বর্তমান তারিখ:17 August, 2019

এথিক্যাল হ্যাকিং ফ্রী কোর্স [পর্ব ১০] : ৭টি বেস্ট হ্যাকিং অপারেটিং সিস্টেম!

৭টি বেস্ট হ্যাকিং অপারেটিং সিস্টেম

অনেকের মনে এই প্রশ্ন থাকে, এথিক্যাল হ্যাকিং এবং পেন টেস্টিং করার জন্য বেস্ট অপারেটিং সিস্টেম বা লিনাক্স ডিস্ট্র কোনটি? আবার অনেকের প্রশ্ন, রিয়াল হ্যাকাররা কোন হ্যাকিং অপারেটিং সিস্টেম গুলো ব্যবহার করে থাকে? — ওয়েল, এথিক্যাল হ্যাকিং এ নিজের ক্যারিয়ার করার চিন্তা থাকলে এগুলো একেবারেই কমন প্রশ্ন! কেননা আপনাকে সঠিক টুল গুলোর উপর পারদর্শিতা আনতেই হবে।

উইন্ডোজ ইউজ করে প্রো হ্যাকার হওয়ার কথা ভুলে যান, আবার লিনাক্সের যেকোনো ডিস্ট্র ইউজ করলেও হবে না। আপনাকে এমন কিছু অপারেটিং সিস্টেম খুঁজে নিতে হবে যেগুলো বিশেষ করে হ্যাকিং এবং পেন টেস্টিং করার জন্য উৎসর্গ করে তৈরি করা হয়েছে। প্রথমেই বলি, আমি কোন প্রো হ্যাকার নয়, (সিকিউরিটি সম্পর্কে কিছু বেসিক জ্ঞান রাখি মাত্র) তবে নিজের কিছু জ্ঞান এবং নানান অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করার অভিজ্ঞতা থেকে এই আর্টিকেলে কিছু বেস্ট হ্যাকিং অপারেটিং সিস্টেম উল্লেখ্য করেছি, যেগুলো অবশ্যই কোন প্রো হ্যাকার মিস করতে চাইবে না।

হ্যাকিং অপারেটিং সিস্টেম গুলোকে বিশেষ করে, সিকিউরিটি রক্ষার খ্যাতিরে বানানো হয়েছে, কিন্তু ব্ল্যাক হ্যাট এবং গ্রেহ্যাট হ্যাকার’রাও এই ওএস এবং টুল গুলো ব্যবহার করে থাকে। তবে কে কি ব্যবহার করছে সেটা প্রশ্ন নয়, কথা হচ্ছে আমরা যেহেতু এথিক্যাল হ্যাকিং নিয়ে আলোচনা করতে বসেছি তাই আমাদের সিকিউরিটি রক্ষার চিন্তাই করতে হবে, সিকিউরিটি ব্রেক করে ক্ষতির চিন্তা নয়, কেননা এই সঠিক চিন্তায় একজন হ্যাকারকে এথিক্যাল হ্যাকার তৈরি করে।

যাই হোক, বেস্ট এথিক্যাল হ্যাকিং অপারেটিং সিস্টেম লিস্টে ঝাঁপিয়ে পরার পূর্বে এথিক্যাল হ্যাকিং নিয়ে আগের আর্টিকেল গুলো মিস হয়ে থাকলে নিচ লিস্ট থেকে সেগুলো আক্সেস করতে পারেন!

বেস্ট হ্যাকিং অপারেটিং সিস্টেম

কালি লিনাক্স

কালি লিনাক্স

কালি লিনাক্স যেকোনো হ্যাকারের প্রথম পছন্দের একটি হ্যাকিং অপারেটিং সিস্টেম। বিশেষ করে সিকিউরিটি ফোকাস দিয়ে তৈরি করা এবং পেন টেস্টিং এর জন্য সেরা এই ওএসটি ব্যাকট্র্যাক করে নতুন করে রি-রাইট করা হয়েছে। এটি একটি ডেবিয়ান নির্ভর লিনাক্স ডিস্ট্র, যেটার সাথে ৬০০+ পেন টেস্টিং এবং সিকিউরিটি রিলেটেড টুলস প্রি-ইন্সটলড থাকে। সাথে অপারেটিং সিস্টেমটি নিয়মিত আপডেট রিসিভ করে, আর ইউএসবি থেকেও একে রান করানো যায় যেকোনো লিনাক্স ডিস্ট্রর মতো।

ব্যাকট্র্যাক থেকে এটি আপডেটেড ভার্শন, এতে অনেক নতুন টুলস যুক্ত করানো হয়েছে এবং আরো যুক্ত হচ্ছে। লাইভ ভার্সনে আপনি সকল টুল ইউজ করতে পারবেন না, তাই ফুলভাবে ইউজ করার জন্য আপনাকে এটি কম্পিউটারে ইন্সটল করতে হবে। অনেক অ্যান্ড্রয়েড ফোনেও কালি লিনাক্স ইন্সটল করা যায় এবং বিশেষ কিছু টুল রান করানো যায়। নেক্সাস এবং স্যামসাং এর কিছু ডিভাইজে কালি লিনাক্স রান করানো যায়।

আপনি যদি এথিক্যাল হ্যাকিং এর একজন বিগেনার স্টুডেন্ট হয়ে থাকেন এবং সরাসরি কাজের কিছু চান, সেক্ষেত্রে কালি লিনাক্সের চেয়ে বেস্ট কোন সলিউশন হতেই পারে না, কালি লিনাক্সের বিস্তারিত ওভারভিউ এই আর্টিকেলটি থেকে দেখে নিতে পারেন।

ডাউনলোড কালি লিনাক্স

প্যারট সিকিউরিটি ওএস

প্যারট সিকিউরিটি ওএস

সিকিউরিটি এবং পেন টেস্টিং এর জন্য অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি অপারেটিং সিস্টেম এটি, যেটা প্যারটসেক নামেও পরিচিত। প্যারট সিকিউরিটি ওএস ডেবিয়ানের উপর নির্ভর করে তৈরি করা হয়েছে এবং এটি একটি ক্লাউড ফ্রেন্ডলি ওএস যেটা এথিক্যাল হ্যাকিং, পেন টেস্টিং, কম্পিউটার ফরেনসিক, ক্রিপ্টোগ্রাফি — ইত্যাদির জন্য বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে। সহজেই কাজ করার জন্য এবং মাক্সিম্যাম এনোনিম্যাস থাকার জন্য এটি বেস্ট ওএস।

এর মূল ফোকাস সিকিউরিটির উপর হওয়ার পরেও আরেকটি বড় ফোকাস হচ্ছে এটি একটি লাইটওয়েট অপারেটিং সিস্টেম যেটা অনেক স্মুথ রান করতে পারে। তবে অনেকেই এটা জানেন না যে প্যারট সিকিউরিটি ওএস আসলে ফ্রজেনবক্স ওএস এবং কালি লিনাক্সের মিশ্রণে তৈরি করা একটি অপারেটিং সিস্টেম। তবে এর নিজস্ব কিছু ফিচার রয়েছে, তাছাড়া এই ওএস টি MATE desktop environment এর সাথে আসে যেটা হাইলি কাস্টমাইজেবল। তো বলতেই হবে এটি অত্যন্ত শক্তিশালী একটি হ্যাকিং ওএস যেটার শক্তিশালী ইউজার কমিউনিটিও রয়েছে!

ডাউনলোড প্যারট সিকিউরিটি ওএস

ব্যাকবক্স

ব্যাকবক্স

যদিও এটি একটি উবুন্টু নির্ভর অপারেটিং সিস্টেম, কিন্তু বিশেষ করে সিকিউরিটি এবং পেন টেস্টিং এর জন্য একে বানানো হয়েছে। ওয়েব অ্যাপলিকেশন এনালাইসিস এবং নেটওয়ার্ক এনালাইসিস করার জন্য ব্যাকবক্স লিনাক্সকে বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে। এটি হ্যাকারদের জন্য অত্যন্ত প্রিয় একটি অপারেটিং সিস্টেম, যেটা অনেক ফাস্ট এবং এতে কমপ্লিট ডেক্সটপ ফ্লেভার পেতে পারবেন। এটি অনেক স্ট্যাবল একটি ওএস, যেটা রেগুলার আপডেট পেয়ে থাকে সাথে টুল গুলোর ও আপডেট পাওয়া যায়। ওএসটি একেবারেই বিগেনার ফ্রেন্ডলি, তাই নতুন হ্যাকারদের জন্যও এটি একটি সুবিধার জিনিষ!

ডাউনলোড ব্যাকবক্স

পেন্টো লিনাক্স

পেন্টো লিনাক্স

এর নাম থেকেই বুঝা যায়, বিশেষ করে পেন টেস্টিং করার জন্যই এই লিনাক্স ডিস্ট্রটি বানানো হয়েছে। এটি ফাস্ট একটি ওএস, যেটার ৩২ বিট এবং ৬৪ বিট উভয় ভার্সনই রয়েছে। হ্যাকারদের জন্য গ্রেট নিউজ হচ্ছে এটি একটি বেস্ট অপারেটিং সিস্টেম যেটা এথিক্যাল হ্যাকিংকে ফোকাস করে বানানো হয়েছে এবং এর লাইভ সিডি ভার্সন রয়েছে। আপনি একটি বুটেবল ইউএসবি বানিয়ে সহজেই এই ডিস্ট্রটি পিসিতে রান করাতে পারবেন। Exploit, Cracker, Database, Scanner ইত্যাদি টুলস গুলো সম্পূর্ণ বিল্ডইনভাবে পেয়ে যাবেন, সাথে সুপার ফাস্ট অপারেটিং সিস্টেমটি আপনার অবশ্যই ভালো লাগবে!

ডাউনলোড পেন্টো লিনাক্স

ডিইএফটি লিনাক্স

ডিইএফটি লিনাক্স

ডিইএফটি বা (ডিজিটাল এভিডেন্স অ্যান্ড ফরেনসিক টুলকিট) একটি পিউর GNU Linux এর উপর নির্ভরশীল সিস্টেম, যেটার সাথে ১০০+ হ্যাকিং এবং ফরেনসিক টুলস রয়েছে। এথিক্যাল হ্যাকার, পেন টেস্টার, আইটি সিকিউরিটি স্পেশালিষ্ট সহ অনেকেই এই সিস্টেম ইউজ করে থাকে, যদিও আমি কখনো এটি ইউজ করিনি, তবে অনলাইনে এর বেশ গুণগান শুনেছি।

ডাউনলোড ডিইএফটি লিনাক্স

ব্ল্যাকআর্চ লিনাক্স

ব্ল্যাকআর্চ লিনাক্স

একজন নিরাপত্তা গবেষক এবং একজন এথিক্যাল হ্যাকারের কাছে অত্যন্ত মুল্যবান একটি অপারেটিং সিস্টেম হচ্ছে এই ব্ল্যাকআর্চ লিনাক্স। আপনি যদি একটি কমপ্লিট লিনাক্স ডিস্ট্র খুঁজে থাকেন, আমি অবশ্যই বলবো, ব্ল্যাকআর্চ আপনার জন্য বেস্ট সলিউশন হতে পারে। অপারেটিং সিস্টেমটিতে ১৪০০+ টুলস রয়েছে, আর হ্যাকাররা একে অপছন্দ করতেই পারে না। প্রত্যেকটি টুলস এই সিস্টেমে যুক্ত করার পূর্বে অনেক ভালোভাবে টেস্ট করা হয়, তারপরেই টুলটিকে সিস্টেমে স্থান দেওয়া হয়ে থাকে।

ডাউনলোড ব্ল্যাকআর্চ লিনাক্স

ব্যাকট্র্যাক

ব্যাকট্র্যাক

ব্যাকট্র্যাক একটি অসাধারণ অপারেটিং সিস্টেম, এতে কিছু ইউনিক ব্যাপার রয়েছে যেগুলোর জন্য হ্যাকাররা এখনো এতে ইন্টারেস্ট গ্রহণ করতে আগ্রহি। এটি অনেক জনপ্রিয় একটি অপারেটিং সিস্টেম যেটাকে বিশেষ করে পেন টেস্টিং এবং নেটওয়ার্ক ক্র্যাকিং এর জন্য ব্যবহার করা হয়। ব্যাকট্র্যাকের কথা বলতেই মনে পরে গেলো পুরাতন অনেক স্মৃতি, তখন ওয়াইফাই হ্যাক করার প্র্যাকটিস করতাম, যাই হোক সেই গল্প অন্য একদিন বর্ণিত করবো। আর হ্যাঁ, এই ব্যাকট্র্যাকই বর্তমানে কালি লিনাক্স এ পরিনত হয়েছে।

ডাউনলোড ব্যাকট্র্যাক

আমি কোনটি ইউজ করবো?

এখন অনেকের প্রশ্ন, “আমি তো নতুন হ্যাকিং শিখছি আমি তো এতো কিছু বুঝি না, আপনি বলে দিন কোন ওএস বেস্ট, ব্যাস!” — ওকে, কোন হ্যাকারের কাছে জিজ্ঞাস করলে তারা আপনাকে প্রধান তিনটি হ্যাকিং অপারেটিং সিস্টেম রেকমেন্ড করবে, কালি লিনাক্স, প্যারট সিকিউরিটি ওএস, বা ব্ল্যাকআর্চ লিনাক্স। অনেকে বলবে অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার কোন ব্যাপার না, দক্ষতাটায় আসল জিনিষ। হ্যাঁ এটাও ঠিক কথা, আপনাকে অবশ্যই একজন দক্ষ হ্যাকার হতে হবে, আপনার প্রচুর জ্ঞান থাকতে হবে, কিন্তু একটি ভালো ওএস এবং কাজের টুলস গুলো ও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

কালি লিনাক্স একটি বেস্ট হ্যাকিং ওএস, অবশ্যই! সবচাইতে বড় সুবিধা হচ্ছে কালি লিনাক্সের অনেক অনলাইন টিউটোরিয়াল পাবেন যার ফলে এটি শেখা অনেক সুবিধার হয়ে যায়। অপরদিকে প্যারট সিকিউরিটি ওএস ও ডেবিয়ানের উপর তৈরি, মানে কালি এবং প্যারট সিকিউরিটি ওএস অনেকটা সিমিলার টাইপের ওএস যদি ব্ল্যাকআর্চের সাথে তুলনা করা হয়। ব্ল্যাকআর্চ অপরদিকে আর্চ লিনাক্সের উপর তৈরি মানে এতে আলাদা কম্যান্ড লাইন এবং আলাদা স্টাইলে ব্যবহার করতে হবে। তবে আর্চ লিনাক্স ইউজ করে যদি আপনি বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন সেক্ষেত্রে ব্ল্যাকআর্চ আপনার জন্য বেস্ট হ্যাকিং অপারেটিং সিস্টেম হতে পারে।

তো আপনি কোন ওএসটি পছন্দ করেন, বা কোনটির উপর বিশেষ আয়ত্ত আনার চিন্তা করছেন? আমাদের নিচে কমেন্ট করে জানান! এথিক্যাল হ্যাকিং এর এই পর্ব কেমন লাগলো সেটাও জানাতে ভুলবেন না! দ্রুতই নেক্সট পর্ব পাবলিশ করার চেষ্টা করবো সুতরাং নিয়মিত আমাদের সাথেই থাকুন!



WiREBD এখন ইউটিউবে, নিয়মিত টেক/বিজ্ঞান/লাইফ স্টাইল বিষয়ক ভিডিও গুলো পেতে WiREBD ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুণ! জাস্ট, youtube.com/wirebd — এই লিংকে চলে যান এবং সাবস্ক্রাইব বাটনটি হিট করুণ!

Img Credit: By Alexander Geiger Via Shutterstock

প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? কিছুতেই কি আপনার মস্তিষ্কে পাল্লা পড়ছে না? তাহলে বন্ধু, আপনি এবার সঠিক জায়গায় এসেছেন—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি, যাতে সকলে সহজেই সকল টেক টার্ম গুলো বুঝতে পারে।

5 Comments

    1. তাহমিদ বোরহান Post author Reply

      সবার আলাদ আলাদা স্পেসালিটি রয়েছে, কিন্তু ঐভাবে দেখতে গেলে কালিকে চয়েজ করায় বেস্ট হবে!

  1. Johny Reply

    বেশ কিছু প্রশ্ন ছিল ভাই…..????
    ১) ডুয়াল বুট দিয়ে কালি ইউজ করবো নাকি ভিএম দিয়ে ইউজ করবো??
    ২) ইনস্টলেশন গাইড থাকলে লিংক দিন প্লিজ।
    ৩) এন্ড্রোয়েড এ কিভাবে ইনস্টল করব কালি?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *