WireBD

মৃত্যুর পরে যেভাবে আপনার গুগল অ্যাকাউন্ট ডিলিট করবেন

টাইটেলটি দেখে বেশ ঘাবড়ে গিয়েছেন নিশ্চই? অ্যাকাউন্ট ডিলিট করতে হলে তো আপনাকে বেঁচে থাকতে হবে, তাইনা? আপনি মৃত হলে কিভাবেই বা কোন অ্যাকাউন্ট ডিলিট করতে পারেন? তাছাড়া আরেকটা বড় প্রশ্ন হচ্ছে, আপনার মৃত্যুর পর আপনার গুগল অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার প্রয়োজনই বা কি? সেটা তো আপনি এমনিতেও আর ব্যাবহার করছেন না।

প্রয়োজন আছে। আপনি যদি হার্ডকোর গুগল সার্ভিস ইউজার হয়ে থাকেন, আপনার গুগল অ্যাকাউন্টে এমন অনেক পার্সোনাল ডেটা, পার্সোনাল ফাইলস, ফটোস এবং ইনফরমেশন আছে, যেগুলো আপনি চাইবেন না যে আপনার মৃত্যুর পরেও কেউ অ্যাক্সেস করুক। এইজন্যই হতে পারে আপনি চাইবেন আপনার মৃত্যুর পরে আপনার গুগল অ্যাকাউন্ট এবং অ্যাকাউন্টের সব ডেটা ডিলিট হয়ে যাক, যাতে সেটি অ্যাক্সেস করার ক্ষমতা আর কারোরই না থাকে। আপনার মৃত্যুর পরে কিভাবে আপনার গুগল অ্যাকাউন্ট ডিলিট করবেন সেটাই দেখাবো আজকে।

প্রথমেই বলছি, এটি করতে হয় গুগল অ্যাকাউন্টের একটি সেটিংস থেকে। কিভাবে করতে হয় সেটা যদি আপনি জেনে থাকেন, তাহলে এখানেই পড়া বাদ দিতে পারেন। আর যদি না জেনে থাকেন, তাহলে আপনাকে প্রথমে গুগলে লগইন করতে হবে আপনার অ্যাকাউন্টে। এরপরে আপনাকে আপনার অ্যাকাউন্ট ড্যাশবোর্ডে যেতে হবে এই লিংক থেকে- https:// myaccount.google.com। এখানে যেয়ে আপনার গুগল অ্যাকাউন্ট লগইন করলে আপনি নিচের মতো একটি পেজ দেখতে পাবেন। সেখান থেকে Personal info and Privacy এই অপশনে ক্লিক করবেন।

গুগল অ্যাকাউন্ট

এখানে ক্লিক করার পরে আপনাকে আপনার গুগল অ্যাকাউন্টের প্রাইভেসি সেটিংসে নিয়ে আসা হবে। এখান থেকে স্ক্রল করে একেবারে নিচে চলে আসলে আরেকটি অপশন পাবেন যার নাম Inactive account manager। এই অপশনটির কাজই মুলত আপনার মৃত্যুর পরে আপনার গুগল অ্যাকাউন্ট ডিলিট করা। এরপর এই অপশনটিতে আপনাকে ক্লিক করতে হবে।

গুগল অ্যাকাউন্ট

এবার এখানে এই সম্পূর্ণও প্রোসেসটি শুরু করার জন্য একটি Start বাটন পাবেন। এই Start বাটনটিতে ক্লিক করবেন।

গুগল অ্যাকাউন্ট

এরপর এখানে মুলত আপনাকে সেট করতে হবে যে ঠিক কতোদিন আপনার গুগল অ্যাকাউন্ট ইনঅ্যাক্টিভ থাকলে অ্যাকাউন্টটি ডিলিট হয়ে যাবে। এখানে আপনি ৩ মাস থেকে শুরু করে ১২ মাস পর্যন্ত টাইম সেট করতে পারবেন যে কতোদিন আপনার অ্যাকাউন্টটি ইনঅ্যাক্টিভ থাকলে সেটি ডিলিট হয়ে যাবে। এখানে আপনাকে একটি ফোন নাম্বারও সেট করতে হবে, অ্যাকাউন্ট ডিলিট হওয়ার এক মাস আগে যেখানে আপনাকে মেসেজ পাঠানো হবে ওয়ার্নিং দিয়ে।

যাতে আপনার মৃত্যুর আগে অন্য কোন কারনে যদি আপনি ওই সময় পর্যন্ত ইনঅ্যাক্টিভ থাকেন, তাহলে যেন আপনার অ্যাকাউন্টটি ডিলিট করা না হয়। এছাড়া এখানে আপনার ইমেইল অ্যাড্রেসটিও সিলেক্ট করতে হবে যাতে অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার এক মাস আগে গুগল আপনাকে এই ইমেইলে কন্টাক্ট করতে পারে। যদি আপনি সেসময় মৃত থাকেন এবং তারা এক মাসের মধ্যে কোন রিপ্লাই না পায়, তাহলে তারা আপনার গুগল অ্যাকাউন্টটি ডিলিট করে দেবে।

গুগল অ্যাকাউন্ট

Next ক্লিক করার পরে আপনাকে সিলেক্ট করতে হবে যে আপনার অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার সময় আর কাকে কাকে জানানো হবে এবং আপনি তাদের সাথে আপনার গুগল অ্যাকাউন্টের কি কি ডেটা শেয়ার করতে চান। Add Person অপশনে ক্লিক করে যাদের সাথে শেয়ার করতে চান, তাদের ইমেইল অ্যাড্রেস লিখে দেবেন। আপনি সর্বোচ্চ ১০ জনের ইমেইল অ্যাড্রেস অ্যাড করতে পারবেন এখানে।

গুগল অ্যাকাউন্ট

এরপর আপনাকে সিলেক্ট করতে হবে যে অ্যাড করা ইমেইল অ্যাড্রেসগুলোর সাথে আপনি কি কি ডেটা শেয়ার করতে চান। গুগলের সবগুলো সার্ভিসের লিস্ট থেকে আপনাকে টিক মার্ক দিয়ে সিলেক্ট করতে হবে যে কি কি ডেটা আপনি এদের সাথে শেয়ার করতে চান। যেমন এক্ষেত্রে আমি শুধু গুগল ফটোস সিলেক্ট করেছি।

গুগল অ্যাকাউন্ট

এরপর যাদের ইমেইল অ্যাড্রেস অ্যাড করেছেন, তাদের ফোন নাম্বারও অ্যাড করতে হবে যাতে গুগল তাদের সাথে টেক্সট মেসেজের মাধ্যমেও কন্টাক্ট করতে পারে। এবং আপনি চাইলে একটি পার্সোনাল মেসেজও অ্যাড করতে পারবেন যেই মেসেজটি তাদের কাছে যাবে যখন তাদের সাথে আপনার গুগল অ্যাকাউন্টের সিলেক্টেড ডেটাগুলো শেয়ার করা হবে। কন্টাক্ট করার পরে তাদের কাছে তিন মাস সময় থাকবে আপনার ডেটাগুলো ডাউনলোড করে নেওয়ার জন্য।

গুগল অ্যাকাউন্ট

এরপর নিচের AutoReply অপশনটি সিলেক্ট করে আপনি একটি কাস্টম মেসেজ সেট করতে পারবেন যেটি কেউ আপনার মৃত্যুর পর আপনার ইমেইল অ্যাড্রেসে মেইল পাঠালে রিপ্লাই হিসেবে পাবে। এটি করতেই হবে এমন কোন বাধ্যতা নেই, তবে যদি আপনি চান, তাহলে করতে পারেন।

গুগল অ্যাকাউন্ট

এরপর সবশেষে Yes, Delete my inactive Google Account অপশনটি অফ থেকে অন করে দেবেন এবং এরপর আপনি কি কি সেটিংস করেছেন সেগুলো একবার রিভিউ করার সুযোগ পাবেন Review বাটনে ক্লিক করে। আপনার কাজ মুলত এই পর্যন্তই শেষ। এরপর জাস্ট Review Plan অপশনে ক্লিক করে রিভিউ করে কনফার্ম করে দিলেই শেষ।

গুগল অ্যাকাউন্ট

এরপর আপনি যতদিন সময় সেট করেছেন ততদিন যদি আপনার গুগল অ্যাকাউন্টটি ইনঅ্যাক্টিভ থাকে, তাহলে তা আপনার সেট করা প্ল্যান অনুযায়ী স্বয়ংক্রিয়ভাবে ডিলিট হয়ে যাবে। গুগল অ্যাকাউন্টের সাথে আপনার সকল ইমেইল, ড্রাইভে সেভ করা ফাইলস, ফটোস, ইউটিউব ভিডিও, অ্যাডসেন্স সবকিছুই ডিলিট হয়ে যাবে পারমানেন্টলি। আর হ্যাঁ, আপনার মৃত্যুর আগে এটা ভুলে ডিলিট হয়ে যাওয়ার কোন উপায় নেই, যেহেতু আপনি এই দুনিয়া থেকে চলে না গেলে আপনার গুগল অ্যাকাউন্ট একবারে ১২ মাস ইনঅ্যাক্টিভ থাকবে না (সাধারনত)।

এই ছিলো সেই সেটিংসগুলো যার সাহায্যে আপনার মৃত্যুর পরও আপনি আপনার গুগল অ্যাকাউন্টটি ডিলিট করতে পারবেন। খুব দ্রুত যেন আপনার অ্যাকাউন্টে এই ফিচারটিকে অ্যাক্টিভ না হতে হয় এই আশা নিয়ে আজকের মতো এখানেই শেষ করছি। আশা করি আজকের আর্টিকেলটিও আপনাদের ভালো লেগেছে। কোন ধরনের প্রশ্ন বা মতামত থাকলে অবশ্যই কমেন্ট সেকশনে জানাবেন।

Image Credit : silvabom Via Shutterstock

 

সিয়াম একান্ত

অনেক ছোটবেলা থেকেই প্রযুক্তির প্রতি আকর্ষণ এবং প্রযুক্তিকে ভালোবাসি। জীবনে টেকনোলজি আমাকে যতটা ইম্প্রেস করেছে ততোটা অন্যকিছু কখনো করতে পারেনি। তাই পড়াশুনার পাশাপাশি প্রায় অধিকাংশ সময়ই প্রযুক্তি নিয়ে সময় কাটাই। আশা করি এখানে আপনাদেরকে প্রযুক্তি বিষয়ক ভালো কিছু আর্টিকেল উপহার দিতে পারব।

36 comments

সোশ্যাল মিডিয়া

লজ্জা পাবেন না, সোশ্যাল মিডিয়া গুলোতে টেকহাবসের সাথে যুক্ত হয়ে সকল আপডেট গুলো সবার আগে পান!