বর্তমান তারিখ:22 September, 2019

আপনার কি ফ্রি ভিপিএন সার্ভিস ব্যবহার করা উচিৎ? ফ্রি ভিপিএন কতোটা নিরাপদ?

অনলাইন জগতে আমরা অনেকেই ভিপিএন , প্রক্সি এসবের সাথে পরিচিত। নানাবিধ কাজে আমাদেরকে ভিপিএন ও প্রক্সি ব্যবহার করতে হয়। কান্ট্রি রেস্ট্রিকশন থেকে বাঁচার অন্যতম সহজ এবং কার্যকরী পন্থা হল কোন ভিপিএন সার্ভিস ব্যবহার করা। অনেক সময় অনেক অনলাইন সার্ভিস কিছু কিছু দেশ এর জন্য উপলব্ধ থাকে না; তখন আমরা ভিপিএন ব্যবহার করে সেই বাধাকে খুবই সহজেই কাটিয়ে উঠতে পারি। আর এক্ষেত্রে আমাদের প্রথম পছন্দ হল ফ্রি  ভিপিএন সার্ভিসগুলো !

আমরা সহজেই আমাদের স্মার্টফোন ডিভাইসে বা কম্পিউটারে ব্রাউজার এক্সটেনশন হিসেবে অনেক ফ্রি ভিপিএন সার্ভিস ব্যবহার করে থাকি। তবে একটা  কথা কি; এসব ফ্রি ভিপিএন এর  ব্যবহার করার ক্ষেত্রে আমরা যদিও বা কোন টাকা দিচ্ছি না বা ভিপিএন সার্ভিসকে কোন পে করছি না ; তবে পরোক্ষভাবে আমরা কিন্তু সেখানে আমাদের প্রাইভেসি এবং পার্সোনাল অনেক তথ্য তাদের দিয়ে দিচ্ছি, তাদের হাতে সপে দিচ্ছি।

আজকের আর্টিকেলে আমি ফ্রি ভিপিএন ব্যবহার করার ক্ষতিকর দিকগুলো তুলে ধরব , জানব আসলেই এসব ফ্রি ভিপিএন ব্যবহার করা আমাদের জন্য কতটা যুক্তিযুক্ত।

অনেকসময় আমাদের কান্ট্রি রেস্ট্রিকেটেড ওয়েবসাইট ভিজিট করার দরকার পরে; ঠিক তখনই আমাদেরকে নানান রকম ফ্রি ভিপিএন সার্ভিস ব্যবহার করতে দেখা যায় ; এটা বলতে গেলে হয়ত আমাদের অনেকের এক চিরাচলিত অভ্যাসে পরিণত হয়ে গিয়েছে। ব্যাপারটি আমাদের দেশে ব্যাপকভাবে হয়েছিল ঠিক যখন আমাদের দেশে সাধারন ভাবে ফেসবুক ব্রাউজ করা বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল। তবে অনেকে এখনও সাধারন মোবাইল ডাটা নেটওয়ার্কে ফ্রী ভিপিএন ব্যবহার করে থাকে নানান ১৮+ ওয়েবসাইট ভিজিট করার ক্ষেত্রে; যা আমাদের দেশে মোবাইল অপারেটর দ্বারা সরাসরি ভিজিট করা ব্যানড!

স্মার্টফোনে ফ্রি ভিপিএন আপ্লিকেশন গুলোর প্রভাব

বর্তমানে এসব ফ্রি ভিপিএন সবচেয়ে বেশি আন-প্রোফেসনাল রাস্তায় ব্যবহৃত হয় হাজার হাজার অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনে । গুগল প্লে স্টোরে প্রায় ২৫০ এরও বেশি নানারকম নামে অনেক ভিপিএন সার্ভিস রয়েছে ; আর প্রায়  এই সবগুলিই ফ্রি ভিপিএন কানেকশন প্রোভাইড করে থাকে। তবে সত্য কথা বলতে গেলে এসব এর ভেতর অনেক ভিপিএন সার্ভিস আপসই আপনার প্রাইভেসি এবং সিকিউরিটিকে অন্তর্ঘাত করতে পারে আপনার অজান্তেই! আস্ট্রেলিয়া কমনওয়েলথ সায়েন্টিফিক ও ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ অর্গানাইজেশন, ইউনিভার্সিটি অব নিউ সাউথ ওয়েলস এবং ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া মিলে সম্প্রতি সেসব মোবাইল অ্যাপলিকেশন এর অপর গবেষণা চালায়; যেসব মোবাইল অ্যাপলিকেশন বাবহারকারি দের গতিবিধি ট্র্যাক করে এবং মোবাইল ফোনকে নানানভাবে সংক্রমিত করে।

আর এই গবেষনার তালিকায় দিকে উঠে এসেছে বেশকিছু ভিপিএন অ্যাপলিকেশন গুলোর নাম। আর এই গবেষণায় যে ভয়ংকর ফলাফল বের হয়ে এসেছে তা সত্যি মোবাইল ভিপিএন ইউজারদের কাছে আতকে ওঠার মত! গবেষকরা পরীক্ষা করে দেখেছেন যে, ৭৫% ভিপিএন অ্যাপলিকেশন ইন্টারনেট জুড়ে ব্যবহারকারীর গতিবিধি ট্র্যাক করার জন্য নানা রকম থার্ড-পার্টি ট্র্যাকিং সফটওয়্যার ব্যবহার করে থাকে। এমনকি এদের মধ্যে ৮২% অ্যাপলিকেশন ব্যবহার কারীর নানারকম পার্সোনাল ডাটা যেমনঃ টেক্সট মেসেজ এবং ইউজার অ্যাকাউন্ট ইত্যাদির অ্যাক্সেস নিতে চেষ্টা করে।

আবার  আরও অধিকতর মন্দ জিনিস বা খারাপ অবস্থা হল, ৩৫ শতাংশ আপ্লিকেশন তো আপনার ডিভাইস এর ভেতর  নানারকম ম্যালওয়্যার এবং ম্যালিসিয়াস অ্যাডওয়্যার ইঞ্জেক্ট করে দেয়। আর ১৮% ভিপিএন সার্ভিস তো তাদের আসল কাজটাই করে না তা হল ‘ডাটা পারাপার এনক্রিপশন এর মাধ্যমে একটি প্রাইভেট টানেল দিয়ে পাঠিয়ে দেওয়া’।

মূল পরীক্ষা থেকে এই ফলটি উঠে এসেছে যে বেশির ভাগ ফ্রি ভিপিএন সার্ভিস তাদের প্রাইভেসি, সিকিউরিটি, অ্যানোনিমাস’নেস এর প্রতিশ্রুতির বরখেলাপ করে ব্যবহারকারদের অপর গোপনে নানান পরীক্ষা এবং নিজেদের স্বার্থসিদ্ধি করে আসছে। আপনার ফোনে ভিপিএন অ্যাপলিকেশন ব্যবহার করার ফলে নানান রকম পপ-আপ বিজ্ঞাপন আসা এর একটি বড় উদাহরন।

আপনার সংযোগ কতটা নিরাপদ?

আপনার সুবিধার জন্য কোন ভিপিএন সার্ভিসে আসার আগে অবশ্যই গবেষণা করে নেয়া প্রয়োজন যে ভিপিএন সার্ভিসটি ব্যবহার করবেন তা আসলে কতটা ভালো এবং ভরসাযোগ্য! না জেনে বুঝে কোন সার্ভিস এর অপর ঝাপ দেয়া মোটেও বুদ্ধি মানের কোন কাজ হবেনা। যদিও আপনার কাছে এটি অনেকসময় ততটা ক্ষতিপূর্ণ নাও মনে হতে পারে বা এটি আপনার কি কি ক্ষতি করতে পারে সে সম্পর্কে ধারনা নাও থাকতে পারে; তবে এভাবে কোন সার্ভিস এর অপর আপনার সকল ব্রাউজিং আক্টিভিটি এবং ডিটেইলস অ্যাক্সেস করার ক্ষমতা তুলে দেয়া আপনার জন্য খুবই খারাপ ফলাফল বয়ে আনতে পারে। আপনারা হয়ত হটস্পট-শিল্ড এর কথা অবশ্যই শুনেছেন।

সম্প্রতি  হটস্পট-শিল্ড এর ওপর ব্যবহারকারীর ট্রাফিক ডাটা স্পাইং করার অভিযোগ এসেছে। আর এর পরিপ্রেক্ষিতে একটি আমেরিকান রাইটস অ্যাডভোকেসি গ্রুপ ‘ আমেরিকান ফেডারেল ট্রেড কমিশন’ এ তাদের বিরুদ্ধে একটি কমপ্লেইন ফাইল করেছে। যদিও হটস্পট-শিল্ড এর গোপনীয়তা নীতি অঙ্গীকার করেছিল যে তারা ব্যবহারকারীর  প্রাইভেসি, সিকিউরিটি, অ্যানোনিমাস’নেস রক্ষা করবে তবুও তাদের সাধারন ভিপিএন ইউজার এর ব্রাউজিং ডাটা, ব্রাউজিং হ্যাবিট ইত্যাদি অনলাইন অ্যাডভাটাইজমেন্ট প্রতিষ্ঠানের কাছে বিক্রি করতে দিতে দেখা গিয়েছে , প্রমানিতও হয়েছে ! আপনি ইতিমধ্যে হয়ত শুনেছিলেন যে ‘হোলা আনব্লকার’ সার্ভিসটি অবৈধভাবে বাবহারকারির ব্যান্ডউইথ ডানিয়াল অফ সার্ভিস অ্যাটাক তথা  (DoS Attack) এর জন্য ব্যবহার করত।

সত্য কথা বলতে পেইড ভিপিএন সার্ভিস লাভ করে আপনার নিকট তাদের ভিপিএন প্ল্যান বিক্রি করে; আর ফ্রি ভিপিএন সার্ভিস মুনাফা করে আপনার থেকে প্রাপ্ত নানারকম ডাটা তাদের নিজেদের মুনাফার জন্য বিক্রি করে। ফ্রি ভিপিএন সার্ভিস ব্যবহার করে আপনি আইডেনটিটি থেফট এর মত ক্ষতিকারক পরিস্থিতির সামনাসামনি হতে পারেন; তবে একটি ভালো পেইড ভিপিএন সার্ভিস হয়ত আপনার আইডেনটিটি কে তাদের অঙ্গিকার মোতাবেক যথাযত ভাবে লুকিয়ে রেখে আপনার অ্যানোনিমাস’নেসকে ঠিকভাবে রক্ষা করবে।

পরিশেষে

ভিপিএন সার্ভিস স্বার্থ ছাড়া কখনও ফ্রিতে আপনাকে তাদের এতসব রিসোর্স ব্যবহার করতে দিবেনা, আপনার থেকে তারা কিছু আদায় করে নিবে স্বাভাবিক , সেটা ডাটা মাইনিং (ডাটা মাইনিং কি) করেই হোক! বর্তমানে অনেক নামকরা এবং বিশ্বাসযোগ্য সার্ভিসও ফ্রি ভিপিএন অফার করে, তবে সমস্যা হল এগুলোর রিসোর্স থাকে অত্ত্যান্ত সীমিত।

ফ্রি ভিপিএন এর ওপর আপনার পার্সোনাল এবং অনেক ক্ষেত্রে ফিনান্সিয়াল ডাটা এক প্রকার রিস্কে তুলে দেয়া ঠিক নয়। বর্তমানে ৫-৯ ডলার মাসিক চার্জে অনেক ভালো বিশ্বাসযোগ্য ভিপিএন সার্ভিস পাওয়া যায়; একান্ত জরুরী হলে এবং ডাটা নিরাপত্তার ওপর কোন আপোষ করতে না চাইলে এর কোন বিকল্প নেই।


WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

Image Credit : Denys Prykhodov Via Shutterstock

কোন কিছু জেনে সেটা মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার মধ্য দিয়েই সার্থকতা । আমি মোঃ তৌহিদুর রহমান মাহিন- ভালোবাসি প্রযুক্তিকে , আরও ভালোবাসি প্রযুক্তি সম্পর্কে বেশি বেশি জানতে- জানাতে। নিয়মিত মানসম্মত প্রযুক্তি বিষয়ক আর্টিকেল উপহার দেয়ার প্রত্যয়ে আছি টেকহাবস এর সাথে।

One Ping

  1. Pingback: কেন শুধুমাত্র ভিপিএন কখনোই প্রাইভেসির জন্য যথেষ্ট নয়? | WireBD

6 Comments

  1. shadiqul Islam Rupos Reply

    এই আর্টিকেলে আমার মনের সব কথা রয়েছে….????????????

    1. তৌহিদুর রহমান মাহিন Post author Reply

      টর সাবজেক্ট এর বাহিরে… ভিপিএন বেস্ট কারন এখানে এনক্রিপশন আছে।

  2. রাব্বি Reply

    ধন্যা গুরু। বাট প্রিমিয়াম এর টাকা নাই। আর লাস্টের ধাঁধা দুইটার উত্তর দেন গুরু*???? (latest post er)

    1. তৌহিদুর রহমান মাহিন Post author Reply

      🙂 🙂 🙂
      ১। ভুট্টা
      ২। প্রতিধ্বনি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *