংলাদেশে এসেছিলেন এবং সরকারের প্রতিনিধিদের সাথে বৈঠক করে গিয়েছেন। বৈঠক থেকে জানা গিয়েছে আমাজন বাংলাদেশে ২০২০ সালে যাত্রা শুরু করবে বলে পরিকল্পনা রয়েছে।

উল্লেখ্য যে, চাইনিজ ই-কমার্স জায়ান্ট আলিবাবা ইতিমধ্যেই Daraz কে কিনে নিয়ে বাংলাদেশের মাকের্টে প্রবেশ করেছে। এ বছরের (২০১৮) মে মাসে Alibaba বাংলাদেশের ই-কমার্স কোম্পানি দারাজ গ্রুপ কে কিনে নিয়েছে।

এই ছিলো রিসেন্ট কয়েকদিনের কয়েকটি ইম্পরট্যান্ট টেক নিউজ যেগুলোতে আপনি ইন্টারেস্টেড হতে পারেন। এই ধরনের ইম্পরট্যান্ট টেক নিউজগুলোর ইনস্ট্যান্ট আপডেটস পেতে আমাদের নিউজ ওয়েবসাইট, ওয়্যারবিডি নিউজ যেকনোসময় ভিজিট করতে পারেন। আর ওয়্যারবিডিের এই নতুন সিরিজটি আপনার কাছে ভালো লাগছে কি না এবং এই সিরিজটি প্রত্যেক মাসেই চালু রাখা হোক, তা আপনি চান কিনা সে বিষয়ে নিচে কমেন্ট সেকশনে জানাতে ভুলবেন না!

ফাহাদ

যান্ত্রিক এই শহরে, ভিডিও গেমসের উপর নিজের সুখ খুঁজে পাই। যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে! কম্পিউটারকে আমার মতো করে আপন করে নিন দেখবেন আপনার আর কারো সাহায্যের প্রয়োজন হবে না।

1 comment

সোশ্যাল মিডিয়া

লজ্জা পাবেন না, সোশ্যাল মিডিয়া গুলোতে টেকহাবসের সাথে যুক্ত হয়ে সকল আপডেট গুলো সবার আগে পান!